জানুয়ারি ২৩, ২০২১ ১৯:২৮ Asia/Dhaka
  • মধ্য প্রদেশে কংগ্রেসের রাজভবন অভিযানে পুলিশের লাঠিচার্জ, কাঁদানে গ্যাসের শেল নিক্ষেপ

ভারতের বিজেপিশাসিত মধ্য প্রদেশে বিরোধীদল কংগ্রেসের পক্ষ থেকে রাজধানী ভোপালে রাজভবন অভিযানকে ব্যর্থ করতে পুলিশ লাঠিচার্জ করার পাশাপাশি কাঁদানে গ্যাসের শেল নিক্ষেপ ও পানি কামান ব্যবহার করেছে।

আজ (শনিবার) কেন্দ্রীয় কৃষি আইনের বিরোধিতা করতে এবং ওই ইস্যুতে আন্দোলনরত কৃষকদের পাশে দাঁড়াতে কংগ্রেসের পক্ষ থেকে রাজভবন অভিযান কর্মসূচি হাতে নেওয়া হয়। ওই ঘটনায় রাজ্যের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী দিগ্বিজয় সিংসহ কমপক্ষে ২০ কংগ্রেস নেতাকে পুলিশ আটক করেছে।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে মধ্য প্রদেশ কংগ্রেসের পক্ষ থেকে আজকের ওই ঘটনার একটি ভিডিয়ো পোস্ট করে এক বার্তায় বলেন, ‘কংগ্রেস কর্মকর্তাদের উপরে লাঠিচার্জ। (মুখ্যমন্ত্রী) শিবরাজের স্বৈরাচার ব্রিটিশ শাসনের কথা মনে করিয়ে দিচ্ছে। ভোপালে শান্তিপূর্ণ মিছিলে শিবরাজের নির্দেশে যেভাবে লাঠিচার্জ করা হয়েছে, কাঁদানে গ্যাসের শেল ফাটানো হয়েছে এবং পানি কামান ব্যবহার করা হয়েছে, তা ইংরেজদের দমননীতিকেই মনে করাচ্ছে। শিবরাজের ক্ষমতাচ্যুত হওয়া এখন শুধু সময়ের অপেক্ষা।’

আজ রাজভবনে যাওয়ার অভিমুখে কংগ্রেস নেতা-কর্মীদের মিছিল আটকে দেয় পুলিশ। ফিরে না গেলে বলপ্রয়োগ করা হবে বলে এসময়ে পুলিশের পক্ষ থেকে হুঁশিয়ারি দেওয়া হয়। কিন্তু তাতে কান না দিয়ে প্রতিবাদী কংগ্রেস কর্মীরা পুলিশের ব্যারিকেড ভেঙে এগোনোর চেষ্টা করলে তাদের উপরে পানি কামান ব্যবহার করে পুলিশ। ক্ষুব্ধ জনতাকে ছত্রভঙ্গ করতে এ সময়ে কাঁদানে গ্যাসের শেল ফাটানোসহ এলোপাথাড়ি লাঠিচার্জ করা হয়।

দেশে চলমান কৃষক আন্দোলন প্রসঙ্গে পশ্চিমবঙ্গের কোলকাতার মানবাধিকার  সংস্থা ‘বন্দি মুক্তি কমিটি’র সাধারণ সম্পাদক ছোটোন দাস আজ (শনিবার) রেডিও তেহরানকে বলেন, ‘এই সরকার তো আমার আপনার স্বার্থ দেখার জন্য আসেনি। এসেছে শিল্পপতি আদানি, আম্বানিদের স্বার্থ দেখার জন্য। ফলে আদানিদের স্বার্থ দেখাটাই এদের কাজ, তাতে কৃষকদের যাই হোক দেশের মানুষদের যাই হোক, যত ক্ষতিই হোক না কেন। ওরা মুখে জনগণের কথা বলছে কিন্তু প্রবল ঠান্ডার মধ্যে আমাদের ‘অন্নদাতা’দের হত্যা করছে। সারা দেশের মানুষ ওদের প্রকৃত স্বরূপ বুঝতে পারছে। যেভাবে হরিয়ানা, পাঞ্জাব, মধ্য প্রদেশ, উত্তর প্রদেশের কৃষকরা ওদেরকে পরিত্যাগ করছেন, পশ্চিমবঙ্গের কৃষকরাও একইভাবে ওদের পরিত্যাগ করবে। আন্দোলন জয়যুক্ত হবে এবং ওরা জনবিচ্ছিন্ন হবে বলেও ‘বন্দি মুক্তি  কমিটি’র সাধারণ সম্পাদক ছোটোন দাস মন্তব্য করেন।#

পার্সটুডে/এমএএইচ/এমবিএ/২৩

বিশ্বসংবাদসহ গুরুত্বপূর্ণ সব লেখা পেতে আমাদের ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে অ্যাকটিভ থাকুন।

 

ট্যাগ