সেপ্টেম্বর ১৫, ২০২১ ২০:২০ Asia/Dhaka
  • সিপিএম নেতা সুজন চক্রবর্তী
    সিপিএম নেতা সুজন চক্রবর্তী

ভারতের পশ্চিমবঙ্গের সিপিএম নেতা ড. সুজন চক্রবর্তী উত্তর প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী ও বিজেপির ফায়ারব্রান্ড নেতা যোগি আদিত্যনাথকে মূর্খ বলে কটাক্ষ করেছেন।

তিনি আজ (বুধবার) গণমাধ্যমে দেওয়া সাক্ষাৎকারে মুখ্যমন্ত্রীর তীব্র সমালোচনা করেন।

যোগি আদিত্যনাথ সম্প্রতি এক সভায় গরু-মহিষ ও ষাঁড়ের সঙ্গে নারীদের তুলনা করে বক্তব্য রাখায় সিপিএম নেতা সুজন চক্রবর্তী তার  কঠোর সমালোচনা ও কটাক্ষ করে বলেন, ‘অপগণ্ড, মূর্খ। এর থেকে কতটা মূর্খ একজন বিজেপি নেতা, মুখ্যমন্ত্রী হতে পারে আমার জানা নেই। ইনি গরু-ষাঁড়ের সঙ্গে নারীদের তুলনা করে কৃতিত্ব নেওয়ার চেষ্টা করছেন, নারীরা রাজ্যে কতটা সুরক্ষিত! এভাবে নারীদের অপমান করার  অধিকার কারও আছে?  যে বা যাঁরা এসব বলেন, তারা মুখ্যমন্ত্রী কেন মনুষ্য হওয়ার যোগ্য? এরা যতদিন ক্ষমতায় থাকবে, তত মানুষের বিপদ ও ভবিষ্যতের বিপদ।’  

উত্তর প্রদেশে আগামী বছর বিধানসভা নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। ইতোমধ্যেই যোগিরাজ্যে চড়তে শুরু করেছে রাজনৈতিক উত্তাপ। রাজধানী লক্ষনৌতে দলের সদর দফতরে কর্মীদের এক প্রশিক্ষণ শিবিরের আয়োজন করা হয়েছিল। সেখানে বক্তব্য রাখার সময়ে  যোগি আদিত্যনাথ রাজ্যে সুশাসনের কথা উল্লেখ করে বলেন,  ‘এরআগে আমাদের মেয়ে-বোনেরা নিরাপত্তাহীনতায় ভুগতেন। এমনকী, উত্তর প্রদেশের পশ্চিমভাগের রাস্তা দিয়ে যাওয়ার সময় ষাঁড় এবং মোষও নিরাপত্তার অভাব অনুভব করত। পরিস্থিতি এখন অনেক বদলে গেছে।’ এরপরেই উপস্থিত দলীয় কর্মীদের উদ্দেশে  মুখ্যমন্ত্রীর প্রশ্ন, ‘আপনারাই বলুন। এখন কী কোনও পরিবর্তন চোখে পড়ে? ষাঁড়, মোষ বা নারী-কাউকেই জোর করে তুলে নিয়ে যাওয়া হয় কি?’

মুখ্যমন্ত্রী আদিত্যনাথ রাজ্যে সাবেক সরকারের সমালোচনা করে বলেন, ‘আগে উত্তর প্রদেশকে লোকে চিনত রাস্তার গর্ত দিয়ে। যেখানে অন্ধকার-অপশাসন সেটাই উত্তর প্রদেশ। রাতে যে কেউ রাস্তায় বেরোতে ভয় পেত। এখন সবটাই বদলে গেছে’ বলেও মুখ্যমন্ত্রী যোগি আদিত্যনাথ মন্তব্য করেন। #

পার্সটুডে/এমএএইচ/আবুসাঈদ/১৫

বিশ্বসংবাদসহ গুরুত্বপূর্ণ সব লেখা পেতে আমাদের ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে অ্যাকটিভ থাকুন।

ট্যাগ