২০১৯-০৯-২৪ ১৪:৪৬ বাংলাদেশ সময়
  • হিমন্ত বিশ্ব শর্মা
    হিমন্ত বিশ্ব শর্মা

ভারতের অসমের প্রভাবশালী বিজেপি নেতা এবং অর্থ, স্বাস্থ্য ও পূর্তমন্ত্রী হিমন্ত বিশ্ব শর্মা বলেছেন, বিজেপি এই এনআরসি মানবে না। গতকাল (সোমবার) শিলচর পুলিশ প্যারেড গ্রাউন্ডে আয়োজিত বিজেপি’র এক সভায় জাতীয় নাগরিকপঞ্জি বা এনআরসি প্রসঙ্গে তিনি ওই মন্তব্য করেন।

এনআরসি’র চূড়ান্ত তালিকায় মুসলিমদের চেয়ে হিন্দুদের নাম বাদ পড়ায় রাজ্য বিজেপি নেতারা ওই এনআরসিকে প্রত্যাখ্যানের কথা বলছেন। 

হিমন্ত বিশ্ব শর্মা বলেন, যে কারণে এনআরসি করা হয়েছে, তার ঠিক উল্টোটা হয়েছে। তাঁর দাবি, "আমি স্পষ্টভাবে সুপ্রিম কোর্টে জানাব ‘বিজেপি রিজেক্ট দিস এনআরসি’। এনআরসি আমাদের জাতীয় দলিল নয়। মোদি ও অমিত শাহের নেতৃত্বে ভারতে ফের এনআরসি হবে। আজ যারা এখন হাসছে তখন তারা কাঁদবে।"

তিনি বলেন, এনআরসি প্রকাশের আগের দিনই আমি বলেছি যে এটি কোনও জাতীয় দলিল নয়। তাহলে আপনারা কেন চিন্তা করবেন? এনআরসি হবে কিন্তু তা নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল (ক্যাব) পাস হওয়ার পরে। এখন যা ঘটেছে সেটা হল ছবির প্রথম শো, দ্বিতীয় শো এখনও বাকি। তিনি ‘পিকচার অভি বাকি হ্যায়’ বলে মন্তব্য করেছেন। তিনি আগামী নভেম্বরে  সংসদে ‘ক্যাব’ পাস হবে বলে আশ্বাস দিয়েছেন।   

ওই সভায় সিনিয়র বিজেপি নেতা কবীন্দ্র পুরকায়স্থ অসমে ডিটেনশন ক্যাম্প কাদের জন্য তৈরি হচ্ছে বলে প্রশ্ন রেখেছিলেন। রাজ্যের মন্ত্রী হিমন্ত বিশ্ব শর্মা এপ্রসঙ্গে তাৎপর্যপূর্ণ মন্তব্য করে বলেন, "ভারতে বসবাসকারী হিন্দু-খ্রিস্টান-বৌদ্ধ-জৈন সকলেই ‘ভারত মায়ের সন্তান’ কিন্তু নাগরিকত্ব বিল পাস হলে কাউকে না কাউকে তো ডিটেনশন ক্যাম্পে পুরে রাখতে হবে।" তাঁর ওই মন্তব্যে কার্যত মুসলিমদের দিকে ইঙ্গিত রয়েছে বলে রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা মনে করছেন।

এনআরসি থেকে বাদপড়া ১৯ লাখ মানুষ আতঙ্কে

তিনি বলেন, ভারতকে যারা ‘মা’ বলে মনে করেন, নিজের দেশ বলে মনে করেন, বিশেষ করে সনাতনপন্থিদের নিরাপত্তা ও আশ্রয় দিতে বিজেপি সরকার প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। বিজেপি এনিয়ে কোনও আপোশ করবে না বলেও হিমন্ত বিশ্বশর্মা মন্তব্য করেন।

বিজেপি নেতা ও রাজ্যের মন্ত্রী হিমন্ত বিশ্ব শর্মা এর আগে বলেছিলেন, ‘শিব-দুর্গা-কালীকে যারা পুজো করেন তাঁরা কখনও ‘বিদেশি’ হতে পারেন না। তাঁরা ভারতীয়। আর এই ভারতীদের নাম ছেঁটে যদি এনআরসি প্রকাশিত হয় তাহলে সেটা কোনওভাবেই জাতির দলিল হবে না।’

অসমে কংগ্রেসের সভাপতি রিপুন বরা পাল্টা জবাবে সে সময় বলেছিলেন, ‘সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশে হওয়া এনআরসি নস্যাৎ করে আদালত অবমাননা করছেন বিজেপি’র নেতা-মন্ত্রীরা। তাঁদের বিরুদ্ধে মামলা করা উচিত। দ্বিতীয়ত, হিমন্তবিশ্ব শর্মা যেভাবে বলছেন ‘শিব, কালী, দুর্গা’র উপাসকরা নাগরিকত্ব পাবেন, সেটা চূড়ান্ত সাম্প্রদায়িকতা! তিনি আদালত ও সংবিধান উভয়েরই অবমাননা করছেন’ বলেও রিপুন বরা মন্তব্য করেন।#

পার্সটুডে/এমএএইচ/এআর/২৪

খবরসহ আমাদের ওয়েবসাইটে প্রকাশিত সব লেখা ফেসবুকে পেতে এখানে ক্লিক করুন এবং নোটিফিকেশনের জন্য লাইক দিন

ট্যাগ

মন্তব্য