আগস্ট ২৮, ২০২১ ১৭:১৫ Asia/Dhaka

ভারতের পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী ও তৃণমূল সভানেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কেন্দ্রীয় সরকারকে টার্গেট করে বলেছেন, ‘বিজেপি সরকার তাণ্ডবের সরকার, দানবীয় সরকার, অমানবিক সরকার।’ তিনি আজ (শনিবার) তৃণমূল ছাত্র পরিষদের প্রতিষ্ঠা দিবস উপলক্ষে এক ভার্চুয়াল সভায় বক্তব্য রাখার সময়ে ওই মন্তব্য করেন।

মমতা বলেন, ‘যারা মানুষকে ভালবাসে না, যারা মানুষকে পেশিশক্তি নিয়োগ করে মানুষের কণ্ঠরোধ করে,  তারা আজকে সারা দেশকে বিক্রি করে দেওয়ার চেষ্টা করছে। আজকে দেশের রেল ষ্টেশন বলুন, পোষ্ট অফিস বলুন, বীমা বলুন, ব্যাঙ্ক বলুন, এয়ারপোর্ট বলুন, পাবলিক সেক্টর বলুন, সব নাকি বিক্রি করে দেবে! দেশের মাটি কখনও বিক্রি করা যায়? এগুলো বিক্রি করার মানে কী?’ 

তিনি বলেন, ‘ষ্টেশন দেশের সম্পত্তি, বিজেপির সম্পত্তি নয়।’ কেন্দ্রীয় সরকার ও বিজেপি’র বিরুদ্ধে প্রতিহিংসার রাজনীতি করার অভিযোগে হুঁশিয়ারি দিয়ে মমতা বলেন, ‘তুমি যদি একটা আঙুল দেখাও, তোমার জন্য দশটা  আঙুল রেডি আছে। আমি কিন্তু আজ পর্যন্ত প্রতিশোধমূলক পদক্ষেপ গ্রহণ করিনি। তোমাদের নেতারা অনেকে নারীঘটিত কাণ্ডে জড়িয়ে পড়েছে কিন্তু আমি আজ পর্যন্ত কাউকে গ্রেফতার করিনি। আজ পর্যন্ত আমি কারও বিরুদ্ধে কোনও কিছু করিনি।’  

মমতা তৃণমূল নেতাদের বিরুদ্ধে কেন্দ্রীয় সংস্থা এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেটকে (ইডি)ব্যবহার করার অভিযোগ করে বলেন, ‘তুমি একটা ‘ইডি’ দেখালে  আমি বস্তা ভর্তি করে কাগজ পাঠাব, আমরা দেখতে চাই যদি এসবের তদন্ত না হয় তাহলে আমরাও কোর্টে যাব। তুমি সব ম্যানেজ করবে? মনে রেখো সব ম্যানেজ করা অত সহজ নয়। আমি জীবনে এত প্রতিহিংসার রাজনীতি দেখিনি!’   

এদিনের ভার্চুয়াল সভায় তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় এমপি বিজেপির বিরুদ্ধে হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেন, ‘(বিজেপি  শাসিত) ত্রিপুরায় সবে খেলা শুরু হয়েছে। আরও অনেক রাজ্যে খেলা শুরু হবে। আর যতদিন এই বিজেপিকে ভারতের বুক থেকে উৎখাত করে ছুঁড়ে ফেলা না হচ্ছে, ততদিন তৃণমূল কংগ্রেসের লড়াই-আন্দোলন জারি থাকবে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নেতৃত্বে।’ এই লড়াই বাংলার মাটি থেকে শুরু হয়েছে, দিল্লির মাটিতে গিয়ে তা থামবে বলেও মন্তব্য করেন তৃণমূল নেতা অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় এমপি। #       

পার্সটুডে/ এমএএইচ/ বাবুল আখতার/আবুসাঈদ/২৮

বিশ্বসংবাদসহ গুরুত্বপূর্ণ সব লেখা পেতে আমাদের ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে অ্যাকটিভ থাকুন। 

ট্যাগ