ডিসেম্বর ১৮, ২০২১ ০৮:২২ Asia/Dhaka
  • আইএইএ’র মহাসচিব রাফায়েল গ্রোসি
    আইএইএ’র মহাসচিব রাফায়েল গ্রোসি

ইরানের একটি পরমাণু স্থাপনায় আইএইএ’র স্থাপিত একটি ক্যামেরার হার্ড ডিস্ক হারিয়ে গেছে বলে যে অভিযোগ এই আন্তর্জাতিক সংস্থা করেছে তার জবাব দিয়েছে ইরান। আন্তর্জাতিক আণবিক শক্তি সংস্থা বা আইএইএ’র মহাসচিব রাফায়েল গ্রোসি শুক্রবার অভিযোগ করেছিলেন, ইরানের ‘কারাজ’ পরমাণু স্থাপনার একটি ক্লোজ সার্কিট ক্যামেরায় ধারণকৃত ছবি পাওয়া যাচ্ছে না।

তার ওই অভিযোগের জবাবে ইরানের নাম প্রকাশি অনিচ্ছুক একটি নির্ভরযোগ্য সূত্র বার্তা সংস্থা ‘নূরনিউজ’কে বলেছে, গ্রোসি যে ক্যামেরাটির কথা বলেছেন নাশকতামূলক তৎপরতার কারণে সেটির হার্ড ডিস্ক ধ্বংস হয়ে গেছে। সূত্রটি বলেছে, জবাব তো  উল্টো আইএইএ’র দেয়া উচিত কারণ, তারা কেন সুনির্দিষ্ট একটি উৎস থেকে চালানো নাশকতামূলক তৎপরতা প্রতিহত করতে পারছে না।

ইরানের ‘কারাজ’ পরমাণু স্থাপনা (ফাইল ছবি)

ইরানের সূত্রটি বলেছে, আইএইএ শুধু পরমাণু স্থাপনাগুলোতে নজরদারি করে না সেইসঙ্গে পরমাণু স্থাপনাগুলো রক্ষা করাও তার দায়িত্ব। কাজেই ইরানের পরমাণু স্থাপনাগুলোতে চালানো নাশকতামূলক তৎপরতা প্রতিহত করতে ব্যর্থতার দায় আইএইএ’কেই নিতে হবে।

জাতিসংঘের পরমাণু তদারকি বিষয়ক সংস্থা আইএইএ’র তত্ত্বাবধানে ইরানের পরমাণু কর্মসূচি পরিচালিত হয় এবং সবগুলো পরমাণু স্থাপনায় আইএইএ’র সিসিটিভি ক্যামেরা স্থাপন করা আছে। তবে এসব পরমাণু স্থাপনায় মাঝেমধ্যে সাইবার হামলার মাধ্যমে নাশকতামূলক তৎপরতা চালানো হয় এবং ইরান এজন্য ইহুদিবাদী ইসরাইলকে অভিযুক্ত করে আসছে।#

পার্সটুডে/এমএমআই/১৮

বিশ্বসংবাদসহ গুরুত্বপূর্ণ সব লেখা পেতে আমাদের ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে অ্যাকটিভ থাকুন।

 

ট্যাগ