অক্টোবর ০৭, ২০২২ ১৭:০৪ Asia/Dhaka
  • মাহসা আমিনী
    মাহসা আমিনী

বহুল আলোচিত মাহসা আমিনি'র মৃত্যুর কারণ সম্পর্কে বিবৃতি দিয়েছে ইরানের ফরেনসিক বিভাগ। বিবৃতিতে বলা হয়েছে মাহসা আমিনি মারা গেছেন ব্রেইন হাইপোক্সিয়ায়। ব্রেইনে অক্সিজেন না পৌঁছানোকে ব্রেইন হাইপোক্সিয়া বলা হয়।

মাহসা আমিনির মৃত্যুকে অজুহাত করে সৃষ্ট সাম্প্রতিক নৈরাজ্যের ভেতর ইসলামি ইরানের শত্রুরা ইরানের অভ্যন্তরে হস্তাক্ষেপ করার সুযোগ কাজে লাগায়। তারা ইরানে নৈরাজ্য উস্কে দিতে ব্যাপক চেষ্টা চালায়।  

সাম্প্রতিক নৈরাজ্যে আমেরিকা ও ইউরোপের কোনো কোনো নেতা এবং তাদের মিডিয়াগুলো এমনকি তাদের সহায়তায় প্রতিষ্ঠিত ফার্সি মিডিয়াগুলো মাহসা আমিনির মৃত্যুর ঘটনাকে অপব্যবহার করেছে। যদিও তার মৃত্যুর ঘটনাটি তদন্তাধীন ছিল। তারা ইরানি জাতির অধিকারের সমর্থনে স্লোগান দিয়ে নৈরাজ্য সৃষ্টিকারীদের সমর্থন দেয়। এমনকি জাতীয় সম্পদ ধ্বংসকারী এবং নিরাপত্তা বিঘ্নকারীদের সমর্থনে তারা প্রচারণা চালায়। প্রকৃতপক্ষে লক্ষ লক্ষ ইরানি জনতা সরকার ও সরকার ব্যবস্থার সমর্থনে দেশের আনাচে কানাচে, বিভিন্ন চত্বরে ও রাজপথে নেমে নৈরাজ্য সৃষ্টিকারীদের বিরুদ্ধে সমাবেশ ও মিছিল করে।

রাজতন্ত্রকামী সন্ত্রাসী মোনাফেকিন গোষ্ঠিগুলোর মতো ইসলামি বিপ্লব বিরোধীরা আমেরিকা ও ইসরাইলের মতো পশ্চিমা সরকারগুলোর পৃষ্ঠপোষকতায় নিজেদের সৃষ্ট ওই নৈরাজ্যকে ইরান-বিরোধী তাদের লক্ষ্য অর্জনের ব্যর্থ চেষ্টা চালায়।

এদিকে ফরেনসিক সংস্থা আজ মরহুমা মাহসা আমিনি'র মৃত্যুর কারণ সম্পর্কে দেওয়া বিবৃতিতে বলেছে, মেডিক্যাল রেকর্ডসহ সর্বপ্রকার পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে দেখা গেছে সেরিব্রাল হাইপক্সিয়ায় মাহসা আমিনির মৃত্যু হয়েছে।

মস্তিষ্ক ও ফুসফুসের সিটি-স্ক্যান, দেহের সার্বিক পরীক্ষার ফলাফল ও ময়নাতদন্ত, প্যাথলজিক্যাল টেস্ট ইত্যাদি পরীক্ষা করে নিশ্চিত হওয়া গেছে মাথায় কিংবা শরীরের কোনো অঙ্গ-প্রত্যঙ্গে আঘাতের কারণে তাঁর মৃত্যু হয় নি।#

পার্সটুডে/এনএম/৭

বিশ্বসংবাদসহ গুরুত্বপূর্ণ সব লেখা পেতে আমাদের ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে অ্যাকটিভ থাকুন।

 

 

ট্যাগ