অক্টোবর ০৫, ২০২১ ১৮:৫৪ Asia/Dhaka
  • বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আব্দুল মোমেন
    বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আব্দুল মোমেন

বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আব্দুল মোমেন আজ সতর্ক করে বলেছেন, মিয়ানমার থেকে অবৈধ অস্ত্র ও মাদক-পাচার রোধে প্রয়োজনে গুলি করা হবে।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী আজ মঙ্গলবার নিজ জেলা সিলেটে ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভারতীয় উপহারের আইসিইউ এম্বুলেন্স হস্তান্তর অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের কাছে এ কথা বলেন।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী আব্দুল মোমেন জানান, ‘আমরা সিদ্ধান্ত নিয়েছিলাম বাংলাদেশ এবং মিয়ানমার সীমান্তে কখনো গুলি চালাব না। গতকাল আমার সঙ্গে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর আলাপ হয়েছে। আগামীতে আমরা গুলি চালাব। এ ধরনের অপকর্ম, মাদক চোরাচালান, মানব-পাচার- এগুলো বন্ধ করতে হবে।’

তিনি আরও বলেন, ‘ওখানকার সীমান্ত পরিস্থিতি নাজুক। তবে ইনশাল্লাহ আগামীতে এগুলো আসা সম্ভব হবে না। তবে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী এ বিষয়ে আরও ভালো বলতে পারবেন। আমার এত তথ্য জানা নেই।’

এ সময় পররাষ্ট্রমন্ত্রী আরও বলেন- রোহিঙ্গাদের নিয়ে কিছু এনজিও ও কুচক্রী মহল ব্যবসা করছে। তারা রোহিঙ্গাদের মিয়ানমার যেতে বাঁধা দিচ্ছে। কারণ- রোহিঙ্গা রাখাইনে চলে গেলে ওই সব কুচক্রী মহলের ব্যবসা বন্ধ হয়ে যাবে।

মন্ত্রী বলেন, রোহিঙ্গা নেতা মুহিবুল্লাহ চাইছিলেন সবাইকে রাখাইনে নিয়ে যেতে। কিন্তু তাকেও ওই ষড়যন্ত্রকারীরা হত্যা করে ফেলেছে। অ্যাম্বু্ল্যান্স হস্তান্তর অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন বাংলাদেশে নিযুক্ত ভারতীয় হাইকমিশনার বিক্রম কুমার দোরাইস্বামীসহ স্বাস্থ্য বিভাগের কর্মকর্তারা।

অনুষ্ঠানে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘দেশে এখন আর টিকার কোনো সংকট নেই। আমরা টিকার লাইনআপ করে ফেলেছি। ভারত থেকেও আমাদের চুক্তির টিকা আসবে।’#

পার্সটুডে/এআরকে/৫

বিশ্বসংবাদসহ গুরুত্বপূর্ণ সব লেখা পেতে আমাদের ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে অ্যাকটিভ থাকুন।

 

ট্যাগ