জুলাই ০২, ২০২২ ০৬:০৬ Asia/Dhaka
  • পারস্য উপসাগরে নোঙ্গর করা একটি ইরানি তেল ট্যাংকার (ফাইল ছবি)
    পারস্য উপসাগরে নোঙ্গর করা একটি ইরানি তেল ট্যাংকার (ফাইল ছবি)

তেল রপ্তানিকারক দেশগুলোর সংস্থা ওপেক বলেছে, ২০২১ সালে এই সংস্থার তেল খাতে আয় শতকরা ৭৭ ভাগ বৃদ্ধি পেয়েছে। একইসঙ্গে এটি আরও বলেছে, ওই বছর ইরান তেল রপ্তানি করে ২৫ বিলিয়ন মার্কিন ডলার আয় করেছে।

অপরিশোধিত তেল রপ্তানিকারক দেশগুলোর সংস্থাটি গতকাল (শুক্রবার) তার বার্ষিক প্রতিবেদন প্রকাশ করে এ তথ্য জানিয়েছে। এটি বলেছে, গত বছর তেল রপ্তানি করে সংস্থাভুক্ত দেশগুলো ৫৬০ বিলিয়ন ডলার আয় করেছে যা তার আগের বছরের তুলনায় শতকরা ৭৭ ভাগ বেশি।

২০২০ সালে ১৩ সদস্যবিশিষ্ট ওপেক তেল খাতে আয় করেছিল মাত্র ৩১৭ বিলিয়ন ডলার। প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ইরান ২০২১ সালে তেল রপ্তানি করে ২৫ বিলিয়ন ৩১৩ মিলিয়ন ডলার আয় করেছে। ২০২০ সালের তুলনায় ইরানের এই আয় ছিল তিন গুণেরও বেশি। ২০২০ সালে ইরান মাত্র ৭ বিলিয়ন ৯১৪ মিলিয়ন ডলারের তেল রপ্তানি করেছিল।

ওপেক এমন সময় ইরানের তেল বিক্রির এই পরিসংখ্যান তুলে ধরল যখন তেহরানের ওপর আমেরিকার কঠোর নিষেধাজ্ঞা বহাল রয়েছে। আমেরিকার সাবেক প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের প্রশাসন বলেছিল, ইরানের তেল বিক্রি শূন্যের কোঠায় নামিয়ে আনা হবে। তবে তেহরানও ঘোষণা দিয়েছিল, দেশটি যতটুকু পরিমাণ তেল রপ্তানি করতে চাইবে তা আটকানোর সাধ্য কারো নেই। বর্তমান জো বাইডেন প্রশাসন ট্রাম্প প্রশাসনের ইরান নীতি হুবহু অনুসরণ করে যাচ্ছে।#

পার্সটুডে/এমএমআই/২

বিশ্বসংবাদসহ গুরুত্বপূর্ণ সব লেখা পেতে আমাদের ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে অ্যাকটিভ থাকুন।

 

ট্যাগ