অক্টোবর ২২, ২০২১ ১৮:২৪ Asia/Dhaka
  • ঢাকায় ‘গণমাধ্যম হিসেবে রেডিও তেহরানের ভূমিকা’ শীর্ষক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত

ইরানের জাতীয় সম্প্রচার সংস্থা আইআরআইবি ওয়ার্ল্ড সার্ভিস বাংলা বিভাগের প্রচারের অংশ হিসেবে ‘গণমাধ্যম হিসেবে রেডিও তেহরানের ভূমিকা’ শীর্ষক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

১৯ অক্টোবর (মঙ্গলবার) বিকালে রাজধানীর উত্তরায় আলোচনা সভাটির আয়োজন করে আন্তর্জাতিক বেতার শ্রোতা সংগঠন সাউথ এশিয়া রেডিও ক্লাব (সার্ক) বাংলাদেশ। ক্লাবের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান ও রেডিও অ্যাক্টিভিস্ট দিদারুল ইকবালের পরিচালনায় এবং বাংলাদেশ বেতারের সাবেক পরিচালক ও সার্ক-এর প্রধান উপদেষ্টা ড. মির শাহ আলমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে মূখ্য আলোচক হিসেবে বক্তব্য রাখেন রেডিও তেহরানের সিনিয়র সাংবাদিক ও কথা-বার্তা অনুষ্ঠানের বিশ্লেষক সিরাজুল ইসলাম।

বক্তব্য রাখছেন সিরাজুল ইসলাম

আলোচনা সভায় সিরাজুল ইসলাম বলেন, ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরানের জাতীয় সম্প্রচার সংস্থা (আইআরআইবি) বর্তমান বিশ্বের বৃহৎ, শক্তিশালী ও জনপ্রিয় গণমাধ্যমগুলোর মধ্যে অন্যতম। এশিয়া-প্যাসিফিক অঞ্চলে এটি সবচেয়ে বড় গণমাধ্যম। বর্তমানে আইআরআইবি’র অধীনে ২০টি জাতীয়, ৩০টি প্রাদেশিক, ৫টি স্যাটেলাইট টিভি চ্যানেল রয়েছে। এছাড়া ১৪টি রেডিও স্টেশনের মাধ্যমে সারাদেশে অনুষ্ঠান প্রচার করা হচ্ছে এবং বিশ্ব কর্যক্রমের অধীনে অন্তত ৩০টি ভাষায় সংবাদ ও অনুষ্ঠান প্রচার করা হচ্ছে। রেডিও এবং টেলিভিশনের পাশাপাশি আইআরআইবি অনলাইনেও (ওয়েবসাইট, ফেসবুক, টুইটার, ইউটিউব) সমানভাবে তথ্য আপডেট করে যাচ্ছে।”

তিনি জানান, “আইআরআইবি তার বিশ্ব কার্যক্রমের প্রায় ৮০ বছরের অভিজ্ঞতার আলোকে ২০১৬ সাল থেকে রেডিও তেহরানের অনলাইন সংস্করণ ‘পার্সটুডে ডটকম’ নামে মূলধারার গণমাধ্যম হিসেবে ওয়েবসাইট সেবা চালু করে। পার্সটুডে প্রতি মুহূর্তে বাংলার পাশাপাশি হিন্দি, উর্দু, পশতু, আলবেনিয়, আর্মেনিয়, আরবি, চীনা, ইংরেজী, ফরাসি, জার্মান, হৌসা, হিব্রু, ইন্দোনেশিয়, ইতালিয়, জাপানি, কাজাকি, সাওয়াহেলি, পর্তুগালি, রুশ, স্প্যানিশ ও তুর্কিসহ বিশ্বের অন্তত ৩০টি ভাষায় বিশ্বের চলমান ঘটনাপ্রবাহের খবর অনলাইনে তুলে ধরছে। এছাড়া মধ্যপ্রাচ্যের চলমান ঘটনাপ্রবাহে ইরানের প্রভাবশালী ভূমিকা থাকার কারণে মূলধারার গণমাধ্যম হিসেবে পার্সটুডে’র গুরুত্ব অনেক গুণ বেড়েছে। মধ্যপ্রাচ্যসহ বিশ্বে প্রতিনিয়ত কখন, কোথায় কী ঘটছে তার খবর ও সংবাদ বিশ্লেষণের মাধ্যমে বিশ্বের নানা প্রান্তে শ্রোতাদের কাছে বস্তুনিষ্ঠ চিত্র তুলে ধরছে রেডিও তেহরান।”

সিরাজুল ইসলাম বলেন, “ভারত উপমহাদেশ, ইরান ও মধ্যপ্রাচ্যসহ বিশ্বের বিভিন্ন অঞ্চলের বিপ্লবী ও মজলুম জাতিগুলোর বিরুদ্ধে পশ্চিমা শক্তিগুলো যেভাবে নানা ষড়যন্ত্র ও নিপীড়ন চালাচ্ছে সেই খবরগুলো স্বচ্ছতার সাথে তুলে ধরতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছে রেডিও তেহরান। রেডিও তেহরান রাজনৈতিক খবর ও সংবাদ বিশ্লেষণের পাশাপাশি মুসলিম সভ্যতা, ধর্মীয় ও সংস্কৃতির উন্নয়নেও বিশেষ ভূমিকা রেখেছে, রেখে যাচ্ছে এবং আগামীতেও রাখবে। বাংলাদেশের বিভিন্ন টিভি চ্যানেলে ইরানী নাটক, চলচ্চিত্র প্রদর্শন ও সেগুলো বাংলায় ডাবিং এর ক্ষেত্রে রেডিও তেহরান বাংলা বিভাগ বিশেষ ভূমিকা রেখেছে। রেডিও তেহরানের ওয়েবসাইটে প্রতিনিয়ত যে সংবাদ আপলোড হচ্ছে বাংলাদেশের অনেক স্বনামধন্য গণমাধ্যমও সেখান থেকে তথ্য নিয়ে তাদের সংবাদ মাধ্যমে প্রকাশ করছে। এখানেই গণমাধ্যম হিসেবে রেডিও তেহরানের নির্ভরযোগ্যতার প্রমাণ মেলে।"

বক্তব্য রাখছেন সৈয়দ রেজাউল করিম বেলাল

তিনি আরও বলেন, "বিশ্বের নামীদামি গণমাধ্যমগুলো বেশির ভাগ ক্ষেত্রে পশ্চিমা শক্তির পক্ষের সংবাদ মাধ্যম হিসেবে কাজ করে এবং ইরানকে নেতিবাচকভাবে বিশ্বের কাছে উপস্থাপন করে। ফলে বিশ্বের মানুষ সঠিক তথ্য জানা থেকে বঞ্চিত হয় এবং ইরান সম্পর্কে নেতিবাচক মনোভাব পোষণ করে। শুধু তাই নয় নীতি-নৈতিকতা ও মূল্যবোধ বিসর্জন দিয়ে ঐসকল সুপ্রতিষ্ঠিত গণমাধ্যমগুলো ইসলামকে নিয়েও অন্যায়ভাবে নেতিবাচক তথ্য প্রচার করে থাকে যা মানবতা বিরোধী। সেখানে রেডিও তেহরান একমাত্র ইসলামী প্রচার মাধ্যম হিসেবে ইসলাম ও মুসলমানদের স্বার্থ ও ন্যায্য অধিকার রক্ষায় সাহসিকতার সাথে বলিষ্ঠভাবে ভূমিকা রাখছে, ইসলাম ও মুসলমানদের পক্ষে পশ্চিমামুখী শক্তিধর গণমাধ্যমের সাথে এককভাবে লড়াই করে যাচ্ছে।”     

বক্তব্য রাখছেন ড. মির শাহ আলম

ড. মির শাহ আলম তার স্বাগত বক্তব্যে, ১৯৭৯ সালে ইরানে ইসলামি বিপ্লবের পর তারা ছাত্র জীবনে কিভাবে ইসলামী আন্দোলনের সাথে সম্পৃক্ত ছিলেন, কিভাবে ইরানের সর্বোচ্চ ধর্মীয় নেতা ইমাম খামেয়েনীর ছবি এবং নিউজলেটার বিতরণ করেছিলেন সেই স্মৃতিচারণ করেন। শুধু তাই নয় বাংলাদেশের সর্বত্র ইরানের প্রচার-প্রচারনা বাড়ানো ও ইরানি সাংস্কৃতিক কেন্দ্র চালুর বিষয়ে তিনি কী ভূমিকা রেখেছিলেন সে বিষয়েও স্মৃতিচারণ করেন এবং ঐসময়ে যারা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছিলেন তাদেরকে স্মরণ করেন।

ইরানকে বৈশ্বিক দৃষ্টিকোণ থেকে কিভাবে দেখা হয় এবং ইরান ভ্রমণ বিষয়ক প্রাসঙ্গিক স্মৃতিচারণ করেন, গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের সাবেক যুগ্ম সচিব মো: ওসমান গণি; বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, সিনিয়র সাংবাদিক ও কলামিস্ট সৈয়দ রেজাউল করিম বেলাল।

 বক্তব্য রাখছেন সাবেক যুগ্ম সচিব মো: ওসমান গণি

এসময় উপস্থিত ছিলেন, সাউথ এশিয়া রেডিও ক্লাব (সার্ক) বাংলাদেশ-এর ভাইস চেয়ারম্যান তাছলিমা আক্তার লিমা, সদস্য শাওন খান ও লাবীব ইকবাল, চট্টগ্রাম শাখার যুগ্ম সম্পাদক মাহমুদ হায়দার জীবন, পঞ্চগড় মিঠাপুকুর ডিএক্স ক্লাবের সভাপতি মো: দেলোয়ার হোসেন শামীম, রংপুরের আলোকিত মানুষ চাই আন্তর্জাতিক বেতার শ্রোতা ক্লাবের সভাপতি এ টি এম আতাউর রহমান রঞ্জু, টাঙ্গাইলের দিঘী বেতার শ্রোতা সংঘের সভাপতি মোবারক হোসেন ফনি, শেরপুর বেতার শ্রোতা ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক ইয়াকুব আলী সরকার ও সদস্য সিফাত আহমেদ, গাইবান্ধা নিরাপদ সড়ক চাই বেতার শ্রোতা ক্লাবের সভাপতি আমিনুল ইসলাম রানা, কিশোরগঞ্জ কেন্দ্রীয় বেতার শ্রোতা সংঘের সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক মো: সাগর মিয়া, শরীয়তপুর বেতার শ্রোতা ক্লাবের সভাপতি মোহাম্মদ সাইদুর রহমান সাফিন, শেরপুর সীমানার স্মৃতি বেতার শ্রোতা সংঘের মহিলা বিষয়ক সম্পাদক রিপা সরকার, ঢাকার মিতু ফারিয়া, মোছলিমা আক্তার, মাহিদা আক্তার মিম, রাশেদ আহমেদ, সোহাগ বাবু, মো: আশরাফুল ইসলাম, রাজশাহীর মো: মনিরুল ইসলাম, কুমিল্লার মো: আনোয়ার হোসেন প্রমুখ।#         

 

বার্তা প্রেরক,

তাছলিমা আক্তার লিমা

ভাইস-চেয়ারম্যান, সাউথ এশিয়া রেডিও ক্লাব (সার্ক) বাংলাদেশ।

 

পার্সটুডে/আশরাফুর রহমান/২২

বিশ্বসংবাদসহ গুরুত্বপূর্ণ সব লেখা পেতে আমাদের ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে অ্যাকটিভ থাকুন। 

ট্যাগ