জুন ২৭, ২০২২ ০৯:১৫ Asia/Dhaka
  • কাজেম গরিবাবাদি
    কাজেম গরিবাবাদি

ইরানের বিচার বিভাগের মানবাধিকার বিষয়ক অধিদপ্তরের সচিব কাজেম গরিবাবাদি বলেছেন, মানবাধিকারের কথিত প্রবক্তা আমেরিকার মানবাধিকার লঙ্ঘন নিয়ে কথা বলার সাহস কেউ দেখাতে পারছে না।

সম্প্রতি আমেরিকায় বিক্ষোভকারীদের সঙ্গে পুলিশের সহিংস আচরণের একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে। এতে দেখা যায়, পুলিশ বিক্ষোভকারীদের বেধড়ক মারধর করছে। এ সময় একজন সাংবাদিক পুলিশের এ নির্দয় আচরণের ছবি তুলতে গেলে তাকেও নির্মমভাবে পেটায় মার্কিন পুলিশ।

২০২০ সালে এভাবে হাতকড়া পরা আটক কৃষ্ণাঙ্গ যুবক জর্জ ফ্লয়েডকে নির্মমভাবে হত্যা করে মার্কিন পুলিশ

এর আগে ২০২০ সালে আমেরিকায় নিরস্ত্র একজন কৃষ্ণাঙ্গ ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করার পর একজন পুলিশ অফিসার হাঁটু দিয়ে তার গলা চেপে হত্যা করে। একজন পথচারী ওই দৃশ্য ভিডিও করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছেড়ে দেয়ার পর  আমেরিকায় সংখ্যালঘু বর্ণ সম্প্রদায়ের বিরুদ্ধে পুলিশের নৃশংসতা নিয়ে সমালোচনার ঝড় ওঠে। এক পরিসংখ্যানে দেখা গেছে, প্রতি বছর মার্কিন পুলিশের গুলিতে গড়ে অন্তত এক হাজার মানুষ নিহত হয়।

এ সম্পর্কে কাজেম গরিবাবাদি রোববার নিজের টুইটার পেজে দেয়া এক পোস্টে লিখেছেন, “মার্কিন পুলিশকে কখনোই তাদের পাশবিক আচরণের জন্য জবাবদিহী করতে হয় না। সহিংস আচরণ, অতিরিক্ত বলপ্রয়োগ এবং যেকোনো ধরনের প্রতিবাদের বিরুদ্ধে নৃশংসভাবে দমন অভিযান চালানোর ক্ষেত্রে মার্কিন পুলিশের জুড়ি নেই।কিন্তু মানবাধিকারের কথিত প্রবক্তা এই দেশটির মানবাধিকার লঙ্ঘন সম্পর্কে মুখ খোলার সাহস কেউ দেখাতে পারছে না।”#

পার্সটুডে/এমএমআই/২৭

বিশ্বসংবাদসহ গুরুত্বপূর্ণ সব লেখা পেতে আমাদের ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে অ্যাকটিভ থাকুন।

ট্যাগ