জুলাই ২৭, ২০২২ ০৬:১৬ Asia/Dhaka
  • শেখ আহমাদ নাসের আস-সাবাহ - হোসেইন আমির-আব্দুল্লাহিয়ান
    শেখ আহমাদ নাসের আস-সাবাহ - হোসেইন আমির-আব্দুল্লাহিয়ান

ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী হোসেইন আমির-আব্দুল্লাহিয়ান বলেছেন, মার্কিন সরকার বাস্তববাদী হলে ইরানের পরমাণু সমঝোতা আবার কার্যকর করার ব্যাপারে একটি ভালো, শক্তিশালী ও টেকসই চুক্তি স্বাক্ষর করা সম্ভব। মঙ্গলবার রাতে কুয়েতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী শেখ আহমাদ নাসের আস-সাবাহর সঙ্গে এক টেলিফোনালাপে তিনি ওয়াশিংটনের প্রতি এ আহ্বান জানান। ইরান পরমাণু সমঝোতায় নিজের দেয়া প্রতিশ্রুতি মেনে চলছে বলেও জানান আব্দুল্লাহিয়ান।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের প্রশাসন ইরানের পরমাণু সমঝোতায় আমেরিকাকে ফিরিয়ে আনা হবে বলে প্রতিশ্রুতি দিয়েছে। কিন্তু বাস্তবে ওই প্রশাসন এ ব্যাপারে কার্যকর কোনো পদক্ষেপ নিতে ব্যর্থ হয়েছে।

পরমাণু সমঝোতা পুনরুজ্জীবনের লক্ষ্যে ২০২১ সালের এপ্রিল মাস থেকে আমেরিকার পরোক্ষ উপস্থিতিতে পাশ্চাত্যের সঙ্গে ইরানের ধারাবাহিক আলোচনা চলছে।ওই আলোচনায় অংশগ্রহণকারী দেশগুলো দ্রুততম সময়ের মধ্যে একটি চুক্তিতে উপনীত হতে চাইলেও কিছু বিষয়ে আমেরিকা রাজনৈতিক সিদ্ধান্ত নিতে গড়িমসি করায় তা সম্ভব হচ্ছে না।

কুয়েতের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে টেলিফোনালাপে আব্দুল্লাহিয়ান এ সম্পর্কে বলেন, ইরান আশা করছে আলোচনার সফল ইতি টানার জন্য আমেরিকা বাস্তবসম্মত পদক্ষেপ গ্রহণ করবে।

টেলিফোনালাপে দ্বিপক্ষীয় বিষয়েও কথা বলেন ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী। ইরান ও কুয়েতের মধ্যে বিভিন্ন যৌথ কমিটি আবার কার্যকর হওয়ায় সন্তোষ প্রকাশ করেন আব্দুল্লাহিয়ান। তিনি কুয়েতের পররাষ্ট্রমন্ত্রীকে তেহরান সফরের আমন্ত্রণ জানিয়ে বলেন, দ্বিপক্ষীয় যোগাযোগ ও সফর যত বাড়বে ইরান ও কুয়েতের মধ্যকার সম্পর্ক তত বেশি শক্তিশালী হবে।

এ সময় কুয়েতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী নাসের আস-সাবাহ মধ্যপ্রাচ্যের দেশগুলোর সঙ্গে সম্পর্ক শক্তিশালী করার ইরানি প্রচেষ্টাকে স্বাগত জানান। তিনি বলেন, কুয়েত সরকারও সব সময় ইরানের সঙ্গে সম্পর্ক শক্তিশালী করতে আগ্রহী ছিল এবং এ লক্ষ্যেই তেহরানে নতুন রাষ্ট্রদূত নিয়োগ দেয়া হয়েছে।তিনি ইরান সফরের আমন্ত্রণ গ্রহণ করে বলেন, সম্ভাব্য দ্রুততম সময়ের মধ্যে তিনি তেহরান সফর করবেন।#

পার্সটুডে/এমএমআই/২৭

বিশ্বসংবাদসহ গুরুত্বপূর্ণ সব লেখা পেতে আমাদের ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে অ্যাকটিভ থাকুন।

ট্যাগ