আগস্ট ০৯, ২০২২ ০৮:০০ Asia/Dhaka
  • যেকোনো চুক্তিতে ইরানি জনগণের স্বার্থ নিশ্চিত করতে হবে: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী হোসেইন আমির-আব্দুল্লাহিয়ান বলেছেন, পরমাণু সমঝোতা পুনরুজ্জীবনের চূড়ান্ত চুক্তিতে তার দেশের ওপর থেকে কার্যকরভাবে সব নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার এবং ইরানি জনগণের অধিকার ও স্বার্থ নিশ্চিত করতে হবে। তিনি সোমবার রাতে ইউরোপীয় ইউনিয়নের পররাষ্ট্রনীতি বিষয়ক প্রধান কর্মকর্তা জোসেপ বোরেলের সঙ্গে এক টেলিফোনালাপে ইরানের এ অবস্থানের কথা তুলে ধরেন।

ভিয়েনায় গত তিন ধরে চলা আলোচনায় ইরানের পরমাণু সমঝোতা পুনরুজ্জীবনের চুক্তির খসড়া ‘চূড়ান্ত হয়েছে’ বলে পশ্চিমা গণমাধ্যমে খবর প্রকাশিত হওয়ার পর এ টেলিফোনালাপ অনুষ্ঠিত হয়।

পশ্চিমা গণমাধ্যমগুলো জানায়, ২০২১ সালের মার্চ মাস থেকে শুরু হওয়া আলোচনার মূল বিষয়বস্তুগুলো নিয়ে জোসেপ বোরেল সম্প্রতি যে খসড়া তৈরি করেছিলেন সেটিকে ‘চূড়ান্ত চুক্তি’ হিসেবে নির্ধারণ করা হয়েছে। এবার এই খসড়া তেহরান অনুমোদন করলেই চুক্তি সই হবে। ভিয়েনায় গত তিনদিনের আলোচনায় অংশ নেন ইরানের উপ পররাষ্ট্রমন্ত্রী ও প্রধান পরমাণু আলোচক আলী বাকেরি।

ভিয়েনায় গত তিনদিনের আলোচনায় অংশ নেন ইরানের উপ পররাষ্ট্রমন্ত্রী ও প্রধান পরমাণু আলোচক আলী বাকেরি

তবে চুক্তির চূড়ান্ত খসড়া তৈরি হয়েছে বলে পশ্চিমা গণমাধ্যমের দাবি সম্পর্কে ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেছেন, তার দেশের স্বার্থ রক্ষিত না হওয়া পর্যন্ত তেহরান চুক্তিতে সই করবে না।

তিনি পরমাণু সমঝোতা পুনরুজ্জীবনের লক্ষ্যে আন্তরিক প্রচেষ্টা চালানোর জন্য বোরেলকে ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, যেটিকে চূড়ান্ত চুক্তি বলে ধরা হচ্ছে সেটির ব্যাপারে তেহরানের আপত্তির জায়গাগুলো গত তিনদিনের আলোচনায় তুলে ধরা হয়েছে। এখন বাকি পক্ষগুলো এ ব্যাপারে ছাড় দিলেই চূড়ান্ত চুক্তি সই করা সম্ভব হবে। আমির-আব্দুল্লাহিয়ান স্পষ্ট করে বলেন, আমেরিকা অগঠনমূলক অবস্থান পরিত্যাগ করে বাস্তবসম্মত দৃষ্টিভঙ্গি গ্রহণ করলে চুক্তি সই করা কঠিন হবে না।

টেলিফোনালাপে বোরেল বলেন, এবারের আলোচনায় তুলনামূলক ভালো অগ্রগতি অর্জিত হয়েছে এবং এ আলোচনার ব্যাপারে তার মূল্যায়ন ইতিবাচক। শিগগিরই ইরানের পরমাণু সমঝোতা পুনরুজ্জীবনের চুক্তি স্বাক্ষর করা সম্ভব হবে বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন।#

পার্সটুডে/এমএমআই/৯

বিশ্বসংবাদসহ গুরুত্বপূর্ণ সব লেখা পেতে আমাদের ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে অ্যাকটিভ থাকুন।

 

ট্যাগ