জুন ২৫, ২০২২ ০০:০৭ Asia/Dhaka
  • পদ্মা সেতু
    পদ্মা সেতু

বাংলাদেশের প্রেসিডেন্ট মো. আবদুল হামিদ বলেছেন, পদ্মা সেতু বাস্তবায়ন বিশ্ব দরবারে দেশ ও জনগণকে আত্মবিশ্বাসের সঙ্গে মাথা উঁচু করে দাঁড়ানোর সাহস এনে দিয়েছে। অন্যদিকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, নিজস্ব অর্থায়নে পদ্মা সেতু নির্মাণের মধ্য দিয়ে বাঙালি বিশ্বের সামনে নিজেদের ‘দুর্নীতিমুক্ত বীরের জাতি’ হিসেবে প্রতিষ্ঠা করতে পেরেছে।

পদ্মা সেতুর উদ্বোধন উপলক্ষে আজ (শুক্রবার) আলাদা বাণীতে তারা এসব মন্তব্য করেন। প্রেসিডেন্ট তাঁর বাণীতে বলেন, “স্বপ্নের পদ্মা সেতু আজ উত্তাল পদ্মার বুকে জাতির গৌরবের প্রতীক হয়ে দাঁড়িয়ে আছে। এসব অর্জনের অগ্রভাগে থেকে নেতৃত্ব দিয়ে যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তার সাহসিকতা, বলিষ্ঠ পদক্ষেপ এবং যুগোপযোগী সিদ্ধান্ত গ্রহণের ফলেই বাংলাদেশ সরকারের নিজস্ব অর্থায়নে পদ্মা সেতু নির্মাণ সম্ভব হয়েছে।”

এ সেতুকে বাংলাদেশের ‘আত্মনির্ভরশীলতা ও আত্মমর্যাদার প্রতীক’ হিসেবে বর্ণনা করে রাষ্ট্রপতি তার বাণীতে শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়েছেন দেশবাসীকে।

প্রেসিডেন্ট মো. আবদুল হামিদ

এদিকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তাঁর বাণীতে বলেন,  বিশ্বব্যাংক পদ্মা বহুমুখী সেতু নির্মাণ প্রকল্পে দুর্নীতির অভিযোগ এনে মামলা করে। কানাডার আদালত বিশ্বব্যাংক উত্থাপিত সব অভিযোগ মিথ্যা, বানোয়াট ও ভিত্তিহীন বলে রায় দেয়। সব দুর্নীতির অভিযোগ মিথ্যা প্রমাণিত হয়। আমরা ওয়ার্ল্ড ব্যাংকের ঋণ না নেওয়ার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করি। বাংলাদেশ নিজস্ব অর্থায়নে সেতু নির্মাণের ঘোষণা দিলে জনগণের কাছ থেকে বিপুল সমর্থন পাই। জনতার শক্তি হৃদয়ে ধারণ করে সম্পূর্ণ নিজস্ব অর্থায়নে আজ আমরা স্বপ্নের পদ্মা সেতুর নির্মাণ কাজ সম্পন্ন করেছি। দেশবাসীর প্রতি কৃতজ্ঞতা জানাই। দুর্নীতিমুক্ত বীরের জাতি হিসেবে বাঙালি নিজেদের বিশ্বের বুকে প্রতিষ্ঠিত করেছে। সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবের ঐতিহাসিক ৭ই মার্চের ভাষণে বজ্রকণ্ঠে উচ্চারিত সাত কোটি মানুষকে দাবায়ে রাখতে পারবা না’— এই চিরপ্রেরণার বাণীতে উজ্জীবিত হয়ে আমরা প্রমাণ করেছি আমাদের নিজস্ব সক্ষমতা।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

দেশপ্রেমিক জনগণের আস্থা ও সমর্থনের ফলেই উন্নয়নের এ নতুন অধ্যায় উন্মোচিত হয়েছে মন্তব্য করে শেখ হাসিনা বলেন, “আগামী দিনেও গণমানুষের আশা-আকাঙ্ক্ষা স্বপ্ন পূরণে আমরা আন্তরিকভাবে কাজ করে যাব।“

‘পদ্মা বহুমুখী সেতু নির্মাণ প্রকল্প’ বাস্তবায়নে নিয়োজিত সর্বস্তরের দেশি-বিদেশি প্রকৌশলী, পরামর্শক, কর্মকর্তা-কর্মচারী, নিরাপত্তা তদারকিতে নিয়োজিত সেনাবাহিনী ও নির্মাণ শ্রমিকসহ সংশ্লিষ্ট সবাইকে তাদের অবদান ও অক্লান্ত পরিশ্রমের জন্য অভিবাদন জানান প্রধানমন্ত্রী।#

পার্সটুডে/‌আশরাফুর রহমান/২৪

 

ট্যাগ