সেপ্টেম্বর ১৪, ২০২২ ১৮:৪৪ Asia/Dhaka
  • ট্রাম্প
    ট্রাম্প

জেনারেল কাসেম সোলাইমানিকে হত্যার ঘটনায় ইরানের পক্ষ থেকে প্রতিশোধমূলক হামলার ভয়ে ছিলেন সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। তিনি একথা তার ঘনিষ্ঠ একজন বন্ধুর কাছে বলেছেন।

২০২০ সালের ৩ জানুয়ারি বাগদাদ আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের কাছে ড্রোন থেকে ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালিয়ে জেনারেল কাসেম সোলাইমানিকে শহীদ করে সন্ত্রাসী মার্কিন সেনারা। সে সময় মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প বলেছিলেন, তিনি কাসেম সোলাইমানিকে হত্যার সরাসরি নির্দেশ দিয়েছিলেন।

এই ঘটনার পাঁচ দিন পর ইরানের সামরিক বাহিনী ইরাকে মার্কিন সামরিক ঘাঁটি আইন আল-আসাদে ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালায়। একইদিন কুর্দিস্তানের এরবিলে অবস্থিত আরেকটি মার্কিন ঘাঁটিতেও হামলা চালায় ইরান। তেহরান সে সময় বলেছিল, এটি হচ্ছে সোলাইমানি হত্যার প্রতিশোধ হিসেবে মার্কিনদের মুখে দেয়া প্রথম থাপ্পড় এবং প্রতিশোধ নেয়া শেষ হয়ে যায় নি।

ূগ

মার্কিন সন্ত্রাসী হামলায় শহীদ হন দুই বীর কমান্ডার

এসব বিষয় নিয়ে মার্কিন লেখক পিটার বকের ও সুসান গ্ল্যাসের তাদের নতুন বই “দি ডিভাইডার” এ বলেছেন, ট্রাম্প তার ফ্লোরিডার কয়েকজন বন্ধুকে বলছিলেন যে, তিনি ভয় পাচ্ছেন ইরান হয়ত প্রতিশোধ হিসেবে তাকে হত্যার চেষ্টা করতে পারে।

বইটিতে বলা হয়েছে, একটি ককটেল পার্টিতে ট্রাম্প তার কয়েকজন ফ্লোরিডার বন্ধুকে বলেছিলেন, “তিনি ভয়ে আছেন যে, ইরান তাকে হত্যার চেষ্টা করতে পারে। এজন্য তিনি ওয়াশিংটনে ফিরে যেতে পারেন, সেখানে তিনি নিরাপদে থাকবেন।”#

পার্সটুডে/এসআইবি/১৪

ট্যাগ