মে ২২, ২০২০ ১৮:২৮ Asia/Dhaka

জুমাতুল বিদা উপলক্ষে আজ বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদসহ সারাদেশের মসজিদগুলোতে জুমার নামাজ শেষে আল্লাহতায়ালার কাছে ক্ষমা প্রার্থনা এবং রহমত কামনা করে বিশেষ মোনাজাত অনুষ্ঠিত হয়েছে।  

ধর্মপ্রাণ মুসলমানগণ নিজের জন্য দোয়া চাওয়ার পাশাপাশি দেশের অগ্রগতি, সমৃদ্ধি তথা মুসলিম উম্মাহর শান্তি ও সম্প্রীতি কামনা করেছেন। এ সময় বিশ্ব মহামারী  করোনাভাইরাসের থাবা থেকে দেশের মানুষ তথা সমগ্র মানুষ জাতিকে রক্ষা করতে আল্লাহর রহমত কামনা করা হয়।

তাছাড়া রমজানের শেষ এ জুমার দিনটিকে আল কুদস দিবস হিসেবে ঘোষিত হবার প্রেক্ষিতে বাংলাদেশের মুসলমানগনও ইহুদিবাদী ইসরাইলের দখলদারিত্ব থেকে পবিত্র মসজিদ আল-কুদসকে মুক্ত করার জন্য আল্লাহতায়ালার রহমত কামনা করেন।

 

এ প্রসঙ্গে জাতীয় তাফসীর পরিষদ বাংলাদেশের চেয়ারম্যান মাওলানা আহমদ আবদুল কাইয়ুম বলেন, মুসলমানদের পবিত্র মসজিদ বায়তুল মোকাদ্দাসকে ইসরাইলের কবল থেকে মুক্ত করার জন্য বিশেষ মোনাজাতের পাশাপাশি বিশ্বের মুসলিম রাষ্ট্রসমূকে এ লক্ষ্যে ঐক্যক্যবদ্ধ হবারও আহ্বান জানানো হয়েছে।  

এবার জুমাতুল বিদা উপলক্ষে বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদসহ সকল মসজিদেই স্বাস্থ্যবিধি ও শারীরিক দূরত্ব বজায় রেখে মুসল্লিদের নামাজ আদায়ের জন্য বিশেষ ব্যবস্থা করা হয়েছে। তবে আজ জুমাতুল বিদা উপলক্ষে সব মসজিদেই গত সপ্তাহের জুম’আর চেয়ে মুসল্লিদের ভীড় কিছুটা বেশি লক্ষ্য করা গেছে।

শুক্রবার জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররমে জুম’আর আজানের পরই মুসল্লিদের মসজিদে প্রবেশ করতে গেট খুলে দেওয়া হয়। গেটে হাত ধোয়া, স্যানিটাইজার ও জীবাণুনাশক কক্ষের ব্যবস্থা করা হয়।  

বেলা পৌনে ১ টার দিকে পেশ ইমাম মুফতি মহিউদ্দিন কাশেম বাংলায় বয়ান দেওয়া শুরু করেন। বয়ানে তিনি বলেন, "আজ বিশ্ব করোনাভাইরাসের আক্রান্ত। এ পরিস্থিতির কারণে আমারও স্তব্ধ। আমরা কঠিন সময় পার করছি। মরণব্যাধি করোনার কারণে বাবা সন্তানের কাছে বা সন্তান বাবাকে ছুতে পারছে না। এ সমস্ত অবস্থা দেখে আমরা কি বুঝতে পারি, আল্লাহর পথে আমাদের চলতে হবে। সবকিছুর মালিক তিনিই।আমরা বিভিন্ন অপরাধে লিপ্ত। এগুলো ছেড়ে দিয়ে আল্লাহর পথে আসতে হবে। এমন জীবন অর্জন করব, যে জীবন হবে গোনাহমুক্ত, অপরাধমুক্ত।"#

পার্সটুডে/আবদুর রহমান খান/আশরাফুর রহমান/২২

বিশ্বসংবাদসহ গুরুত্বপূর্ণ সব লেখা পেতে আমাদের ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে অ্যাকটিভ থাকুন।

 

 

ট্যাগ

মন্তব্য