মে ১৬, ২০২২ ১০:২৮ Asia/Dhaka
  • ইরানের ন্যাশনাল গ্যাস কোম্পানির ব্যবস্থাপনা পরিচালক মাজিদ চেগিনি
    ইরানের ন্যাশনাল গ্যাস কোম্পানির ব্যবস্থাপনা পরিচালক মাজিদ চেগিনি

ইরাক ও তুরস্ক ইরানের কাছ থেকে গ্যাস আমদানির পরিমাণ বাড়ানোর আবেদন জানিয়েছে। ইরানের ন্যাশনাল গ্যাস কোম্পানির ব্যবস্থাপনা পরিচালক মাজিদ চেগিনি এ খবর জানিয়ে বলেছেন, গত কয়েক মাসে প্রতিবেশী ইরাক ও তুরস্কে লাইপলাইনের মাধ্যমে গ্যাস সরবরাহ বাড়ানো হয়েছে; কিন্তু এই দুই দেশের আরো বেশি গ্যাস প্রয়োজন।

চেগিনি বলেন, ইরাক ও তুরস্কে গ্যাস রপ্তানির চুক্তি নবায়ন করার ব্যাপারে ওই দুই দেশের সঙ্গে আলোচনা চলছে। আলোচনায় তারা গ্যাসের অতিরিক্ত চাহিদার কথা তুলে ধরেছে। ইরানের ন্যাশনাল গ্যাস কোম্পানির ব্যবস্থাপনা পরিচালক বলেন, তার দেশের গ্যাসের মজুদের প্রতি লক্ষ্য রেখে বাগদাদ ও আঙ্কারার আবেদন বিবেচনা করে দেখা হচ্ছে।

ইরান-তুরস্ক গ্যাস পাইপলাইন (ফাইল ছবি)

মাজিদ চেগিনি জানান, চলতি বছর তুরস্কের সঙ্গে এবং ২০২৩ সালে ইরাকের সঙ্গে এর আগে স্বাক্ষরিত গ্যাস চুক্তির মেয়াদ শেষ হবে। এসব চুক্তি নবায়নের পাশাপাশি আজারবাইজান এবং আর্মেনিয়ায়ও গ্যাস সরবরাহ বৃদ্ধি করবে তেহরান।

আমেরিকার ‘সর্বোচ্চ চাপ প্রয়োগের’ নীতির আওতায় ইরানের তেল ও গ্যাস রপ্তানির ওপর কঠোর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে রেখেছে ওয়াশিংটন। কিন্তু নিষেধাজ্ঞাকে পাশ কাটিয়ে সব রকম জ্বালানী পরিকল্পনা অনুযায়ী রপ্তানি করে যাচ্ছে তেহরান। ইরানের উপ পররাষ্ট্রমন্ত্রী আলী বাকেরি কানি বলেছেন, তার দেশ বিশেষ প্রক্রিয়ায় আমেরিকার নিষেধাজ্ঞা অকার্যকর করে দিয়েছে। এই কাজে তার দেশ এতটা সাফল্য অর্জন করেছে যে, নিষেধাজ্ঞার শিকার অন্যান্য দেশও এখন ইরানের অভিজ্ঞতা কাজে লাগাতে চায়।#

পার্সটুডে/এমএমআই/১৬

বিশ্বসংবাদসহ গুরুত্বপূর্ণ সব লেখা পেতে আমাদের ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে অ্যাকটিভ থাকুন।

 

ট্যাগ