আগস্ট ০৯, ২০২২ ০৮:০৯ Asia/Dhaka
  • ইরানের ফার্স্ট ভাইস প্রেসিডেন্ট মোহাম্মাদ মোখবের
    ইরানের ফার্স্ট ভাইস প্রেসিডেন্ট মোহাম্মাদ মোখবের

ইরানের ফার্স্ট ভাইস প্রেসিডেন্ট মোহাম্মাদ মোখবের অবরুদ্ধ গাজা উপত্যকায় ইহুদিবাদী ইসরাইলের সর্বসাম্প্রতিক আগ্রাসনের নিন্দা জানিয়ে বলেছেন, এই আগ্রাসন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের সাম্প্রতিক মধ্যপ্রাচ্য সফরের ফসল।

তিনি গতকাল (সোমবার) তেহরানে আশুরার একটি শোকানুষ্ঠানে অংশগ্রহণের অবকাশে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে এ মন্তব্য করেন। মোখবের বলেন, ইহুদিবাদী ইসরাইলের অভ্যন্তরীণ সংকট ও চ্যালেঞ্জ বেড়ে যাওয়ার কারণে তারা বেপরোয়া আচরণ শুরু করেছে। তবে তাদের এ পাশবিক আচরণে মুসলমানদের মধ্যে ঐক্য শক্তিশালী হওয়ার পাশাপাশি ফিলিস্তিনি প্রতিরোধ আন্দোলনগুলো আরো শক্তিমত্তা অর্জন করবে।

ইরানের ফার্স্ট ভাইস প্রেসিডেন্ট বলেন, সংঘাত শুরু হওয়ার তিন দিনের মাথায় যুদ্ধবিরতি প্রতিষ্ঠার জন্য ইহুদিবাদী ইসরাইল, তার আঞ্চলিক ও আন্তর্জাতিক মিত্রদের তাড়াহুড়ো থেকে বোঝা যায়, প্রতিরোধ আন্দোলনগুলোর পাল্টা হামলায় তেল আবিব দিশেহারা হয়ে পড়েছিল।

গাজায় ইসরাইলি আগ্রাসনে নিহতদের স্বজনদের বিলাপ (রোববারের ছবি)

সশস্ত্র প্রতিরোধ আন্দোলনকে ফিলিস্তিনি জাতির অধিকার আদায়ের একমাত্র উপায় হিসেবে বর্ণনা করে মোখবের বলেন, এই আন্দোলনের মাধ্যমে অচিরেই আল-আকসা মসজিদসহ গোটা ফিলিস্তিনি ভূখণ্ড ইহুদিবাদীদের দখলমুক্ত হবে বলে তেহরান আশা করছে। তিনি বলেন, তেহরান ফিলিস্তিনি জনগণের ন্যায়সঙ্গত অধিকার আদায়ের প্রশ্নে চিরকাল তাদের পাশে থাকবে।

বর্ণবাদী ইসরাইলি সেনারা গত শুক্রবার গাজা উপত্যকার বিভিন্ন স্থানে বিমান হামলা শুরু করে। তিনদিন ধরে চলা এ পাশবিক হামলায় ১৫ শিশু ও দুই নারীসহ ৪৪ ফিলিস্তিনি শহীদ এবং ৩৬০ জন আহত হন। একইসঙ্গে ফিলিস্তিনের ইসলামি জিহাদ আন্দোলন গাজা থেকে ইসরাইলের বিভিন্ন স্থাপনা লক্ষ্য করে কয়েকশ’ রকেট নিক্ষেপ করে। অবশেষে রোববার রাতে ইসলামি জিহাদ আন্দোলন ঘোষণা করে, মিশরের মধ্যস্থতায় তেল আবিবের সঙ্গে তাদের যুদ্ধবিরতি কার্যকর হয়েছে।#

পার্সটুডে/এমএমআই/৯

বিশ্বসংবাদসহ গুরুত্বপূর্ণ সব লেখা পেতে আমাদের ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে অ্যাকটিভ থাকুন।

 

ট্যাগ