২০১৯-০৯-২০ ২২:২৮ বাংলাদেশ সময়
  • কলাবাগান ক্রীড়া চক্রে অভিযান চালিয়ে ক্লাবটির সভাপতি সফিকুল আলম ফিরোজকে আটক করে র‌্যাব।
    কলাবাগান ক্রীড়া চক্রে অভিযান চালিয়ে ক্লাবটির সভাপতি সফিকুল আলম ফিরোজকে আটক করে র‌্যাব।

বাংলাদেশের রাজধানীর ধানমন্ডি ক্লাব লিমিটেডে অভিযানের পর ক্লাবটি আগামী ২৪ ঘণ্টার জন্য সিলগালা করে দিয়েছে র‍্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‍্যাব)। এর আগে, কলাবাগান ক্রীড়াচক্রে অভিযান চালিয়ে ক্লাবের সভাপতি ও কৃষকলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য সফিকুল আলম ফিরোজসহ পাঁচজনকে অস্ত্র-গুলি ও ইয়াবাসহ গ্রেফতার করা হয়েছে।

আজ (শুক্রবার) রাত সোয়া ১০টার দিকে ধানমন্ডি ক্লাবে অভিযান শেষে র‌্যাবের কোম্পানি কমান্ডার এসপি শাহাবুদ্দিন আহমেদ সাংবাদিকদের বলেন, গত ১৮ সেপ্টেম্বর থেকে আমাদের অভিযান চলছে। সেই ধারাবাহিকতায় শুক্রবার ধানমন্ডি ক্লাবে অভিযান চালানো হয়েছে। আমরা এখানে বেশ কিছু অসঙ্গতি দেখতে পেয়েছি। বারের লাইসেন্স থাকলেও শুক্রবার ক্লাবটি বন্ধ থাকায় কী পরিমাণ মাদকদ্রব্য এখানে মজুদ আছে তা জানা সম্ভব হয়নি।   

সংবাদ সম্মেলনে র‌্যাবের কোম্পানি কমান্ডার এসপি শাহাবুদ্দিন আহমেদ

তিনি আরও জানান, 'এ ক্লাবে বিভিন্ন ধরনের জুয়া খেলা হয়, সে বিষয়ে আমরা তাদের সতর্ক করেছি। আমাদের সঙ্গে র‍্যাবের নিবার্হী ম্যাজিস্ট্রেট গাউসুল আজম রয়েছেন। তার নির্দেশেই আগামী ২৪ ঘণ্টার জন্য ধানমন্ডি ক্লাব সিলগালা করা হয়েছে। এই সময়ের মধ্যে রেজিস্টারসহ ম্যাজিস্ট্রেটের সামনে কী পরিমাণ মাদক মজুদ রয়েছে তা মিলিয়ে দেখা হবে। যদি বারের রেজিস্টার এবং মজুদের মধ্যে অসঙ্গতি পাওয়া যায় তাহলে ব্যবস্থা নেয়া হবে।’  

এর আগে আজ  সন্ধ্যা ৭টা ১০ মিনিটে ধানমণ্ডির কলাবাগান ক্রীড়াচক্র ক্লাবের নির্বাহী কমিটির সভাপতি শফিকুল আলম ফিরোজকে সঙ্গে নিয়ে র‍্যাব-২ এর অধিনায়ক আশিক বিল্লাহের নেতৃত্বে অভিযান শুরু হয়। সন্ধ্যা ৭টা ৪০ মিনিটে অভিযান শেষ হয়। অভিযান শেষে এক সংবাদ সম্মেলনে আশিক বিল্লাহ বলেন, কলাবাগান ক্রীড়া চক্রের সভাপতি শফিকুল আলম ফিরোজসহ পাঁচ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। বাকি চারজন ক্লাবের স্টাফ। তাদের বিরুদ্ধে ধানমন্ডি থানায় মাদক ও অস্ত্র আইনে মামলা করা হবে।

কলাবাগান ক্রীড়াচক্র ক্লাবের র‍্যাবের অভিযানে অস্ত্র-গুলি ও ইয়াবা উদ্ধার

তিনি বলেন, ‘অভিযানে জুয়া খেলায় ব্যবহৃত বিভিন্ন কয়েন, ৫৭২ প্যাকেট আমেরিকান গোল্ডেন কার্ড, বিদেশি একটি পিস্তল, তাজা গুলি ও হলুদ রঙের ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধার করা হয়। এ রকম ইয়াবা আগে কখনও দেখা যায়নি। 

র‍্যাবের এই কর্মকর্তা বলেন, "ক্লাবে ক্যাসিনো আছে বলে সন্দেহ করা হয়, কিন্তু অভিযানের আগে কোনোভাবে তা সরিয়ে ফেলা হয়েছে।" 

এর আগে শুক্রবার দুপুরে রাজধানীর নিকেতনে যুবলীগ নেতা এস এম গোলাম কিবরিয়া শামীমের কার্যালয়ে অভিযান চালিয়ে বিপুল পরিমাণ অর্থ, এফডিআর এবং অবৈধ অস্ত্রসহ তাকে আটক করে র‍্যাব। এছাড়া, বুধবার অবৈধ ক্যাসিনো চালানোর অভিযোগে যুবলীগ নেতা খালেদ মাহমুদকে গুলশান থেকে গ্রেপ্তার করে র‌্যাব।

পার্সটুডে/আশরাফুর রহমান/২০

খবরসহ আমাদের ওয়েবসাইটে প্রকাশিত সব লেখা ফেসবুকে পেতে এখানে ক্লিক করুন এবং নোটিফিকেশনের জন্য লাইক দিন

 

ট্যাগ

মন্তব্য