এপ্রিল ২১, ২০২১ ১৮:১৭ Asia/Dhaka

ভারতের মহারাষ্ট্রের নাসিকে এক হাসপাতালে ভয়াবহ গ্যাস দুর্ঘটনায় ২২ জন রোগীর মৃত্যু হয়েছে। আজ (বুধবার) ডা. জাকির হুসেন হাসপাতালে অক্সিজেন ট্যাঙ্ক লিক করার ফলে ওই দুর্ঘটনা ঘটে।  দুর্ঘটনায় এ পর্যন্ত ২২ রোগীর মৃত্যু হয়েছে। ঠিক কী কারণে অক্সিজেন ট্যাঙ্ক লিক হয়েছে, তা এখনও স্পষ্ট নয়।

রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরে ওই ঘটনার তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন। একইসঙ্গে মুখ্যমন্ত্রীর দফতর থেকে প্রত্যেক ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারকে পাঁচ লাখ টাকা করে ক্ষতিপূরণ দেওয়া হবে বলে ঘোষণা করা হয়েছে।    

মহারাষ্ট্রের জাতীয়তাবাদী কংগ্রেস পার্টি (এনসিপি) নেতা মজিদ মেমন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টুইটারে এক বার্তায় বলেছেন, অক্সিজেন লিকের জন্য দায়ীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া উচিত। তিনি বলেন, নাসিকের ট্যাঙ্কার থেকে অক্সিজেন লিক হওয়ার কারণে বেশ কয়েক লিটার অক্সিজেনের ক্ষতি হওয়ার পাশাপাশি হাসপাতালে আতঙ্ক সৃষ্টি হয়েছে। ওই অবহেলার জন্য যে বা যারাই দায়ী তাদেরকে চিহ্নিত করে শাস্তি দেওয়া উচিত।  

গ্যাস দুর্ঘটনা

গণমাধ্যমে প্রকাশ, অক্সিজেন ট্যাঙ্কার লিক হওয়ার জেরে অক্সিজেন সরবরাহ বন্ধ হয়ে যায়। এরফলে ভেন্টিলেটারে থাকা রোগীরা মারা যান। প্রশাসনের পক্ষ থেকে ওই ঘটনার তদন্ত শুরু হয়েছে। ঘটনার সময় ওই হাসপাতালে ১৭১ জন রোগী ছিলেন। অন্য একটি সূত্রে প্রকাশ, হাসপাতালটিতে ১৫০ রোগী ভর্তি ছিল। এদের মধ্যে ২৩ জন ভেন্টিলেটারে ছিল। অন্যরা অক্সিজেনে ছিল। বলা হচ্ছে, হাসপাতালে অক্সিজেন ভরার সময় অক্সিজেন লিক হয়েছিল। ফায়ার ব্রিগেড দল ঘটনাস্থলে পৌঁছে অক্সিজেন ভালভ বন্ধ করে দেয়। পাইপলাইন লিক হওয়ার কারণে গুরুতর অসুস্থ রোগীদের বিভিন্ন হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়েছে।  

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ওই ঘটনাকে হৃদয় বিদারক বলে অভিহিত করে শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন।      

কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ বলেছেন, নাসিকের একটি হাসপাতালে অক্সিজেন লিক হওয়ার কারণে দুর্ঘটনার খবর শুনে আমি ব্যথিত। যারা ওই দুর্ঘটনায় তাদের প্রিয়জনকে হারিয়েছে তাদের অপূরণীয় ক্ষতিতে আমি গভীর শোক প্রকাশ করছি। আমি অন্যান্য রোগীদের সুস্থতার জন্য ঈশ্বরের কাছে প্রার্থনা করছি। 

পার্সটুডে/এমএএইচ/এনএম/ ২১

বিশ্বসংবাদসহ গুরুত্বপূর্ণ সব লেখা পেতে আমাদের ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে অ্যাকটিভ থাকুন। 

 

 

ট্যাগ