অক্টোবর ১৪, ২০২১ ১৭:২৯ Asia/Dhaka

বাংলাদেশের হিন্দু সম্প্রদায়ের প্রধান ধর্মীয় উৎসব দুর্গা পূজাকে কেন্দ্র করে বিভিন্ন জেলায় কয়েকটি স্থানে পূজা মণ্ডপে হামলার ঘটনাকে 'সাম্প্রদায়িক অপশক্তির কাজ' বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সরকারের সড়ক-সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। আজ বৃহস্পতিবার রাজধানীতে  রামকৃষ্ণ মিশন পূজামণ্ডপ পরিদর্শন শেষে এমন মন্তব্য করেন ক্ষমতাসীন দলের এ নেতা।

ক্ষমতাসীনরাই সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি নষ্ট করার চেষ্টা করছে : মির্জা ফখরুল

এদিকে, বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, ক্ষমতাসীনরা নিজেরাই সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি নষ্ট করে দেশকে অস্থিতিশীল করার চেষ্টা করছে। বৃহস্পতিবার (১৪ অক্টোবর) রাজধানীতে এক আলোচনা অনুষ্ঠানে মির্জা ফখরুল বলেন, দেশের রাজনৈতিক সমস্যা থকে জনগণের দৃষ্টি ভিন্ন দিকে নিতেই সরকার এমন অপতৎপরতা চালাচ্ছে।

ঘটনার সুত্রাপাত

উল্লেখ্য, বুধবার (১৩ অক্টোবর) ভোরে কুমিল্লা নগরীর নানুয়ার দীঘির পাড়ে একটি পূজামণ্ডপে প্রতিমার কোলে মুসলমানদের ধর্মীয় গ্রন্থ কোরআন শরিফ পাওয়ার অভিযোগ উঠে। এ ঘটনায় সারা শহরে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়লে পুলিশের সঙ্গে বিক্ষুব্ধদের সংঘর্ষ হয়। এ  ঘটনাকে কেন্দ্র করে সহিংসতার জের ধরে চাঁদপুরের হাজীগঞ্জে বেশ কয়েকটি মন্দিরে হামলা ও পুলিশের সাথে হামলাকারীদের সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।  এ সময় পুলিশের সাথে সংঘর্ষে চাঁদপুরে চারজন ব্যক্তি নিহত হয়েছেন।

এছাড়া নোয়াখালীর হাতিয়া, চট্টগ্রামের বাঁশখালী এবং কক্সবাজারের পেকুয়াসহ বেশ কয়েকটি স্থানে পূজামণ্ডপে হামলা ও ভাঙচুরের ঘটনা ঘটেছে বলে জানা গেছে

কুমিল্লায় কোরআন অবমাননার ঘটনা প্রসঙ্গে ওবায়দুল কাদের বলেছেন, আগামী জাতীয় নির্বাচনকে সামনে রেখে দেশে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি নষ্ট করতে চায় একটি মহল। সাম্প্রদায়িক অপশক্তি পূজামণ্ডপে কোরআন শরীফ রেখে আজকে এত বড় উৎসবকে কালিমালিপ্ত করতে চেয়েছিল। উৎসবমুখর পরিবেশকে নষ্ট করতে চেয়েছিল। মন্ত্রী বলেন, আমরা সতর্ক রয়েছি। আমরা এখন সর্বোচ্চ সতর্ক থাকব যাতে এই অপশক্তি মাথাচাড়া দিয়ে উঠতে না পারে। সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি নষ্ট করতে চায় এমন ব্যক্তি বা গোষ্ঠীর দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির ব্যবস্থা করতে সরকার বদ্ধপরিকর।

একই সঙ্গে সামাজিকমাধ্যমে গুজব ছড়ানো নিয়েও সতর্ক করে তিনি বলেন, আপনারা গুজবে কান দেবেন না। গুজব সৃষ্টি করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অপপ্রচার চালানো হচ্ছে। এর বিরুদ্ধেও সবাইকে সতর্ক থাকতে হবে।

ষড়যন্ত্রকারী কুমিল্লার ঘটনা ঘটিয়েছেঃ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

ওদিকে, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল আজ জানিয়েছেন, উদ্দেশ্যমূলকভাবে কোনো ষড়যন্ত্রকারী কুমিল্লায় এ ঘটনা ঘটিয়েছে। এটিকে কেন্দ্র করে চাঁদপুর, চট্টগ্রাম, সিলেটসহ বিভিন্ন স্থানে মন্দির ও হিন্দু বাড়িঘরে ভাঙচুরের ঘটনা ঘটেছে।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, কুমিল্লার ঘটনার জেরে চাঁদপুরে চারজনের মৃত্যু হয়েছে, যা দুঃখজনক। এ ঘটনায় যারা জড়িত তাদের দ্রুত গ্রেপ্তার করতে সক্ষম হবে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। প্রকৃত ঘটনা তদন্তের পরে নিশ্চিত করে বলা সম্ভব হবে। মন্ত্রী  জানান,  সারা দেশে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী তৎপর রয়েছে। অপরাধীরা রেহাই পাবে না। ফেসবুকে মিথ্যা প্রচারণার মাধ্যমে বিশৃঙ্খলা করা হলে তাদের বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা নেওয়া হবে।  

কুমিল্লার ঘটনায় আটক ৪৩

কুমিল্লার নানুয়া দীঘির পাড়ে দুর্গাপূজা মণ্ডপে কথিত কোরআন শরীফ অবমাননার ঘটনায় ৪৩ জনকে আটক করেছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার (১৪ অক্টোবর) দুপুরে ঘটনাস্থল পরিদর্শনে এসে চট্টগ্রাম রেঞ্জ পুলিশের ডিআইজি আনোয়ার হোসেন এ তথ্য জানান। তিনি বলেন, কুমিল্লার ঘটনাটি অবশ্যই উস্কানিমূলক। এ ঘটনায় কুমিল্লাতে মোট ৪৩ জনকে আটক করা হয়েছে। এখনো এ ব্যাপারে মামলা হয়নি।

দুর্গামণ্ডপ পরিদর্শনে  আওয়ামী লীগের পর্যবেক্ষক দল

এদিকে, বৃহস্পতিবার (১৪ ওক্টোবর) সকালে নানুয়ার দীঘির পাড়ের দুর্গামণ্ডপ পরিদর্শন করেছেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের পর্যবেক্ষক দল।

বাংলাদেশ জাতীয় সংসদের হুইপ আবু সাঈদ আল মাহমুদের নেতৃত্বে পর্যবেক্ষক দলে ছিলেন, আওয়ামী লীগের তথ্য ও গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক সেলিম মাহমুদ এমপি, খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয় বিষয়ক সংসদীয় কমিটির সভাপতি ওয়াসিকা খানমসহ কুমিল্লা জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ।

এ সময় হুইপ আবু সাঈদ বলেন, বাংলাদেশের সব ধর্মের লোকজনই স্বাধীনভাবে তাদের ধর্মীয় উৎসব পালন করে আসছে। হঠাৎ একটি দেশদ্রোহী চক্র দেশবিরোধী কার্যক্রম বাস্তবায়ন করতে এখানে ষড়যন্ত্রমূলকভাবে অস্থিতিশীল পরিস্থিতি তৈরি করছে। পরে পর্যবেক্ষক দলটি কুমিল্লা নগরীর বিভিন্ন পূজামণ্ডপ পরিদর্শন করেন।

২২ জেলায় বিজিবি মোতায়েন

ওদিকে, হিন্দু সম্প্রদায়ের প্রধান ধর্মীয় উৎসব  দুর্গাপূজা উপলক্ষে নিরাপত্তা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে দেশের বিভিন্ন জেলায় বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) মোতায়েন করা হয়েছে।

আজ গণমাধ্যমে পাঠানো এক বার্তায় বিজিবির পরিচালক (অপারেশন) লেফটেন্যান্ট কর্নেল ফয়জুর রহমান জানিয়েছেন, জেলা প্রশাসনের চাহিদার পরিপ্রেক্ষিতে এবং স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের নির্দেশে কুমিল্লা, নরসিংদী, মুন্সিগঞ্জসহ ২২টি জেলায় বিজিবি মোতায়েন করা হয়েছে।#

 

পার্সটুডে/আবদুর রহমান খান/বাবুল আখতানর/১৪

বিশ্বসংবাদসহ গুরুত্বপূর্ণ সব লেখা পেতে আমাদের ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে অ্যাকটিভ থাকুন। 

 

 

ট্যাগ