সেপ্টেম্বর ২৯, ২০২২ ১৮:২০ Asia/Dhaka

বাংলাদেশের ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সরকারের সড়ক-সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বিএনপির প্রতি হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করে বলেছেন, দলীয় কর্মসূচি পালনে ফের লাঠি নিয়ে এলে আপনাদের খবর আছে। জাতীয় পতাকার সঙ্গে লাঠি, এটা মেনে নেব না। বাংলাদেশের জাতীয় পতাকার অবমাননা করা হলে এটা আমরা মেনে নেব না।

আজ (বৃহস্পতিবার) দুপুরে শেখ হাসিনার ৭৬তম জন্মদিন উপলক্ষে আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগ আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, বিএনপির আন্দোলনের হুমকি আর হাঁকডাকে আওয়ামী লীগ ভীত নয়। রাজপথে আন্দোলন করে আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় এসেছে। তাই আন্দোলনের ভয় আওয়ামী লীগকে দেখাবেন না। আওয়ামী লীগ সতর্ক ও সংযমী অবস্থায় সক্রিয় আছে।

গুলি-টিয়ার গ্যাস-হামলা মোকাবেলা করবে বিএনপি: গয়েশ্বর

এদিকে, বিএনপি’র স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায় আজ রাজধানীতে এক অনুষ্ঠানে বলেছেন, ক্ষমতাসীন ফ্যাসিবাদী সরকার গুলি-টিয়ার গ্যাস, নির্যাতন,  হামলা-মামলা দিয়ে বিরোধী দলকে দমিয়ে রাখতে চায়। বিএনপি এসব মোকাবেলা করে আন্দোলন অব্যাহত রাখবে।

রুহুল কবির রিজভী 

ব্যারিকেড ভেঙ্গে বিএনপির আন্দোলন এগিয়ে যাবে: রিজভী

অপরদিকে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী গতকাল খুলনায় এক স্মরণসভায় বলেছেন, গত ৩১ জুলাই থেকে আজ পর্যন্ত জনদাবিতে আন্দোলন করতে গিয়ে পুলিশের গুলিতে ৪ জন নিহত হয়েছে। গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারের সংগ্রামে অংশ নেওয়া মানুষকে আর গুলি করে হত্যা করা যাবে ন।  বাঁশের লাঠিতে জাতীয় পতাকা ধারণ করে শাসক দলের সব ব্যারিকেড ভেঙ্গে বিএনপির আন্দোলন এগিয়ে যাবে।

এ ছাড়া ২০ দলীয় জোটের অন্যতম শীর্ষনেতা ও লিবারেল ডেমোক্রেটিক পার্টির (এলডিপি) প্রেসিডেন্ট কর্নেল (অব.) ড. অলি আহমদ বীর বিক্রম আজ (বৃহস্পতিবার) এক বিবৃতিতে বলেছেন, ছাত্রলীগ বিরোধীদলের সভা-সমাবেশে হামলা চালিয়ে রাজনৈতিক পরিবেশকে উত্তপ্ত করে তুলছে। এতে অনিবার্যভাবে এক সংঘাতময় পরিস্থিতি সৃষ্টি ও জননিরাপত্তা হুমকির মুখে পড়েছে। এমতাবস্থায় ছাত্রলীগের সন্ত্রাসী ও অপরাধমূলক কর্মকাণ্ডে লাগাম টেনে ধরা জরুরি। ছাত্রলীগকে নিষিদ্ধ করা এখন সময়ের দাবি।

অলি আহমদ বলেন, ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা এখন সুস্থধারার রাজনীতির চর্চা বাদ দিয়ে খুন, ধর্ষণ, লুটপাট, অগ্নিসংযোগ, পতিতাবৃত্তি, অস্ত্রব্যবসা, মাদকব্যবসা, সিট ও ভর্তি বাণিজ্যে ব্যস্ত রয়েছে। দেশে এমন কোনো অপরাধ নেই, যার সঙ্গে ছাত্রলীগ যুক্ত নেই। বিরোধীদলকে দমন-পীড়নে এই ‘সন্ত্রাসী সংগঠনটি’কে ব্যবহার করছে আওয়ামী লীগ। গণতান্ত্রিক রাজনৈতিক পরিবেশ বিনষ্ট করে করছে তারা।#

পার্সটুডে/আব্দুর রহমান খান/আশরাফুর রহমান/২৯

বিশ্বসংবাদসহ গুরুত্বপূর্ণ সব লেখা পেতে আমাদের ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে অ্যাকটিভ থাকুন।

ট্যাগ