মার্চ ০৪, ২০২১ ১৯:২৪ Asia/Dhaka
  • পশ্চিমবঙ্গে ভাইজানের রাজনীতির কাছে আত্মসমর্পণের মধ্য দিয়ে বিভাজনের ষড়যন্ত্র চলছে : বিজেপি

ভারতের পশ্চিমবঙ্গের বিজেপি নেতা ও মুখপাত্র শমীক ভট্টাচার্য ফুরফুরা শরীফের পীরজাদা ও ইন্ডিয়ান সেক্যুলার ফ্রন্টের (আইএসএফ) প্রতিষ্ঠাতা আব্বাস সিদ্দিকি’র ভাইজান) রাজনীতি সম্পর্কে সতর্ক করে রাজ্যে বিভাজনের ষড়যন্ত্র চলছে বলে মন্তব্য করেছেন। তিনি আজ (বৃহস্পতিবার) কোলকাতায় এক সংবাদ সম্মেলনে এ সংক্রান্ত মন্তব্য করেন।

বিজেপি মুখপাত্র শমীক ভট্টাচার্য বলেন, ‘যে বিভাজনের রাজনীতি আজকে পশ্চিমবঙ্গে নিয়ে আসা হয়েছে তাতে বাংলা কোন দিকে যাবে? আজকে পশ্চিমবঙ্গের ভবিষ্যৎ ঠিক করবে ‘ভাইজান’? এটা বাংলার মানুষ মেনে  নেবেন কি না তা সম্পূর্ণ তাদের উপরে নির্ভর করে।’  

তিনি বলেন, ‘যারা নেতাজির মতাদর্শ, নেতাজির ‘জয়হিন্দ’ স্লোগান নিয়ে এত বিশ্লেষণ করলেন আজকে সেই ফরওয়ার্ড ব্লক নেতাজির তৈরি পার্টি সেও আজকে ‘ভাইজান’-এর কাছে আত্মসমর্পণ করেছে! যে কমিউনিস্ট পার্টি এখনও মানুষের সামনে বক্তব্য রেখে চলেছে, তারা অতীতে বিভিন্ন শ্রমিক আন্দোলন, খাদ্য আন্দোলনের গল্প বলেন, তাদের সমস্ত আন্দোলন শেষ হয়ে গেছে আজকে এই ‘ভাইজান’-এর রাজনীতির কাছে! এই নির্লজ্জ ‘সাম্প্রদায়িক তোষণ’, এই নির্লজ্জ আত্মসমর্পণ পশ্চিমবঙ্গকে দ্বিতীয়বার বিভাগের সামনে  করে দেওয়ার ষড়যন্ত্র চলেছে।’

ভারতের পশ্চিমবঙ্গে ফুরফুরা শরীফের পীরজাদা আব্বাস সিদ্দিকি সম্প্রতি  ‘ইন্ডিয়ান সেকুলার ফ্রন্ট’ (আইএসএফ) নামে নয়া দল গঠন করেছেন। পীরজাদা আব্বাস সিদ্দিকি সাধারণ মানুষের মধ্যে ‘ভাইজান’ নামেও পরিচিত। রাজ্যে আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনের মুখে এই প্রথম ফুরফুরা শরীফের কোনও পীরজাদার নেতৃত্বে দল গঠন ও সিপিএম ও কংগ্রেসের সঙ্গে জোট করে নির্বাচনী লড়াইতে শামিল হতে চাওয়ায় রাজনৈতিক মহলে মিশ্র প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হয়েছে। বিশেষকরে রাজ্যে ক্ষমতাসীন তৃণমূল কংগ্রেস ও বিরোধী বিজেপি ওই জোটের সাম্প্রতিক তৎপরতার তীব্র সমালোচনা করেছে। পীরজাদা আব্বাস সিদ্দিকির রাজনীতিকে সাম্প্রদায়িক রাজনীতি বলেও তারা মন্তব্য করেছে। মুসলিম নেতৃবৃন্দের একাংশও রাজনৈতিক মঞ্চে পীরজাদার শামিল হওয়ার বিষয়টি ভালো চোখে দেখছেন না। যদিও সিপিএম ও কংগ্রেস নেতৃবৃন্দ তাঁকে অসাম্প্রদায়িক বলে অভিহিত করেছেন। #

পার্সটুডে/এমএএইচ/এমবিএ/৪

বিশ্বসংবাদসহ গুরুত্বপূর্ণ সব লেখা পেতে আমাদের ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে অ্যাকটিভ থাকুন।

 

 

 

ট্যাগ