অক্টোবর ২০, ২০২১ ১৬:০৩ Asia/Dhaka
  • ঢাকায় জশনে জুলুস
    ঢাকায় জশনে জুলুস

বাংলাদেশের রাজধানী ঢাকাসহা সারাদেশে যথাযোগ্য ধর্মীয় মর্যাদা ও ভাবগাম্ভীর্যের পরিবেশে পালিত হচ্ছে পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী (সা.)। এ উপলক্ষে আজ (বুধবার) সকাল ৯টার দিকে রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশনের সামনের সড়কে জশনে জুলুস করে আঞ্জুমানে রহমানিয়ার মইনীয়া মাইজভাণ্ডারীয়া।

শোভাযাত্রায় অংশগ্রহণকারীদের হাতে হাতে জাতীয় পতাকা, আঞ্জুমানের পতাকা এবং বিভিন্ন ধরনের বাণী ও স্লোগান লিখিত ব্যানার ও ফেস্টুন ছিল। এরপর মাইজভান্ডারী অনুসারীরা সোহরাওয়ার্দী উদ্যান ও রমনা পার্কে ধর্মীয় আলোচনায় ও আচারে যুক্ত হন।

এর আগে, এদিন ভোর থকেই সারা দেশ থেকে ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশনের সামনে এসে অপেক্ষা করেন মাইজভাণ্ডারী পন্থী মুসলমানরা। পরে মাইজভাণ্ডার দরবার শরিফের সৈয়দ সাইফুদ্দীন আহমদ আল-হাসানীর নেতৃত্বে তারা জশনে জুলুসে অংশ নেন।

এরপর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশনের আন্তর্জাতিক শান্তি মহাসমাবেশ শুরু করে আঞ্জুমানে রহমানিয়ার মইনীয়া মাইজভাণ্ডারীয়া। মাইজভান্ডারি দরবার শরিফের প্রধান মাওলানা সৈয়দ সাইফুদ্দীন আহমদ আল্-হাসানী ওয়াল হোসাইনীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠান এই অনুষ্ঠান হয়।

চট্টগ্রামে জশনে জুলুস

সকাল সাড়ে ১০টার দিকে চট্টগ্রামের মুরাদপুরে জশনে জুলুস করেছে আনজুমান-এ-রহমানিয়া আহমদিয়া সুন্নিয়া ট্রাস্ট। পরে জশনে জুলুসটি নগরীর প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে জামিয়া আহমদিয়া সুন্নিয়া কামিল মাদ্রাসার সামনে গিয়ে শেষ হয়। দেশের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে লাখ লাখ ধর্মপ্রাণ মানুষ এই শোভাযাত্রায় অংশ নেয়। এ বছর শোভাযাত্রার নেতৃত্ব দেন পাকিস্তানের সিরিকোট দরবার শরীফের পীর সাহেব আওলাদে রাসুল খ্যাত আল্লামা সৈয়দ মো. সাবের শাহ।

ধর্মীয় শোভাযাত্রাটি চলাকালে পুরো নগরী মুখরিত থাকে হামদ নাতে রাসুলের সুর ও সংগীতে। এভাবে দিনটি উদযাপন করতে পারায় অনুভুতির কথা জানান মিছিলে অংশগ্রহণকারীরা।

পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী (স.) উদযাপন উপলক্ষে প্রতিবারের মতো এবারও মৌলভীবাজার জেলার শ্রীমঙ্গল শহরতলীতে বর্ণাঢ্য জশনে জুলুস বের করে শ্রীমঙ্গল উপজেলা মিলাদুন্নবী (দ:) উদযাপন কমিটি। বুধবার সকাল সাড়ে আট টায় মৌলভীবাজার শ্রীমঙ্গল কলেজ রোডস্থ গাউছিয়া শফিকীয়া সুন্নিয়া দাখিল মাদ্রাসা প্রাঙ্গণ থেকে জশনে জুলুস শুরু হয়।

 ঈদে মিলাদুন্নবী উদযাপন উপলক্ষে খাগড়াছড়িতে আহলে সুন্নাত ওয়াল জামা’য়াত এর উদ্যোগে এক বর্ণাঢ্য জশনে জুলুস অনুষ্ঠিত হয়। বুধবার সকালে খাগড়াছড়ি কেন্দ্রীয় ঈদগাহ ময়দান থেকে জশনে জুলুছ শুরু হয়ে শহরের প্রধান প্রধান সড়ক ঘুরে ঈদগাহে এসে মিলিত হয়।

পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী (সা.) উপলক্ষে ইসলামিক ফাউন্ডেশন পক্ষকালব্যাপী বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করবে। এ ছাড়াও দেশের সব বিভাগ, জেলা, উপজেলাসহ সরকারি-বেসরকারি সংস্থাগুলোর উদ্যোগে মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সা.)-এর জীবনীর ওপর পক্ষকালব্যাপী আলোচনা সভা ও মাহফিলসহ বিশেষ কর্মসূচি মঙ্গলবার সন্ধ্যা রাত থেকেই শুরু হয়েছে। এ উপলক্ষে বাংলাদেশ টেলিভিশন ও বাংলাদেশ বেতার দিবসটির গুরুত্ব তুলে ধরে বিশেষ অনুষ্ঠান সম্প্রচার করছে। 

আজ সরকারি ছুটির দিন। পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী (সা.) উপলক্ষ্যে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পৃথক বাণী দিয়েছেন।

পার্সটুডে/আশরাফুর রহমান/২০

বিশ্বসংবাদসহ গুরুত্বপূর্ণ সব লেখা পেতে আমাদের ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে অ্যাকটিভ থাকুন। 

ট্যাগ