২০১৯-১০-২১ ১৫:০৩ বাংলাদেশ সময়
  • ভোলা প্রেস ক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করেছে ‘সর্বদলীয় মুসলিম ঐক্য পরিষদ’
    ভোলা প্রেস ক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করেছে ‘সর্বদলীয় মুসলিম ঐক্য পরিষদ’

ফেসবুক ইসলাম অবমাননাকর পোস্টকে কেন্দ্র করে বাংলাদেশের ভোলার বোরহানউদ্দিন উপজেলায় পুলিশের সঙ্গে স্থানীয় জনতার সংঘর্ষ ও হতাহতের ঘটনায় প্রশাসনকে দায়ী করেছে ‘সর্বদলীয় মুসলিম ঐক্য পরিষদ’।

আজ (সোমবার) সকাল সাড়ে ১১টায় ভোলা প্রেস ক্লাবে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এ ঘটনায় সুষ্ঠু তদন্তের জন্য সরকারের কাছে ছয় দফা দাবি পেশ করেছেন সংগঠনের যুগ্ম সদস্য সচিব মিজানুর রহমান। দাবিগুলো হলো-

১. অনতিবিলম্বে ভোলা জেলা পুলিশ সুপার ও বোরহানউদ্দিনের ওসিকে প্রত্যাহার করতে হবে এবং তদন্ত সাপেক্ষে গুলির হুকুমদাতা ও গুলিবর্ষণকারীদেরকে আইনের আওতায় এনে শাস্তি দিতে হবে।

২. আমাদের মহানবী (স.) ও মহান আল্লাহতায়ালা এবং ইসলাম নিয়ে ব্যঙ্গ ও কটুক্তিকারীর বিরুদ্ধে সর্বোচ্চ শাস্তির আইন করতে হবে।

৩. মহানবী (স.) ও আল্লাহ তায়ালাকে নিয়ে ব্যঙ্গ ও কটুক্তিকারী ‘বিপ্লব চন্দ্র শুভ’কে সর্বোচ্চ শাস্তি ফাঁসি দিতে হবে।

৪. ভোলার বোরহানউদ্দিনে গতকালের সংঘর্ষে যারা শাহাদাত বরণ করেছেন, তাদের পরিবারকে সর্বোচ্চ ক্ষতিপূরণ দিতে হবে।

৫. সরকারি খরচে আহতদের উন্নত চিকিৎসার ব্যবস্থা করতে হবে।

৬. গতকালের ঘটনায় গ্রেপ্তারকৃতদের নিঃশর্ত মুক্তি দিতে হবে এবং কোনো হয়রানিমূলক মামলা বা কাউকেই গ্রেপ্তার করা যাবে না।

ভোলা প্রেসক্লাবের সামনে ‘সর্বদলীয় মুসলিম ঐক্য পরিষদ’ সদস্যদের অবস্থান

সংবাদ সম্মেলনে ‘সর্বদলীয় মুসলিম ঐক্য পরিষদ’-এর আহ্বায়ক বশির উদ্দিন আগামী তিনদিনের কর্মসূচি ঘোষণা করেন। সেগুলো হলো-

১. মঙ্গলবার বিকাল চারটায় থানায় থানায় বিক্ষোভ।

২. বৃহস্পতিবার জেলা শহর সদর রোডে মানববন্ধন।

৩. শুক্রবার আটখোলা মসজিদে দোয়া মাহফিল।

সংবাদ সম্মেলনে ‘বিপ্লব চন্দ্র শুভ’র সর্বোচ্চ শাস্তির দাবি জানিয়ে বলা হয়, “যতোদিন দাবি না মানা হবে, ততোদিন সংগ্রাম চলবে।”

প্রসঙ্গত, বিপ্লবের ফেসবুক আইডি থেকে নবী মুহাম্মাদ (স.) সম্পর্কে অবমাননাকর মন্তব্য করে অন্য ফেসবুক বন্ধুদের কাছে পাঠানো হয়। পরে সেই ম্যাসেজের স্ক্রিনশট ভাইরাল হলে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। তবে নিজের ফেসবুক অ্যাকাউন্ট হ্যাকড হয়েছে বলে দাবি করেছে বিপ্লব। হ্যাকিংয়ের এ ঘটনায় পুলিশ সন্দেহভাজন দুই হ্যাকারকে আটকও করেছে।

এদিকে, ভোলা পুলিশ সুপার সরকার মোহাম্মদ কাউসার জানান, ফেসবুকে আল্লাহ ও হযরত মুহাম্মদ (সা.)কে কটূক্তির ঘটনায় হিন্দু বিপ্লব চন্দ্র শুভ, মো. শাকিব ও লিমনসহ তিনজনের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা (নং ১৭) দেয়া হয়। এ মামলায় তাদের ভোলা কোর্টে পাঠানো হয়েছে।

ভোলায় আহত এক ব্যক্তি

উল্লেখ্য, রোববার সকাল ১০টায় বোরহানউদ্দিন পৌরসভার ঈদগাহ মাঠে সমাবেশ শেষে শুরু হওয়া এ সংঘর্ষে গুলি, টিয়ারশেল ও ইটপাটকেল নিক্ষেপ করা হয়। সংঘর্ষে আহত ৪৫ জনকে ভোলা সদর ও ৩০ জনকে বরিশাল শেরেবাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল এবং বাকিদের বোরহানউদ্দিন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। আহতদের বেশিরভাগই গুলিবিদ্ধ।

নিহতরা হলেন- বোরহানউদ্দিন উপজেলার মহিউদ্দিন পাটওয়ারীর মাদ্রাসাছাত্র মাহবুব (১৪), উপজেলার কাচিয়া ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ডের দেলোয়ার হোসেনের কলেজপড়ুয়া ছেলে শাহিন (২৩), বোরহানউদ্দিন পৌরসভার ৩নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা মাহফুজ (৪৫) এবং মনপুরা হাজিরহাট এলাকার বাসিন্দা মিজান (৪০)।

উদ্ভুত পরিস্থিতিতে জেলায় অনির্দিষ্টকালের জন্য সব ধরনের সভা-সমাবেশ নিষিদ্ধ ঘোষণা করেছে স্থানীয় প্রশাসন। সোমবার সকালে এই নির্দেশ জারি করা হয় বলে জানিয়েছেন ভোলার জেলা প্রশাসক (ডিসি) মোহাম্মদ মাসুদ আলম সিদ্দিক।#

পার্সটুডে/আশরাফুর রহমান/ ২১

বিশ্বসংবাদসহ গুরুত্বপূর্ণ সব লেখা পেতে আমাদের ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে অ্যাকটিভ থাকুন।

 

 

ট্যাগ

মন্তব্য