সেপ্টেম্বর ২২, ২০২১ ১৮:৫১ Asia/Dhaka
  • দিল্লিতে ওয়াইসির বাড়ি ভাঙচুরের ঘটনায় ৫ হিন্দু সেনা সদস্য গ্রেফতার

ভারতের মজলিশ-ই-ইত্তেহাদুল মুসলেমিন (মিম) প্রধান ব্যারিস্টার আসাদউদ্দিন ওয়াইসি এমপি’র দিল্লির সরকারি বাসভবনে ভাঙচুর করার অভিযোগে ৫ হিন্দু সেনা সদস্যকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। আজ (বুধবার) হিন্দি গণমাধ্যম ‘আজতক’ ওই তথ্য জানিয়েছে।

গণমাধ্যমে প্রকাশ, গতকাল (মঙ্গলবার) সন্ধ্যায় দিল্লির অশোকা রোডে অবস্থিত ‘মিম’ প্রধান ও হায়দরাবাদের সংসদ সদস্য আসাদউদ্দিন ওয়াইসির সরকারি বাসভবন ভাঙচুর করা হয়। বিক্ষোভকারীরা এ সময়ে ওয়াইসির বাড়ির বাইরে নেমপ্লেট, ল্যাম্প এবং জানালার কাচ ভেঙে দেয়। হামলার সময়ে আসাদউদ্দিন ওয়াইসি তাঁর বাসভবনে উপস্থিত ছিলেন না।

অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধির ৪২৭, ১৮৮ এবং সরকারি সম্পত্তির ক্ষতি প্রতিরোধ আইনের ৩ ধারার অধীনে সংসদ মার্গ থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। ওই ঘটনার সময়ে একটি ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে। এতে হিন্দু সেনার রাজ্য সভাপতি ললিত কুমার বলেন, তারা ওয়াইসির বাসায় গিয়ে তাঁকে 'সবক' শেখাতে গিয়েছিলেন কারণ তিনি তাঁর সমাবেশে হিন্দুদের বিরুদ্ধে কথা বলেন। এরপরে, সংগঠনের জাতীয় সভাপতি বিষ্ণু গুপ্তা বলেন, ওয়াইসির কথিত 'হিন্দু বিরোধী' বক্তব্যে তারা আহত হয়েছেন।  

অন্যদিকে, ভাঙচুর প্রসঙ্গে আসাদউদ্দিন ওয়াইসি এমপি বলেন, মানুষের মধ্যে মৌলবাদী তৎপরতা বেড়েছে এবং এর দায়ভার ভারতীয় জনতা পার্টি সরকারের উপর বর্তায়।  যদি একজন এমপি’র বাড়িতে হামলা হয়, তাহলে গোটা দেশ ও বিশ্বের কাছে কী বার্তা যাচ্ছে?

উত্তর প্রদেশে আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনে প্রথমবারের মতো মাঠে নামতে চলেছে ওয়াইসির দল ‘মিম’। দলটি রাজ্যের ১০০ টি আসনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এ জন্য দলের প্রধান আসাদউদ্দিন ওয়াইসি এমপি  খুবই সক্রিয় রয়েছেন এবং রাজ্যের বিভিন্ন স্থানে জনসভা করছেন।  হিন্দুত্ববাদীদের অভিযোগ, সভা-সমাবেশে  ওয়াইসি উত্তেজক বক্তব্য দিচ্ছেন। তাঁর এ ধরণের বক্তব্য দেওয়া বন্ধ করতে হবে।#

পার্সটুডে/এমএএইচ/এমবিএ/২২

বিশ্বসংবাদসহ গুরুত্বপূর্ণ সব লেখা পেতে আমাদের ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে অ্যাকটিভ থাকুন।

ট্যাগ