আগস্ট ১৫, ২০২২ ১৮:৫৪ Asia/Dhaka
  • সোনিয়া গান্ধি
    সোনিয়া গান্ধি

ভারতের প্রধান বিরোধীদল কংগ্রেসের সভানেত্রী সোনিয়া গান্ধী কেন্দ্রীয় সরকারের সমালোচনা করে বলেছেন, ‘কেন্দ্রীয় সরকার আত্মমগ্ন সরকার। তারা নিজেদের স্বার্থে ইতিহাস বিকৃত করতে চাচ্ছে।’ তিনি আজ (সোমবার) স্বাধীনতা দিবস উদযাপন উপলক্ষে এক বার্তায় ওই মন্তব্য করেন।

সোনিয়া গান্ধি বলেন, ‘গত ৭৫ বছর ধরে দেশের উচ্চ শিক্ষিত এবং উচ্চ মেধা সম্পন্ন ভারতীয়রা দেশকে নেতৃত্ব দিয়েছেন। উন্নয়নের পথে এগিয়ে নিয়ে গিয়েছেন। বিজ্ঞান, শিক্ষা, স্বাস্থ্য এবং তথ্যের ক্ষেত্রে এদের নেতৃত্বেই ধীরে ধীরে নিজেকে মেলে ধরেছে ভারত। দূরদর্শী ওই নেতারা ভারতে মুক্ত ও স্বচ্ছ নির্বাচন প্রক্রিয়ার ভিত তৈরি করেছেন। গণতন্ত্র এবং সংবিধানের হাত শক্ত করেছেন।’ কংগ্রেস সভানেত্রী জানিয়েছেন, কেন্দ্রীয় সরকার এদের অবদানকে খাটো করে দেখাতে চাইলে কংগ্রেস তা সহ্য করবে না।    

তিনি বলেন, ‘বিগত ৭৫ বছরে আমরা অনেক অর্জন করেছি, কিন্তু আজকের আত্মমুগ্ধ সরকার আমাদের স্বাধীনতা যোদ্ধাদের মহান আত্মত্যাগ ও দেশের গৌরবময় অর্জনকে তুচ্ছ প্রমাণ করতে উদ্যত, যা কখনোই মেনে নেওয়া যায় না। ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেস রাজনৈতিক লাভের জন্য ঐতিহাসিক তথ্যের উপর যে কোন ভুল উপস্থাপন এবং মিথ্যার ভিত্তিতে গান্ধি-নেহেরু-প্যাটেল-আজাদ জীর মত মহান জাতীয়  নেতাদের কাঠগড়ায় দাঁড় করানোর প্রত্যেকটি প্রচেষ্টার তীব্র বিরোধিতা করবে।  

অন্যদিকে, সর্বভারতীয় কংগ্রেস কমিটির মিডিয়া ও প্রচার বিভাগের চেয়ারম্যান পবন খেরা বলেছেন, স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে প্রধানমন্ত্রীর দেওয়া ভাষণে দেশবাসী হতাশ হয়েছেন। দেশবাসী আশা করেছিল উনি ৮ বছরের হিসাব দেবেন, কৃষকদের আয় দ্বিগুণ করার প্রতিশ্রুতি দেওয়া হয়েছিল, তারা বিপর্যস্ত। অপেক্ষায় ছিলেন, আজ হয়ত কোনও জবাব পাওয়া যাবে। প্রত্যেক ব্যক্তির পাকা বাড়ি, বাড়িতে বাড়িতে পাইপ লাইনের মাধ্যমে পানি, এ সবের এর কী হল, তার বিবরণ দেওয়া হবে বলে আশা করা হয়েছিল। কিন্তু প্রধানমন্ত্রী গোটা দেশবাসী ও নিজের সমর্থকদের হতাশ করেছেন বলেও মন্তব্য করেন কংগ্রেস নেতা পবন খেরা।# 

পার্সটুডে/এমএএইচ/আবুসাঈদ/১৫

বিশ্বসংবাদসহ গুরুত্বপূর্ণ সব লেখা পেতে আমাদের ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে অ্যাকটিভ থাকুন।

ট্যাগ