নভেম্বর ২৪, ২০২২ ১৮:২৯ Asia/Dhaka
  • দিল্লির জামে মসজিদে একাকী মেয়েদের প্রবেশ নিষিদ্ধ,  দিল্লি মহিলা কমিশনের নোটিশ

ভারতের রাজধানী দিল্লির ঐতিহাসিক জামে মসজিদে একাকী মেয়েদের প্রবেশ নিষিদ্ধ করা হয়েছে। মসজিদের প্রবেশ গেটে এ ব্যাপারে বোর্ড লাগানো হয়েছে। নোটিশে বলা হয়েছে জামে মসজিদে একাকী মেয়ে বা মেয়েদের প্রবেশ নিষিদ্ধ। এ নিয়ে বিভিন্ন মহলে আলোচনা শুরু হয়েছে।

ওই নির্দেশের বিরোধিতা করেছেন দিল্লি মহিলা কমিশনের চেয়ারপার্সন স্বাতী মালিওয়াল। স্বাতি মালিওয়াল বিষয়টি আমলে নিয়ে তিনি আজ মসজিদের শাহী ইমাম মাওলানা সৈয়েদ আহমদ বুখারীকে নোটিশ পাঠিয়েছেন।      

আজ (বৃহস্পতিবার) সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে দিল্লি মহিলা কমিশনের চেয়ারপার্সন স্বাতী মালিওয়াল এক বার্তায় বলেন, ‘জামে মসজিদে নারীদের প্রবেশ বন্ধের সিদ্ধান্ত একেবারেই ভুল। একজন পুরুষের যেমন উপাসনার অধিকার আছে, তেমনি একজন নারীরও আছে। আমি জামে মসজিদের ইমামকে নোটিশ দিচ্ছি। নারীদের এ ভাবে প্রবেশ নিষিদ্ধ করার অধিকার কারো নেই।’   

অন্যদিকে, জামে মসজিদের শাহী ইমাম সৈয়দ আহমদ বুখারি বলেছেন, মসজিদে নারীদের নামাজ পড়তে আসা বন্ধ করা হবে না। তিনি বলেন, মেয়েরা তাদের বয়ফ্রেন্ড নিয়ে মসজিদে আসছে বলে অভিযোগ ছিল। কোনো নারী জামে মসজিদে আসতে চাইলে তাকে তার পরিবার বা স্বামীসহ আসতে হবে। 

আজ জামে মসজিদের ‘পিআরও’ সাবিউল্লাহ খান বলেন, ‘যে কোনো ধর্মীয় স্থানের প্রটোকল মেনে চলা খুবই জরুরি। নিষেধাজ্ঞার উদ্দেশ্য হল মসজিদ কেবলমাত্র ইবাদতের জন্য। এবং এটি শুধুমাত্র ইবাদতের জন্য ব্যবহার করা উচিত। কেউ এখানে এসে নামাজ পড়তে চাইলে তাতে কোন বাধা নেই, তবে মসজিদকে শুধু মসজিদ হিসেবে ব্যবহার করতে হবে।’   

সাবিউল্লাহ খান বলেন, ‘মহিলাদের প্রবেশ নিষিদ্ধ করা হয়নি। সিঙ্গেল মেয়েরা যারা এখানে আসেন, তাদের পুরুষ সঙ্গীদের সঙ্গে সময় কাটান, এখানে ভিডিও করে টিকটক করেন এ সব বন্ধ করতেই নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। যদি চারদিকে দেখেন তাহলে দেখা যাবে এখানে মহিলারা উপস্থিত রয়েছেন। পরিবার নিয়ে আসতে কোনও বাধা নেই, বিবাহিত দম্পতিদের মসজিদে আসতে কোনও বাধা নেই। কিন্তু এখানে কাউকে সময় দেওয়া, মসজিদকে মিটিং পয়েন্ট বানানো, পার্ক মনে করা, টিকটক ভিডিও করা, নাচ করা, কোন ধর্মীয় স্থানের জন্য উপযুক্ত নয়। সেটা মন্দির হোক, মসজিদ হোক, গুরুদ্বার হোক’ বলেও দিল্লি জামে মসজিদের ‘পিআরও’ সাবিউল্লাহ খান মন্তব্য করেন।      

একই সঙ্গে ওই সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছেন অ্যাডভোকেট জিনাত ফারুকী। তিনি বলেন, এখানে ধর্মীয় অনুষ্ঠান হয়। লোকেরা ছোট ছোট ভিডিও বানিয়ে এর অপব্যবহার করে। কোনো নিষেধাজ্ঞা নেই, শুধু একটু সাবধানে আসতে বলা হচ্ছে।#

 

পার্সটুডে/এমএএইচ/এমবিএ/২৪

বিশ্বসংবাদসহ গুরুত্বপূর্ণ সব লেখা পেতে আমাদের ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে অ্যাকটিভ থাকুন।   

 

ট্যাগ