জানুয়ারি ২০, ২০২২ ১৮:৩৭ Asia/Dhaka
  • রুশ সংসদে ভাষণ দিচ্ছেন প্রেসিডেন্ট ইবরাহিম রায়িসি 
    রুশ সংসদে ভাষণ দিচ্ছেন প্রেসিডেন্ট ইবরাহিম রায়িসি 

ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরানের প্রেসিডেন্ট সাইয়্যেদ ইবরাহিম রায়িসি বলেছেন, বিভিন্ন দেশের প্রতি বিরোধের কারণে আমেরিকা এখন সবচেয়ে দুর্বল অবস্থানে রয়েছে। ইরান এবং রাশিয়ার মতো স্বাধীনচেতা কয়টি দেশের প্রতিরোধের কারণে আমেরিকার আধিপত্যকামী কৌশল এখন বিশৃঙ্খল হয়ে পড়েছে।

রাশিয়ার জাতীয় সংসদের নিম্ন কক্ষ দুমায় আজ (বৃহস্পতিবার) দেয়া ভাষণে এসব কথা বলেছেন প্রেসিডেন্ট রায়িসি। তিনি বলেন, একদিকে আমেরিকার আধিপত্যবাদী কৌশল দুর্বল হয়েছে, অন্যদিকে স্বাধীনতাকামী দেশগুলোর শক্তি ঐতিহাসিকভাবে বেড়েছে। তারপরও গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হচ্ছে- মার্কিনিদের আধিপত্য শেষ হয়ে যায় নি বরং তারা নতুন আঙ্গিকে চেষ্টা শুরু করেছে। এই ব্যাপারে স্বাধীনচেতা দেশগুলোকে সজাগ থাকতে হবে।

ইরানের প্রেসিডেন্ট সুস্পষ্টভাবে বলেন, আধিপত্যবাদের ওপর ভিত্তি করে গড়ে ওঠা আন্তর্জাতিক ব্যবস্থা যুদ্ধ, সহিংসতা, নিরাপত্তাহীনতা এবং বিশ্বের বিভিন্ন দেশের মধ্যে বিভক্তি ছাড়া আর কিছু দিতে পারে নি। সন্ত্রাসীদের সঙ্গে আমেরিকার শয়তানি ঐক্য সারা বিশ্ব বিশেষ করে পশ্চিম এশিয়া এবং সিরিয়া থেকে আফগানিস্তানের জনগণের কাছে একদম পরিষ্কার। প্রেসিডেন্ট রায়িসি ককেশাস অঞ্চল থেকে মধ্য এশিয়া পর্যন্ত উগ্র তাকফিরি সন্ত্রাসীদের পাঠানোর ব্যাপারে মার্কিন জটিল ষড়যন্ত্র সম্পর্কে সতর্ক করে বলেন, একমাত্র খাঁটি ইসলামী চিন্তাধারা উগ্রবাদ ও তাকফিরি সন্ত্রাসবাদ সৃষ্টি ঠেকাতে করতে পারে।

ভাষণ দিচ্ছেন প্রেসিডেন্ট রায়িসি 

প্রেসিডেন্ট রায়িসি তার ভাষণে বলেন, সারা বিশ্বের সব দেশ বিশেষ করে প্রতিবেশী দেশগুলোর সঙ্গে সর্বোচ্চ সম্পর্ক রক্ষার ব্যাপারে ইরান প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। এই সম্পর্কের লক্ষ্য এবং ভিত্তি হবে সহযোগিতা ও পারস্পারিক স্বার্থ। তিনি বলেন, দিনদিন একটি সভ্য আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় গড়ে উঠেছে, এই সম্প্রদায়ের লক্ষ্য অর্জনের জন্য বিশ্বের স্বাধীনতাকামী দেশগুলোর মধ্যে সহযোগিতা, সাংস্কৃতিক বিনিময়, ন্যায়বিচার, নৈতিকতা ও আধ্যাত্মিকতা প্রয়োজন।

রাশিয়ার সঙ্গে সম্পর্ক বাড়ানোর ইচ্ছা এবং প্রস্তুতির কথা উল্লেখ করে প্রেসিডেন্ট রায়িসি বলেন, তেহরান এবং মস্কোর মধ্যে দ্বিপক্ষীয় আঞ্চলিক ও আন্তর্জাতিক পর্যায়ে সহযোগিতার দিগন্ত সুস্পষ্ট।

ভাষণ দিচ্ছেন প্রেসিডেন্ট রায়িসি 

তিনি বলেন, ইরান ও রাশিয়ার মধ্যকার দ্বিপক্ষীয় সম্পর্ক জোরদার করার মধ্যদিয়ে নিজেরা যেমন অর্থনৈতিক শক্তিশালী অবস্থান তৈরি করতে পারে তেমনি আঞ্চলিক ও আন্তর্জাতিক নিরাপত্তার ক্ষেত্রে জোরালো ভূমিকা রাখতে পারে। সিরিয়ায় সন্ত্রাসবাদ মোকাবেলার ক্ষেত্রে ইরান ও রাশিয়া সহযোগিতার নতুন দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে বলে তিনি মন্তব্য করেন।

রুশ সংসদে দেয়া ভাষণে প্রেসিডেন্ট রায়িসি আরো বলেন, বিভিন্ন দেশের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ নতুন আধিপত্যকামিতার একটি অভিন্ন রূপ। একে মোকাবেলা করতে হলে স্বাধীনতাচেতা দেশগুলোর মধ্যে সম্মিলিত সহযোগিতা প্রয়োজন। তা না হলে এই নিষেধাজ্ঞা সমস্ত দেশকে ক্ষতিগ্রস্ত করবে এমনকি নানা অজুহাতে মার্কিন মিত্ররাও ক্ষতিগ্রস্ত হবে।#

পার্সটুডে/এসআইবি/২০

ট্যাগ