এপ্রিল ১৮, ২০২১ ১৮:৫০ Asia/Dhaka
  • ভারতে উদ্বেগজনক করোনা পরিস্থিতি, পশ্চিমবঙ্গে নির্বাচনী প্রচার কর্মসূচি বাতিল করলেন রাহুল গান্ধী

ভারতে করোনা পরিস্থিতি উদ্বেগজনক হওয়ার পরিপ্রেক্ষিতে পশ্চিমবঙ্গে বিধানসভা নির্বাচনকে কেন্দ্র করে দলীয় প্রচার কর্মসূচি বাতিল করলেন প্রধান বিরোধীদল কংগ্রেসের সাবেক সভাপতি রাহুল গান্ধী এমপি।

আজ (রোববার) সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টুইটারে এক টুইট বার্তায় রাহুল গান্ধী বলেন, ‘কোভিড পরিস্থিতির মধ্যে আমি পশ্চিমবঙ্গের সমস্ত সভা স্থগিত রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছি।’একইসঙ্গে নাম না উল্লেখ করে অন্যান্য রাজনৈতিক নেতাদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, ‘আমি সব রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দকেও অনুরোধ করব বর্তমান পরিস্থিতির কথা গভীরভাবে অনুধাবন করে বড় সমাবেশ থেকে বিরত থাকার।’  

প্রদেশ কংগ্রেস সূত্রে জানা গেছে, আগামী কয়েকদিনের মধ্যে নোয়াপাড়া, বাদুড়িয়া, মালদহসহ বেশ কয়েকটি আসনে ‘সংযুক্ত মোর্চা’র হয়ে নির্বাচনী  প্রচারে আসার কথা ছিল রাহুল গান্ধীর। রাজ্যে কংগ্রেস, বামফ্রন্ট ও  আইএসএফ সমন্বিত সংযুক্ত মোর্চা যৌথভাবে নির্বাচনে লড়ছে। আগামী বৃহস্পতিবার ষষ্ঠ দফার ভোট গ্রহণ হবে। এই উপলক্ষে রাহুলের কয়েকটি জনসভায় উপস্থিত থাকার কথা ছিল। কিন্তু করোনাভাইরাস ইস্যুতে  পরিবর্তিত পরিস্থিতিতে রাহুল গান্ধী পশ্চিমবঙ্গে সমস্ত প্রচার কর্মসূচি বাতিল ঘোষণা করলেন।  

কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় সূত্রে প্রকাশ, গতকাল (শনিবার) সকাল ৮ টা থেকে আজ (রোববার) সকাল ৮ টা পর্যন্ত ২ লাখ ৬১ হাজার ৫০০ টি নয়া সংক্রমণের রেকর্ড সৃষ্টি হয়েছে। একইসময়ে ১ হাজার ৫০১ জন করোনা রোগীর মৃত্যু হয়েছে। এরফলে একদিনে আক্রান্তের সংখ্যা ও মৃত্যুর সংখ্যার নিরিখে এটিই সর্বোচ্চ রেকর্ড। 

অন্যদিকে, পশ্চিমবঙ্গেও গত ২৪ ঘণ্টায় ৭ হাজার ৭১৩ জন করোনা সংক্রমিত হয়েছেন। একইসময়ে বাংলায় ৩৪ জন করোনা রোগীর মৃত্যু হয়েছে। রাজ্যে এ পর্যন্ত মোট ১০ হাজার ৫৪০ জন মারা গেছেন। পশ্চিমবঙ্গে বর্তমানে ৪৫ হাজার ৩০০ জন সক্রিয় করোনা রোগী হাসপাতাল অথবা হোম আইসোলেশনে চিকিৎসাধীন আছেন।   

করোনা সংক্রমণের নিরিখে গোটা বিশ্বে এই মুহূর্তে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের পরেই রয়েছে ভারত। ব্রাজিল বর্তমানে তৃতীয় স্থানে রয়েছে। মৃত্যুর নিরিখে বিশ্বে চতুর্থ তালিকায় রয়েছে ভারত। এমন পরিস্থিতিতে করোনা পরীক্ষা ও টিকাকরণ না বাড়ালে সংক্রমণ ঠেকানো অসাধ্য হয়ে দাঁড়াবে বলে মনে করছেন স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা। টিকাকরণের দুর্বল গতি, ওষুধপত্র, অক্সিজেন এবং প্রতিষেধকে ঘাটতির জন্য কেন্দ্রীয় সরকারকেই দায়ী করেছে একাধিক রাজ্য।    

শনিবার, কংগ্রেস দল প্রধানমন্ত্রী মোদির বিরুদ্ধে একটি ভিডিও প্রকাশ করেছে, যেখানে করোনা মহামারীর সময়ে প্রধানমন্ত্রী মোদির নির্বাচনী কর্মসূচিকে মারাত্মকভাবে টার্গেট করা হয়েছে। কংগ্রেসের সিনিয়র নেতা পি চিদাম্বরম অভিযোগ করেছেন, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি মহামারী মোকাবেলার পরিবর্তে পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভা নির্বাচনে প্রচার চালিয়ে মর্মান্তিক সংবেদনহীনতা প্রদর্শন করছেন। চিদাম্বরম বলেন, প্রধানমন্ত্রীর উচিত দিল্লিতে অবস্থান করে নিজের কাজ করা এবং মুখ্যমন্ত্রীদের সাথে সমন্বয় করে করোনাভাইরাস মোকাবিলা করা। 

প্রধানমন্ত্রী আট দফার পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভা নির্বাচনের জন্য রাজ্যে বিভিন্ন দিনে দলীয় সমাবেশে বক্তব্য রাখছেন। রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এরইমধ্যে ভিন রাজ্য থেকে আসা বহিরাগতরা বাংলায়  করোনা ছড়াচ্ছেন বলে অভিযোগ করেছেন। এ ব্যাপারে তিনি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকেও সাবধান করে দিয়েছেন।#             

পার্সটুডে/এমএএইচ/এমবিএ/১৮

বিশ্বসংবাদসহ গুরুত্বপূর্ণ সব লেখা পেতে আমাদের ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে অ্যাকটিভ থাকুন।

 

ট্যাগ