সেপ্টেম্বর ০৩, ২০২১ ১৬:২৭ Asia/Dhaka

বাংলাদেশে গত চার সপ্তাহ ধরে করোনাভাইরাসের সংক্রমণে নিম্নমুখী প্রবণতা অব্যাহত থাকছে। এই সময়ে নমুনা পরীক্ষার বিপরীতে রোগী শনাক্তের হার ও নতুন রোগী কমছে। ছয় দিন ধরে দৈনিক মৃত্যু এক শ'র নিচে রয়েছে।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের তথ্য অনুযায়ী, দেশে করোনা সংক্রমণের শুরু থেকেই ঢাকা বিভাগে শনাক্ত ও মৃত্যু। দেশে এখন পর্যন্ত করোনা সংক্রমিত শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ১৫ লাখ ৭ হাজার ১১৬, যার ৫৯ শতাংশই ঢাকা বিভাগে। অন্যদিকে এখন পর্যন্ত করোনায় মৃত্যু হয়েছে ২৬ হাজার ৩৬২ জনের। মোট মৃত্যুর প্রায় ৪৪ শতাংশ ঘটেছে ঢাকা বিভাগে।

সংক্রমণের দ্বিতীয় ঢেউয়ে রাজশাহী ও খুলনা বিভাগে করোনায় মৃত্যু বেড়ে যায়। জুলাই মাসে সারা দেশেই করোনা পরিস্থিতি ভয়ংকর আকার ধারণ করে। তবে আগস্ট মাসের শুরু থেকেই সংক্রমণের তীব্রতা কমে আসে। অন্যান্য বিভাগে মৃত্যু কমে এলেও এখনো দৈনিক মৃত্যুর বড় অংশই হচ্ছে ঢাকা বিভাগে।

সরকারি হিসাবে দেশে করোনা সংক্রমণের গড় হার এখন শতকরা ১০ ভাগে নেমে এসেছে। তবে কয়েকটি জেলার কোনো কোনো এলাকায় স্থানীয়ভাবে এ হার এখনো ২০ শতাংশের ওপরে। গণসংক্রমণ এখন গুচ্ছ সংক্রমণে পরিণত হয়েছে। এটা নিয়ন্ত্রণ করতে না পারলে আবারও লক-ডাউনে যেতে হবে- এমনটাই আশঙ্কা করছেন বিশেষজ্ঞারা

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক (ডিজি) আবুল বাসার মোহাম্মদ খুরশীদ আলম জানিয়েছেন, ঢাকার বাইরের কয়েকটি জেলার বড় হাসপাতালগুলোতে ভর্তি হওয়া করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগীদের ৯০ শতাংশের বেশি গ্রাম থেকে আসা। আজ (শুক্রবার সকালে পাবলিক হেলথ অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের বার্ষিক সম্মেলনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

প্রতিটি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে করোনা রোগীদের জন্য ১০টি করে শয্যা বরাদ্দ আছে বলে উল্লেখ করেন স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক। তিনি বলেন, প্রত্যেক করোনা রোগীর জন্য সেখানে অক্সিজেন সরবরাহের ব্যবস্থা আছে। কিন্তু অনেকেই এ তথ্য জানেন না। ফলে তাঁরা শহরের বড় হাসপাতালগুলোতে ভিড় করেন।

আজকের অনুষ্ঠানে বাংলাদেশের স্বাস্থ্য খাতের ৫০ বছরের অর্জনের বিষয়ে বক্তব্য উপস্থাপন করেন ওয়াটার এইডের দক্ষিণ এশিয়ার আঞ্চলিক পরিচালক খাইরুল আলম। আর করোনা মহামারি মোকাবিলার চ্যালেঞ্জের বিষয়ে বক্তব্য দেন পথিকৃৎ ইনস্টিটিউট অব হেলথ স্টাডিজের প্রধান বিজ্ঞানী লিয়াকত আলী।#

পার্সটুডে/আবদুর রহমান খান/আশরাফুর রহমান/৩

বিশ্বসংবাদসহ গুরুত্বপূর্ণ সব লেখা পেতে আমাদের ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে অ্যাকটিভ থাকুন। 

ট্যাগ