আগস্ট ১৩, ২০২২ ২২:১৪ Asia/Dhaka
  • ইডি-সিবিআই সামাজিক সম্মান নিয়ে টানাটানি করছে: ফিরহাদ হাকিম

ভারতের পশ্চিমবঙ্গের রাজধানী কোলকাতার মেয়র ও রাজ্যের মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম কেন্দ্রীয় তদন্ত সংস্থা এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট (ইডি) ও সিবিআই সামাজিক সম্মান নিয়ে টানাটানি করছে বলে অভিযোগ করেছেন। একইসঙ্গে তিনি এ ব্যাপারে বিরোধীদেরও তীব্র সমালোচনা করেছেন। তিনি আজ (শনিবার) এক সংবাদ সম্মেলনে এ সংক্রান্ত মন্তব্য করেন।

সম্প্রতি ‘এসএসসি’দুর্নীতি মামলায় রাজ্যের সাবেক মন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়কে ইডি গ্রেফতার করেছে। এর কিছুদিন পর গরু পাচার মামলায় সিবিআইয়ের হাতে গ্রেফতার হয়েছেন বীরভূমের তৃণমূল নেতা অনুব্রত মণ্ডল। এ ভাবে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থাগুলোর বিরুদ্ধে ‘অতিসক্রিয়তা’র অভিযোগ নিয়ে সোচ্চার হয়েছে রাজ্যের  শাসকদল তৃণমূল কংগ্রেস।

আজ (শনিবার) ফিরহাদ হাকিম বলেন, ‘যেভাবে সামাজিক সম্মান হরণ করা হচ্ছে, তাতে ক্ষতি হচ্ছে আমাদের। অনেকের এ ধরনের অসভ্যতামি দেখে ধৈর্যের বাঁধ ভেঙে যাচ্ছে। আমার মতো অনেকেরই অসীম ধৈর্য নেই। যাদের ধৈর্যের বাঁধ ভেঙে যাচ্ছে, তাদের কাছে আমি আবেদন করব, এই ধরনের কথা থেকে বিরত থাকতে। সবার উপরে মানুষ সত্য, মানুষের উপরে কেউ নেই। মানুষ ঠিক করবে কে দোষ করেছে বা কে দোষী নয়।’

তৃণমূল নেতারা গ্রেফতার হওয়ার পর বিরোধীরা যেভাবে প্রতিক্রিয়া দেখাচ্ছেন তাতে ক্ষুব্ধ হয়ে মেয়র ফিরহাদ হাকিম বলেন, ‘দেখুন গত কয়েক দিন ধরে আমার বিরোধী বন্ধুরা অসভ্যতা করেছেন। আইন আইনের পথে চলবে। তদন্ত তদন্তের মতো চলবে। কেউ যদি দোষী হয়, তা হলে সে শাস্তি পাবে। কিন্তু আমাদের একটা সামাজিক সম্মান রয়েছে। সেই সামাজিক সম্মান হরণ করার অধিকার ভারতীয় সংবিধান কাউকে দেয়নি।’ 

তৃণমূল নেতা অনুব্রত মণ্ডল গ্রেফতার হওয়ার পর সংবাদ সম্মেলন করে ফিরহাদ হাকিম বলেছিলেন, তার দল তৃণমূলের সকলে চোর নন। আজ শনিবার ফের সে কথার পুনরাবৃত্তি করে তিনি বলেন, ‘আপনারা আপনাদের সংবাদমাধ্যমে যা দেখিয়েছেন, তা নিশ্চিত ভাবে আমাদেরও ভাল লাগেনি। কিন্তু এটাও ঠিক, সব তৃণমূলের কর্মী বা নেতাই চোর নয়। তৃণমূলের সবাই খারাপ নয়। যে কারণে অনেকের ধৈর্যচ্যুতি ঘটছে’ বলেও মন্তব্য করেন রাজ্যের মন্ত্রী ও কোলকাতার মেয়র ফিরহাদ হাকিম।#

পার্সটুডে/এমএএইচ/এমবিএ/১৩

বিশ্বসংবাদসহ গুরুত্বপূর্ণ সব লেখা পেতে আমাদের ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে অ্যাকটিভ থাকুন।

  

 

ট্যাগ