মে ২১, ২০২০ ১৯:০১ Asia/Dhaka

মহাশক্তিশালী সুপার সাইক্লোন আম্পানের আঘাত সুন্দরবনের কারণে অনেকাংশে দুর্বল হয়ে যায়। প্রায় ৪০০ কিলোমিটার ব্যাসের এই ঝড় বুধবার সন্ধ্যা ৭টায় প্রচণ্ড গতি নিয়ে আছড়ে পড়ে সুন্দরবনের উপর। সেখানে ঘণ্টাখানেক তাণ্ডব চালিয়ে গাছপালা ভেঙ্গে প্রায় দশ ফুট উঁচু জলোচ্ছ্বাসের দাপট দেখিয়ে রাত ৮টায় এটি সাতক্ষীরা ও খুলনা অঞ্চল অতিক্রম করে। তারপর শক্তি হারিয়ে স্থল নিম্নচাপে পরিণত হয় আম্পান। 

এ ভয়ঙ্কর দুর্যোগটি সকলের চোখে আঙুল দিয়ে দেখিয়ে দিল, সুন্দরবনের কারণে বাংলাদেশের জীবন বা সম্পদের ব্যাপক ক্ষয়-ক্ষতি অনেকাংশে কমে যায়। আর তাইতো সুন্দরবন রক্ষাকারী পরিবেশবাদীরা আবারো মনে করিয়ে দিলেন উপকূলীয় ম্যানগ্রোভ ফরেস্ট কেন বাংলাদেশের অস্তিত্বের জন্য এক গুরুত্বপূর্ণ। পরিবেশবাদীরা বলেছেন, আবহাওয়া পরিবর্তনজনিত কারণে ভবিষ্যতে আরো ভয়ংকর ঘূর্ণিঝড় আঘাত করবে বাংলাদেশকে। তখনও এ সুন্দরবন ঢাল হয়ে আমাদের রক্ষা করবে; যদি একে আমরা সংরক্ষণ করতে পারি। 

এ প্রসঙ্গে বাংলাদেশের সাবেক প্রধান বন সংরক্ষক ইসতিয়াক উদ্দিন আহমেদ দুঃখ করে বলেছেন, যতবার সুন্দরবন আমাদের এভাবে রক্ষা করেছে ততবারই আমরা এর অবদানের কথা স্মরণ করি কিন্তু পরে সেটা আবার ভুলে যাই।

পবা'র চেয়ারম্যান আবু নাসের খান

এ প্রসঙ্গে ‘বাংলাদেশ পরিবেশ বাঁচাও আন্দোলন’র (পবা) চেয়ারম্যান আবু নাসের খান রেডিও তেহরানকে বলেন, সুন্দরবন বিনাশকারী সব তৎপরতা অবশ্যই বন্ধ করতে হবে। তাছাড়া ভবিষ্যতের কথা মনে রেখে উপকূলীয় অঞ্চলে নতুন জেগে ওঠা চরে এবং গোটা উপকূল অঞ্চলজুড়ে বিস্তৃত এলাকায় আরো ছোট ছোট সুন্দরবন সৃষ্টি করতে হবে।

তিনি মনে করেন, উপকূলীয় এসব বনাঞ্চল প্রাকৃতিক ঝড় জলোচ্ছ্বাসজনিত ক্ষতি কমানো ছাড়াও বনজ সম্পদ, জলজ সম্পদ ও প্রাণী সম্পদসহ জীববৈচিত্র্যে ভরপুর একটি নির্মল বাতাসের বিশাল উৎস হবে। এটা বরং বাংলাদেশের অর্থনীতিকেই সহায়তা করবে।

এদিকে আজ (বৃহস্পতিবার) ঘূর্ণিঝড় পরবর্তী অনলাইন প্রেস ব্রিফিংয়ে পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রী মো. শাহাব উদ্দিন জানান, এবারও সুপার সাইক্লোন আম্পানে সুন্দরবন ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

তিনি জানান, ঘূর্ণিঝড়ে সুন্দরবনের ক্ষয়ক্ষতি নির্ধারণে ৪টি কমিটি গঠন করা হয়েছে। সহকারী বন সংরক্ষক পদাধিকারী রেঞ্জ অফিসারদের নেতৃত্বে এ কমিটিগুলো গঠন করা হয়েছে। আগামী তিন কার্যদিবসের মধ্যে কমিটিগুলোকে প্রতিবেদন জমা দিতে বলা হয়েছে। কমিটির প্রতিবেদন পাওয়ার পর পরবর্তী করণীয় নির্ধারণ করা হবে। তবে মন্ত্রী বলেন, নিজস্ব প্রাকৃতিক ক্ষমতা বলেই সুন্দরবন স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরে  আসবে।#

পার্সটুডে/আবদুর রহমান খান/আশরাফুর রহমান/২১

বিশ্বসংবাদসহ গুরুত্বপূর্ণ সব লেখা পেতে আমাদের ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে অ্যাকটিভ থাকুন।

 

 

 

ট্যাগ

মন্তব্য