মে ২৭, ২০২২ ১৫:১৬ Asia/Dhaka
  • ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রদলের ওপর ছাত্রলীগের হামলার তীব্র নিন্দা জানালো এলডিপি

জাতীয় সংসদ নির্বাচন সামনে রেখে বিরোধীদলের ওপর হামলা, মামলা ও আক্রমণ বাড়িয়ে দেওয়া হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন লিবারেল ডেমোক্রেটিক পার্টির (এলডিপি) সভাপতি ড. কর্নেল (অব.) অলি আহমদ বীর বিক্রম।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রদলের ওপর ছাত্রলীগের হামলার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে আজ শুক্রবার দেওয়া এক বিবৃতিতে ২০ দলীয় জোটের অন্যতম শীর্ষ নেতা এ অভিযোগ করেন।

বিবৃতিতে ছাত্রলীগকে ‘সন্ত্রাসী’ সংগঠন অ্যাখা দিয়ে অলি আহমদ বলেন, ন্যায্য দাবিতে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের ওপর ছাত্রলীগের হামলার ঘটনা তাদের সন্ত্রাসী সংগঠন হিসেবে জাতির সামনে প্রমাণ করেছে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রদলের ওপর ছাত্রলীগের সন্ত্রাসী হামলা ক্যাম্পাসে শিক্ষার্থীদের জন্য এক ভীতিকর ও অনিরাপদ পরিবেশ সৃষ্টি করেছে। ২০ দলীয় জোটের এই নেতা বলেন, ছাত্রলীগ এখন আর সাধারণ ছাত্রদের সংগঠন নয়, এটি সন্ত্রাসী সংগঠনে পরিণত হয়েছে। হামলার সময় সন্ত্রাসীরা চাপাতিসহ বিভিন্ন দেশীয় অস্ত্রের ব্যবহার করেছে। অবিলম্বে ছাত্রলীগ নামধারী সন্ত্রাসীদের চিহ্নিত করে তাদের শাস্তির আওতায় আনতে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ ও প্রশাসনের কাছে দাবি জানান তিনি।

তিনি বলেন, দেশজুড়ে ছাত্রলীগের সন্ত্রাসীরা শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে হানাহানি, টেন্ডারবাজি, খুন ও ধর্ষণের মতো ঘটনা বিনা বাধায় ঘটিয়ে চলেছে। আওয়ামী লীগ রাষ্ট্র ক্ষমতায় থাকায় ছাত্রলীগের সন্ত্রাস নৈরাজ্য আরও বেপরোয়া হয়ে উঠেছে। অলি আহমদ আরও বলেন, আওয়ামী লীগ রাষ্ট্রক্ষমতায় আসার পর থেকে লাগামহীন অপরাধ কর্মকাণ্ডে নেমেছে ছাত্রলীগ। ক্যাম্পাসে খুনোখুনি, লাগাতার অভ্যন্তরীণ তাণ্ডব, সাধারণ শিক্ষার্থীদের নির্যাতন, বেপরোয়া যৌন সন্ত্রাসের অভিযোগ সত্ত্বেও একটি ঘটনারও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির নজির নেই। স্বাধীনতার পর থেকেই আওয়ামী লীগ তাদের সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডের মধ্য দিয়ে নিজেদের একটি সন্ত্রাসী দল হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করেছে। নিজেদের ক্ষমতা পাকাপোক্ত করতে নির্বাচন সামনে রেখে বিরোধীদলের ওপর হামলা, মামলা ও আক্রমণ বাড়িয়ে দিয়েছে।

ওবায়দুল কাদের

ওদিকে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, পদ্মা সেতুর নির্মাণ ঠেকাতে না পেরে বিএনপি এখন সেতু উদ্বোধনের আগে দেশকে অস্থিতিশীল করার জন্য ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাসে লাশ ফেলার ষড়যন্ত্র করছে। তিনি শুক্রবার সকালে তার বাসভবনে ব্রিফিংকালে এ কথা বলেন।ওবায়দুল কাদের বলেন, পদ্মাসেতু, মেট্রোরেল, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান কর্ণফুলী টানেলসহ মেগা প্রকল্পগুলো দেখে বিএনপি নেতাদের মাথা নষ্ট হয়ে গেছে।

ওবায়দুল কাদের বলেন ‘বিএনপি মহাসচিব পদ্মা সেতু নিয়ে বারবার লুটপাটের যে কাল্পনিক অভিযোগ করে যাচ্ছেন এটা তার বিকৃত মস্তিষ্কের নতুন আবিষ্কার। শতভাগ স্বচ্ছতা নিয়েই পদ্মাসেতুর নির্মাণ কাজ শেষ হয়েছে। পদ্মা সেতুতে দুর্নীতির কাল্পনিক অভিযোগ বিএনপি মহাসচিব করছেন, তার সুনির্দিষ্ট তথ্য প্রমাণ দিয়ে যদি প্রমাণ করতে না পারেন তাহলে মেগা প্রকল্প নিয়ে মেগা মিথ্যাচারের জন্য মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরকে ক্ষমা চাইতে হবে বলে জানান ওবায়দুল কাদের।#

পার্সটুডে/আবদুর রহমান খান/বাবুল আখতার/২৭

বিশ্বসংবাদসহ গুরুত্বপূর্ণ সব লেখা পেতে আমাদের ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে অ্যাকটিভ থাকুন।

 

 

ট্যাগ