নভেম্বর ২৫, ২০২১ ১৯:৪০ Asia/Dhaka
  • মাওলানা আরশাদ মাদানী
    মাওলানা আরশাদ মাদানী

ভারতের জমিয়তে উলামায়ে হিন্দের জাতীয় সভাপতি মাওলানা আরশাদ মাদানী দেশে ক্রমবর্ধমান সাম্প্রদায়িকতা নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করে বলেছেন, সাম্প্রদায়িকতার বিরুদ্ধে লড়াইয়ে সব মহলকে শামিল করা জরুরি এবং বিদ্বেষের পরিবেশের অবসান ঘটাতে ঐক্যবদ্ধভাবে মাঠে নামতে হবে।

গতকাল (বুধবার) জারি করা এক বিবৃতিতে মাওলানা আরশাদ মাদানী ওই মন্তব্য করেন। 

তিনি বলেন, দেশে ক্রমবর্ধমান বিপজ্জনক সাম্প্রদায়িকতা নিয়ে যেসব বিষয় সামনে এসেছে এবং সারা দেশে সেসব বিষয়কে যেভাবে উপস্থাপন করা হচ্ছে, তা নিয়ে সরকারের চিন্তাভাবনা ও আচরণ বিদ্বেষ ও পক্ষপাতমূলক।  

অল ইন্ডিয়া মুসলিম পার্সোনাল ল’ বোর্ডের নবনিযুক্ত ভাইস-চেয়ারম্যান  মাওলানা আরশাদ মাদানী বলেন, আমাদের কাছে বিদ্বেষ বন্ধ করার কোনো ক্ষমতা নেই, বরং যারা এটা করছে তাদের ক্ষমতার জোর আছে। যা বর্তমান বিশ্বের সবচেয়ে বড় শক্তি হিসেবে বিবেচিত হয়। কিন্তু আজও এমন হতাশ পরিস্থিতিতেও আশা ও বিশ্বাসের আলো জ্বলছে। দেশের একটি বড় অংশ আছে যারা দেশের বর্তমান পরিস্থিতিকে ভুল বলে মনে করেন।  তারা গত কয়েক বছর ধরে একটি নির্দিষ্ট অংশের বিরুদ্ধে কী ঘটছে তা ভালো চোখে দেখেন না।  তারা এটাও বোঝেন যে এই জাতীয় জিনিসগুলো দেশের জন্য খুব বিপজ্জনক।  

মাওলানা মাদানী বলেন, আমরা একা সাম্প্রদায়িকতার বিরুদ্ধে লড়াইয়ে সফলতা অর্জন করতে পারব না। সমাজের সব সমমনা মানুষকে সঙ্গে নিতে হবে। এই বিদ্বেষ ও সাম্প্রদায়িকতার আগুন নেভাতে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে। আমরা যদি এটা করি তাহলে সাম্প্রদায়িক শক্তিকে পরাজিত না করতে পারার কোনো কারণ নেই।   

মাওলানা আরশাদ মাদানী আরও বলেন, দক্ষিণের তুলনায় উত্তর ভারতে সাম্প্রদায়িকতা ও বিদ্বেষের এই খেলা চরমে। এর মূল কারণ রাজনৈতিক স্বার্থ। উস্কানিমূলক বক্তৃতা ও হাস্যকর বক্তব্যের মাধ্যমে সমাজের স্তরে সাম্প্রদায়িক আন্দোলনের ষড়যন্ত্র করা হচ্ছে, যাতে সংখ্যাগরিষ্ঠকে সংখ্যালঘু থেকে সম্পূর্ণভাবে বিচ্ছিন্ন করে তাদের ঘৃণ্য পরিকল্পনায় সফলতা লাভ করতে পারে।

তিনি বলেন, হাতে গোনা কিছু লোকই আছে যারা ঘৃণা ও সাম্প্রদায়িকতার শিখাকে উসকে দেয়, কিন্তু তারা শক্তিশালী কারণ তাদের ক্ষমতায় থাকা লোকেদের সুরক্ষা রয়েছে।#

পার্সটুডে/এমএএইচ/ আবুসাঈদ/২৫

বিশ্বসংবাদসহ গুরুত্বপূর্ণ সব লেখা পেতে আমাদের ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে অ্যাকটিভ থাকুন।

ট্যাগ