মে ০৩, ২০২১ ১৬:৩৫ Asia/Dhaka

পদ্মা নদীতে মাদারীপুরের শিবচর উপজেলায় একটি যাত্রীবাহী স্পিডবোট উল্টে গিয়ে ২৭ জনের মৃত্যু হয়েছে এবং পাঁচজনকে জীবিত উদ্ধার করা হয়েছে। আজ (সোমবার) সকাল ছ’টার দিকে শিবচরের পুরোনো কাঁঠালবাড়ি ঘাটে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় ট্রাফিক পুলিশের পরিদর্শক আশিকুর রহমান গণমাধ্যমকে বলেছেন, মুন্সিগঞ্জের শিমুলিয়া থেকে ৩০ জন যাত্রী নিয়ে একটি স্পিডবোট বাংলাবাজার ফেরিঘাটের দিকে যাচ্ছিল। স্পিডবোটটি বাংলাবাজার ফেরিঘাটের পুরোনো কাঁঠালবাড়ি ঘাটের কাছাকাছি আসার পর সেখানে নঙ্গর করে থাকা একটি বালুবোঝাই বাল্কহেডের সঙ্গে ধাক্কা লাগে। এতে স্পিডবোটটি উল্টে যায়। এ ঘটনায় ২৬ জনের লাশ এ পর্যন্ত উদ্ধার করা হয়েছে। দুপুরের দিকে আহত একজন চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন। এখনো চারজন চিকিৎসাধীন রয়েছেন। 

স্থানীয়রা জানান, ভোরের দিকে এলাকার মহিলারা নদীতে পানি নিতে এসে স্পিডবোটটি উল্টে থাকতে দেখে। পরে স্থানীয় লোকজন এসে প্রাথমিক উদ্ধার কাজে অংশ নেয়। খবর পেয়ে পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিস উদ্ধার কাজ চালায়।

পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিস সূত্রে জানা গেছে, সকাল থেকে উদ্ধার অভিযান চলমান রয়েছে। দুপুর নাগাদ ফায়ার সার্ভিসের বৃহত্তর ফরিদপুর অঞ্চলের সহকারী পরিচালক মো. নজরুল ইসলাম জানিয়েছেন, উদ্ধার কাজ তখনো চলছিল। নিহতদের পরিচয় শনাক্তের চেষ্টা চলছে। স্বজনেরা তখনো এসে পৌঁছায়নি।

ছয় সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন

পদ্মায় স্পিডবোট দুর্ঘটনায় ৬ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। স্থানীয় সরকার বিভাগীয় উপ-পরিচালক আজহারুল ইসলামকে প্রধান করে ৬ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। তিন কার্যদিবসের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দিবেন এ তদন্ত কমিটি।

জেলা প্রশাসক ড. রহিমা খাতুন জানান, ‘লাশ নেয়া ও দাফন খরচ বাবদ নিহত প্রত্যেকের পরিবারকে ২০ হাজার টাকা করে দেয়া হবে।‘#

পার্সটুডে/আবদুর রহমান খান/আশরাফুর রহমান/৩

বিশ্বসংবাদসহ গুরুত্বপূর্ণ সব লেখা পেতে আমাদের ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে অ্যাকটিভ থাকুন   

ট্যাগ