অক্টোবর ১৩, ২০২১ ১৯:৪৮ Asia/Dhaka
  • 'চীন ও পাকিস্তানের মোকাবিলায় কঠোর পদক্ষেপ গ্রহণ না করা হলে ভারতের অস্তিত্ব বিপন্ন হতে পারে'

ভারতের হিন্দুত্ববাদী দল শিবসেনা কেন্দ্রীয় নরেন্দ্র মোদী সরকারকে হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেছে, চীন ও পাকিস্তানের মোকাবিলায় কঠোর পদক্ষেপ গ্রহণ না করা হলে ভারতের অস্তিত্ব বিপদে পড়তে পারে। আজ (বুধবার) হিন্দি গণমাধ্যম ‘জনসত্তা’ ওই তথ্য জানিয়েছে।

শিবসেনা বলেছে, দুই প্রতিবেশী দেশ প্রতিনিয়ত একত্রিত হচ্ছে। উভয়ের অভিপ্রায় একইরকম এবং অনুপ্রবেশ ও সহিংসতার ঘটনাও আজকাল বেড়েছে। সেজন্য এখন আলোচনার সময় নয়, এখন সরাসরি পদক্ষেপ গ্রহণ করতে হবে।

শিবসেনার মুখপত্র 'সামানা'র সম্পাদকীয়তে ভারতীয় জনতা পার্টির (বিজেপি) নাম না উল্লেখ করে তাদেরকে ‘রাজনৈতিক ইস্ট ইন্ডিয়া কোম্পানি’ হিসেবে অভিহিত করে বলা হয়েছে, চীন ক্রমাগত অনুপ্রবেশ করছে এবং ভারত আলোচনায় ব্যস্ত। দলটি চীনকে ‘অগ্রণী সাম্রাজ্যবাদী রাষ্ট্র’ হিসেবেও বর্ণনা করেছে।

সম্প্রতি জম্মু-কাশ্মীরে হিন্দু ও শিখদের উপর আক্রমণের পটভূমিতে ‘সামনা’র সম্পাদকীয়তে বলা হয়েছে, নরেন্দ্র মোদীর সরকার কেন্দ্রীয় সরকারে ক্ষমতাসীন রয়েছে এবং হিন্দুরা উপত্যকা থেকে পালিয়ে যাচ্ছে। এটি বিজেপির মতো একটি দলের জন্য শোভনীয় নয়, যারা হিন্দুত্ববাদকে সমর্থন করে। শিবসেনা বলেছে, প্রধানমন্ত্রী, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী এবং প্রতিরক্ষামন্ত্রীর এ  ধরনের মানুষদের কষ্ট বোঝা উচিত।

ভারত ও চীনের সেনাবাহিনীর মধ্যে চলমান অচলাবস্থার কথা উল্লেখ করে শিবসেনা বলেছে ওই ইস্যুতে ১৩ দফা আলোচনা হয়েছে, কিন্তু সবই ব্যর্থ  হয়েছে।

সম্পাদকীয়তে দাবি করা হয়েছে, কাশ্মীরে পাকিস্তানের প্রত্যেকটি কাজে চীনের সমর্থন রয়েছে। আফগানিস্তানে ক্ষমতায় থাকা অগণতান্ত্রিক শক্তির প্রতিও চীনের সমর্থন রয়েছে। যদি সরকার কঠোর পদক্ষেপ গ্রহণ না করে, তাহলে চীন ও পাকিস্তান একত্রিত হয়ে ভারতের অস্তিত্বের জন্য হুমকি হয়ে দাঁড়াবে। দেশের 'পলিটিক্যাল ইস্ট ইন্ডিয়া কোম্পানি'র এটা বোঝা উচিত বলেও শিবসেনার পক্ষ থেকে বিজেপি’র নাম না করে তাদেরকে কটাক্ষ করা হয়েছে।#

 

পার্সটুডে/এমএএইচ/এমবিএ//১৩

বিশ্বসংবাদসহ গুরুত্বপূর্ণ সব লেখা পেতে আমাদের ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে অ্যাকটিভ থাকুন।

 

  

 

ট্যাগ