সেপ্টেম্বর ১৮, ২০২২ ১১:১৫ Asia/Dhaka
  • সবুজ পান্নার মতো শহর রমসার
    সবুজ পান্নার মতো শহর রমসার

ইরানের মযান্দারন প্রদেশে সমুদ্র উপকূল জুড়ে গড়ে উঠেছে সবুজ পান্নার মতো শহর রমসার। এই শহরটিকে মনে হয় সমুদ্রের আঁচলে নকশা করা মূল্যবান পাথরের মতো। মযান্দারনের সবচেয়ে সুন্দর শহর হিসেবে রমসারের প্রাকৃতিক দৃশ্য এতো সুন্দর যে দেখামাত্রই হৃদয় জুড়িয়ে যায়।

রমসার শহরটি মযান্দারন প্রদেশের সবচেয়ে পশ্চিম দিকে পড়েছে। এই শহরটির উত্তরদিকে কাস্পিয়ান সাগর। দক্ষিণ দিকে আলবোর্য পর্বতমালা। পশ্চিম দিকে গিলান প্রদেশের রুদসার উপশহর আর পূর্বদিকে রয়েছে তাঙ্কাবন উপশহর। রমসার শহরটিকে প্রাকৃতিক দিক থেকে দুটি ভাগে ভাগ করা যেতে পারে। এক অংশ পড়েছে পার্বত্য এলাকায় তাই এ অংশ বেশ উঁচু।

অপর অংশটি পড়েছে পাহাড়ের পাদদেশীয় সমতল ভূমিতে, সুতরাং এই অংশটি নীচু। উঁচু অর্থাৎ পার্বত্য এলাকাটিতে পড়েছে আলবোর্য পর্বতমালার অনেক পাহাড়। এই পাহাড়গুলো সবুজ জঙ্গলে ঢাকা। এখানে আরো আছে বহু চারণভূমি। অপরদিকে পার্বত্য পাদদেশীয় সমতলভূমিতে আছে বহু নদী। এই নদীগুলোর সবই গিয়ে মিলেছে কাস্পিয়ান সাগরের সাথে।

রমসারের আবহাওয়া বেশ নাতিশীতোষ্ণ। এমনিতেই এ অঞ্চলের প্রাকৃতিক সৌন্দর্য হৃদয় কেড়ে নেওয়ার মতো সুন্দর। তদুপরি এখানকার মানুষগুলো অসম্ভব অতিথি পরায়ন, ভদ্র, নম্র। মেহমানদের সাথে তাদের আচরণ খুবই অমায়িক।

সমুদ্র কাছে থাকার কারণে আবহাওয়া জলীয় বাষ্পপূর্ণ অর্থাৎ এখানকার বাতাসে আর্দ্রতার মাত্রা একটু বেশি হলেও প্রাকৃতিক সৌন্দর্য বেশ কয়েকগুণ বেড়ে গেছে। সবমিলিয়ে গ্রীষ্মে প্রচণ্ড গরমে যখন সবার প্রাণ ওষ্ঠাগত হয়ে যায় তখন অনেকেই এই এলাকায় ছুটে যায় একটু স্বস্তির নিশ্বাস নেয়ার জন্যে।

ইরানের উত্তরাঞ্চলীয় যে কয়েকটি এলাকা গরমের সময় মানুষকে শীতল প্রশান্তিময় আবহাওয়ার নিশ্চয়তা দেয় সেগুলোর মাঝে এই রমসার একটি। না কেবল ইরানের বিভিন্ন এলাকা থেকেই যে লোকজন এইসব এলাকায় বেড়াতে যায় তা নয়, বরং বিশ্বের বিভিন্ন দেশ থেকেও অনেকেই এখানে আসেন রিফ্রেশমেন্টের জন্যে কয়েকটা দিন কাটিয়ে যেতে। তবে পার্শ্ববর্তী দেশগুলোর অতিথিই বেশি থাকে তুলনামূলকভাবে।#

পার্সটুডে/আশরাফুর রহমান/১৮

বিশ্বসংবাদসহ গুরুত্বপূর্ণ সব লেখা পেতে আমাদের ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে অ্যাকটিভ থাকুন।

ট্যাগ