ডিসেম্বর ১০, ২০১৯ ১৫:৫২ Asia/Dhaka
  •  অমিত শাহ সহ শীর্ষ নেতাদের বিরুদ্ধে মার্কিন নিষেধাজ্ঞা জারির দাবি

ভারতীয় সংসদের নিম্নকক্ষ লোকসভায় (গতকাল) সোমবার দিবাগত মধ্যরাতে বিতর্কিত নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল (ক্যাব)পাস হয়েছে। বিলটিতে ধর্মের ভিত্তিতে নাগরিকত্ব দেওয়ার প্রস্তাব থাকায় মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের আন্তর্জাতিক ধর্মীয় স্বাধীনতা সংক্রান্ত কমিশন (ইউএসসিআইআরএফ) উদ্বেগ প্রকাশ করেছে। তাঁদের মতে, ওই বিলে নাগরিকত্ব দেওয়ার ক্ষেত্রে ‘ধর্মীয় মানদণ্ড’ বেঁধে দেওয়া হয়েছে, যা অত্যন্ত বিপজ্জনক!

সোমবার সংগঠনের পক্ষ থেকে একটি বিবৃতি প্রকাশ করে বলা হয়, ‘স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ যে নাগরিকত্ব সংশোধনী বিলটি পেশ করেছেন, তাতে ধর্মীয় মানদণ্ড বেঁধে দেওয়ায় ইউএসসিআইআরএফ ভীষণ উদ্বিগ্ন! সংসদের দুই কক্ষে বিলটি যদি পাশ হয়ে যায় তাহলে অমিত শাহ-সহ সে দেশের অগ্রগণ্য নেতাদের উপরে নিষেধাজ্ঞা চাপানো উচিত মার্কিন সরকারের।’

ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার প্রতিবেশি বাংলাদেশ, পাকিস্তান ও আফগানিস্তান থেকে এদেশে আসা হিন্দু, বৌদ্ধ, জৈন, খ্রিস্টান, পার্শিদের জন্য নাগরিকত্ব আইন সংশোধন ‘ক্যাব’ পাস করে তাঁদের নাগরিকত্ব দিতে চাচ্ছে। এক্ষেত্রে মুসলিমদের নাগরিকত্ব দেওয়ার কোনও ব্যবস্থা নেই। এভাবে নির্দিষ্ট ধর্মের ভিত্তিতে নাগরিকত্ব বিল পাস করানোর প্রচেষ্টাকে বিভিন্ন দল, সংগঠন ও সামাজিক সংস্থার পক্ষ থেকে তীব্র বিরোধিতা করা হচ্ছে।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের আন্তর্জাতিক ধর্মীয় স্বাধীনতা সংক্রান্ত কমিশনের বিবৃতিতে বলা হয়, ‘নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল একটি অত্যন্ত বিপজ্জনক মোড়, যা ভুল পথে এগোচ্ছে। ভারতের ধর্মনিরপেক্ষ, বহুত্ববাদী ইতিহাস এবং সে দেশের সংবিধান, যা কি না ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে সকলের সমানাধিকারের কথা বলে, এই বিল তার পরিপন্থী।’

মার্কিন কমিশন আরও বলেছে, ‘আমাদের আশঙ্কা, নাগরিকত্ব দেওয়ার ক্ষেত্রে ধর্মীয় পরীক্ষা নিচ্ছে ভারতীয় সরকার, যা কি না কয়েক কোটি মুসলিমের নাগরিকত্ব ছিনিয়ে নেবে।’ গত এক দশকে ধর্মীয় বৈষম্য নিয়ে তাঁদের বার্ষিক রিপোর্টকে ভারত সরকার কোনওরকম গুরুত্ব দেয়নি বলেও দাবি করা হয়েছে ওই বিবৃতিতে। ধর্মীয় স্বাধীনতা এবং মানবাধিকার লঙ্ঘন নিয়ে কোনও দেশ বা ব্যক্তির উপর নিষেধাজ্ঞা চাপানো যায় কি না, সংশ্লিষ্ট ওই কমিশনের রিপোর্টের উপর ভিত্তি করেই মার্কিন পররাষ্ট্র দফতর সিদ্ধান্ত নেয়। সেজন্য মার্কিন সরকারে  ইউএসসিআইআরএফ-এর রিপোর্টের বিশেষ গুরুত্ব রয়েছে।#

পার্সটুডে/এমএএইচ/এমবিএ/১০

বিশ্বসংবাদসহ গুরুত্বপূর্ণ সব লেখা পেতে আমাদের ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে অ্যাকটিভ থাকুন।

 

 

ট্যাগ

মন্তব্য