জানুয়ারি ১৫, ২০২১ ১৮:৫২ Asia/Dhaka
  • ভারতের সেনা প্রধান জেনারেল মনোজ মুকুন্দ নারাভানে
    ভারতের সেনা প্রধান জেনারেল মনোজ মুকুন্দ নারাভানে

ভারতীয় সেনাবাহিনীর প্রধান জেনারেল মনোজ মুকুন্দ নারাভানে চীনের বিরুদ্ধে অভিযোগ করে বলেছেন, ‘পূর্ব লাদাখের প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখা’র (এলএসি) স্থিতিশীলতা নষ্ট করার জন্য একতরফা ষড়যন্ত্র করছে চীন।’ একইসঙ্গে তিনি প্রতিবেশী চীন ও পাকিস্তানের হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেছেন, ‘কেউ যেন আমাদের ধৈর্য্যের পরীক্ষা নেওয়ার ভুল না করে।’

আজ (শুক্রবার) ৭৩ তম সেনা দিবস উপলক্ষে দিল্লিতে এক অনুষ্ঠানের বক্তব্যে জেনারেল নারাভানে ওই মন্তব্য করেন।

গত বছর ১৫ জুন ভারত-চীন সীমান্তে গালওয়ান উপত্যকায় চীনের পিপলস লিবারেশন আর্মি’র (পিএলএ) সঙ্গে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে ২০ ভারতীয় সেনা জওয়ান নিহত হওয়ার প্রসঙ্গ উল্লেখ করে সেনাপ্রধান বলেন, ‘আমি দেশবাসীকে আশ্বস্ত করতে চাই যে গালওয়ান উপত্যকায় প্রাণ হারানো সেনাদের আত্মত্যাগ বৃথা যাবে না। আমরা আলোচনার মাধ্যমে বিষয়টি সমাধান করার পক্ষে। কিন্তু কাউকে ভারতের ধৈর্যের পরীক্ষা নেওয়ার ভুল করা উচিত নয়।’

ভারতের সেনা দিবস

সেনাপ্রধান পাকিস্তান থেকে সীমান্ত সন্ত্রাসবাদের বিষয়ে অভিযোগে বলেন, প্রতিবেশী দেশ এখনও সন্ত্রাসীদের নিরাপদ আশ্রয়স্থল। শত্রুকে উচিত জবাব দেওয়া হচ্ছে। তিনি বলেন, গতবছর সন্ত্রাসবিরোধী অভিযানে দু’শোর বেশি সন্ত্রাসী নিহত হয়েছে। সীমান্তে অনুপ্রবেশের জন্য কমপক্ষে ৩০০ থেকে ৪০০ সন্ত্রাসী তাদের প্রশিক্ষণ শিবিরে উপস্থিত রয়েছে। গতবছর গোলাগুলির ঘটনা ৪৪ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়েছিল, যাতে পাকিস্তানের অভিপ্রায় স্পষ্ট হয়েছে।

গত (মঙ্গলবার) সেনাপ্রধান এমএম নারাভানে চীন ও পাকিস্তান সম্পর্কে বলেছিলেন, ‘পাকিস্তান ও চীন একত্রে ভারতের পক্ষে বড় বিপদ। সেজন্য তারা যৌথভাবে যে ষড়যন্ত্র করছে, তা উপেক্ষা করা যাবে না। লাদাখে আমাদের সেনারা অনেক এলাকায় টহল দিচ্ছে। নিজেদের নিয়ন্ত্রণে রেখেছে এলাকা। সেখান থেকে সেনা সরানোর কোনও পরিকল্পনা নেই। লাদাখ নিয়ে চীন যদি আলোচনার টেবিলে সব মিটিয়ে নেয়, তাহলে স্বাগত। কিন্তু পাল্টা প্রত্যাঘাত করতেও ভারতীয় সেনা প্রস্তুত।'

রাজধানী দিল্লীতে আজ সেনা দিবসের বিশেষ প্যারেড অনুষ্ঠানে সেনাপ্রধান জেনারেল এমএম নারাভানের পাশাপাশি ‘চিফ অফ ডিফেন্স স্টাফ’ জেনারেল বিপিন রাওয়াত, বিমানবাহিনীর প্রধান আরকেএস ভাদৌরিয়া, নৌবাহিনীর প্রধান করমবীর সিং প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।#

 

পার্সটুডে/এমএএইচ/এআর/১৫  

বিশ্বসংবাদসহ গুরুত্বপূর্ণ সব লেখা পেতে আমাদের ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে অ্যাকটিভ থাকুন।

 

 

ট্যাগ