এপ্রিল ১৭, ২০২১ ১৩:০৯ Asia/Dhaka
  • কারওয়ার বাজার মোড়ে সড়ক আটকে সৌদি প্রবাসীদের বিক্ষোভ
    কারওয়ার বাজার মোড়ে সড়ক আটকে সৌদি প্রবাসীদের বিক্ষোভ

গন্তব্যস্থলে অবতরণের অনুমতি না পাওয়ায় ও যাত্রী সংকটের কারণে আজ প্রথম দিনেই বাংলাদেশ বিমানের ৭টি বিশেষ ফ্লাইট বাতিল করা হয়েছে।

প্রবাসী কর্মীদের কর্মস্থলে পৌঁছার জন্য আজ (শনিবার) সকাল ছয়টা থেকে ১৪টি ফ্লাইট নির্ধারিত ছিল। এরমধ্যে ১০টি যাওয়া ফ্লাইটের মধ্যে ৫টি বাতিল করা হয়। আর আসার ৪টি ফ্লাইটের মধ্যে দুটি বাতিল করা হয়। আসা-যাওয়া মিলিয়ে মোট ৭টি ফ্লাইট বাতিল করা হয়। 

ল্যান্ডিং পারমিশন পেতে বিলম্ব ও যাত্রী স্বল্পতায় ফ্লাইটগুলো বাতিল করা হয়েছে বলে জানান শাহজালাল বিমানবন্দরের পরিচালক গ্রুপ ক্যাপ্টেন এ এইচ এম তৌহিদ-উল-আহসান। তিনি বলেন, আশা করি রোববারের মধ্যে এ সমস্যার সমাধান হবে। 

বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনসের উপ-মহাব্যবস্থাপক (ডিজিএম-পিআর) তাহেরা খন্দকার বলেছেন, “বিমানের একটি ফ্লাইট সৌদি আরবে ল্যান্ডিং পারমিশন না পাওয়ায় বাতিল করা হয়েছে। এছাড়াও যাত্রী সংকটের কারণে দুবাইয়ের দুটি এবং সৌদির দাম্মামের একটি ফ্লাইট বাতিল করা হয়েছে। এসব ফ্লাইটে যাত্রী সংখ্যা মাত্র ২০-২২ জন। আমরা বলেছিলাম ফ্লাইট চলাচল বন্ধের নির্দেশনার কারণে বাতিল হওয়া ফ্লাইটের যাত্রীরা টিকিট পরিবর্তন করে এসব ফ্লাইটে যেতে পারবেন। তবে আমরা যাত্রী পাইনি।”

শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, বিমান বাংলাদেশের ‘বিজি-৫০৯৩’ ফ্লাইটটি আজ (শনিবার) ভোর সোয়া ৬টার দিকে শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে রিয়াদের উদ্দেশে ছেড়ে যাওয়ার কথা ছিল। কিন্তু, সৌদি আরবের কাছ থেকে অবতরণের অনুমতি না পাওয়ায় ফ্লাইটটি বাতিল করতে হয়েছে।

ফ্লাইট ছাড়ার ছয় ঘণ্টা আগেই বিমানবন্দরে পৌঁছে যায় অন্তত ৩০০ যাত্রী। পরে আজ ভোররাত ২টার দিকে বিমান ও বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ ফ্লাইট বাতিলের কথা জানালে যাত্রীরা বিভিন্ন স্লোগান দিয়ে বিক্ষোভ করেন।

বেশ কয়েকজন অভিবাসী শ্রমিক গণমাধ্যমকে জানান, দেশব্যাপী লকডাউন চলায় বিমানবন্দর পর্যন্ত পৌঁছাতেই তাদেরকে অনেক ভোগান্তি পোহাতে হয়েছে। অথচ ফ্লাইট বাতিলের বিষয়টি তাদেরকে জানানো হয়েছে একেবারে শেষ মুহূর্তে। বিমান কর্তৃপক্ষ ফ্লাইট বাতিলের বিষয়টি আগে জানালে তাদেরকে এই ভোগান্তি পোহাতে হতো না।

মতিঝিলে টিকিট নিতে যাত্রীদের অপেক্ষা

এদিকে, টিকিটের জন্য আজ সকাল থেকেই কারওয়ান বাজারের সৌদি এয়ারলাইনসের কার্যালয় ও বিমানের মতিঝিল কার্যালয়ে ভিড় করছেন প্রবাসীরা। মতিঝিলে প্রবাসীদের চাপের কারণে একপর্যায়ে টিকিট বিক্রি সাময়িক স্থগিত রাখে বিমান।

মতিঝিলে অপেক্ষায় থাকা শরীয়তপুরের নাজির মোহাম্মদ নামে এক যাত্রী জানান, বিমানের ১৫ এপ্রিলের ফ্লাইট ছিল আমার। তবে ফ্লাইট বন্ধের কারণে যেতে পারিনি। আজ ফ্লাইট চলাচল শুরুর সংবাদ শুনে মতিঝিলে এলাম। এখানেও হঠাৎ টিকিট বিক্রি বন্ধ করে দিল।

বাংলাদেশি অভিবাসী শ্রমিকদের নিজ নিজ কর্মস্থলে পৌঁছানোর সুবিধার্থে আজ থেকে পরবর্তী এক সপ্তাহে সৌদি আরব, ওমান, কাতার, সংযুক্ত আরব আমিরাত ও সিঙ্গাপুরে প্রায় ১০০টি বিশেষ ফ্লাইট পরিচালনা করার সিদ্ধান্ত বাংলাদেশ বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষ (বেবিচক)। গত ১৫ এপ্রিল এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

পার্সটুডে/আশরাফুর রহমান/আবদুর রহমান খান/১৭

বিশ্বসংবাদসহ গুরুত্বপূর্ণ সব লেখা পেতে আমাদের ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে অ্যাকটিভ থাকুন।  

ট্যাগ