২০১৯-০৯-২৩ ১৫:০৯ বাংলাদেশ সময়
  • ওবায়দুল কাদের
    ওবায়দুল কাদের

বাংলাদেশের ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, 'দুর্নীতি ও দুর্বৃত্তায়নের বিরুদ্ধে সরকার কঠোর অবস্থানে রয়েছে। কোনো ছাড় নয়, অভিযান চলছে ও চলবে। দলীয় পরিচয়ে কেউ পার পাবেন না। গ্রেপ্তারকৃতরা এখন আওয়ামী লীগের কর্মী, এটাই কথা; আগে কোন দল করত, তা দেখার বিষয় নয়।’

আজ (সোমবার) সকালে সচিবালয়ে সাংবাদিকদের আলাপকালে ওবায়দুল কাদের বলেন, অ্যাকশন শুরুই হয়েছে এক সপ্তাহ আগে। আরও যাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠেছে যাচাই বাছাইয়ের পর তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, মাদক, সন্ত্রাস, চাঁদাবাজির সঙ্গে যত বড় গডফাদারই জড়িত থাকুক না কেন, কেউ পার পাবে না, কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না, মাত্র শুরু হলো এই অভিযান। যতদিন পর্যন্ত দেশ থেকে দুর্নীতি, দুর্বৃত্তায়ন শেষ করা না হবে ততদিন পর্যন্ত দেশে এই শুদ্ধি অভিযান চলবে। সারা দেশে দুর্নীতির বিরুদ্ধে এই অভিযান চালানো হবে, এরই মধ্যে জেলা শহরগুলোতে শুরু হয়েছে। এসব কাজের পেছনে যত বড় গডফাদার থাকুক, সবাইকে ধরা হবে। যারা এসব অপকর্মের ইন্ধন জুগিয়েছে, তারা সবাই বিচারের আওতায় আসবে। এর মধ্যে অনেক অপরাধী গা ঢাকা দিয়েছে, তাদের খুঁজছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী, তারা পালিয়ে বাঁচতে পারবে না।’

মহানগর দক্ষিণ যুবলীগের সভাপতি ইসমাইল হোসেন চৌধুরী সম্রাটের বিষয়ে জানতে চাইলে কাদের বলেন, ‘গা ঢাকা দিয়ে কেউ রেহাই পাবে না। আইনের আওতায় তাঁকে আসতেই হবে।’

সেতুমন্ত্রী বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী বিমানবন্দরে নির্দেশ দিয়েছেন, মাদক, জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে যেভাবে অভিযান চলেছে, একই রকমভাবে যেন সন্ত্রাস, দুর্নীতির বিরুদ্ধেও অভিযান চালানো হয়। প্রধানমন্ত্রী দেশে না থাকলেও যাতে এ অভিযান বন্ধ হয়ে না যায়, সে নির্দেশও দিয়ে গেছেন। এসব ঘটনার সঙ্গে জড়িত একজন ব্যক্তিও যেন বের হতে না পারে, সে ব্যাপারে নির্দেশনা আছে প্রধানমন্ত্রীর।’

ওবায়দুল কাদের আরো বলেন, বিএনপি এই অভিযান নিয়ে যা বলছে, তা দেশ আর শেখ হাসিনার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রের অংশ। এই ঘটনার পরে শেখ হাসিনার ভাবমূর্তি ভালো হয়েছে দেখে তাদের গাত্রদাহ হচ্ছে, তাই এসব কথা বলছেন মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

এর আগে গতকাল রোববার কক্সবাজারে জেলা প্রশাসনের সাথে বৈঠককালে ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ভূমিদস্যু ও দখলবাজরাও চলমান অভিযান থেকে রেহাই পাবে না।

সরকারি আমলাদের উদ্দেশে তিনি বলেন, আওয়ামী লীগের কাছে ভালো হওয়ার জন্য অনেকেই নিজেদের আওয়ামী লীগ নেতা মনে করছেন। দুর্নীতি না করে নিজেদের কাজ সততার সাথে করলেই এই সরকারের প্রিয় হওয়া যাবে। আওয়ামী লীগের নাম ব্যবহার করে অনিয়ম, দুর্নীতি সহ্য করা হবে না।'

বিএনপি নেতাদের উদ্দেশ্যে ওবায়দুল কাদের বলেন, তারা নানাভাবে ভালো কথা বলার চেষ্টা করেন। কিন্তু নিজেদের চেহারা আয়নায় দেখেননি। পাঁচবার তারা দুর্নীতিতে চ্যাম্পিয়ন হয়েছেন। তাদের এই দুর্নীতির রেকর্ড আগামীতে কেউ ভাঙতে পারবে না।#

 

পার্সটুডে/আবদুর রহমান খান/আশরাফুর রহমান/২৩

 

ট্যাগ

মন্তব্য