২০১৯-০৯-২৩ ০৬:২৮ বাংলাদেশ সময়
  • ইরানের উপ পররাষ্ট্রমন্ত্রী সাইয়্যেদ আব্বাস আরাকচি
    ইরানের উপ পররাষ্ট্রমন্ত্রী সাইয়্যেদ আব্বাস আরাকচি

জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের ৭৪তম বার্ষিক অধিবেশনের অবকাশে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে ইরানের প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানির সাক্ষাতের সম্ভাবনা নাকচ করে দিয়েছে তেহরান। ইরান বলেছে, আমেরিকা ‘সর্বোচ্চ চাপ প্রয়োগের’ নীতি থেকে সরে না আসা পর্যন্ত ওয়াশিংটনের সঙ্গে আলোচনায় বসবে না তেহরান।

জাতিসংঘের অধিবেশনে যোগ দেয়ার জন্য নিউ ইয়র্ক সফররত ইরানের উপ পররাষ্ট্রমন্ত্রী সাইয়্যেদ আব্বাস আরাকচি ব্রিটিশ দৈনিক ইন্ডিপেন্ডেন্টকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে তার দেশের এ অবস্থানের কথা ঘোষণা করেন।  তিনি বলেন, আমেরিকার ‘সর্বোচ্চ চাপ’ প্রয়োগের নীতির কারণে ইরানও ‘সর্বোচ্চ প্রতিরোধ’ করার নীতি গ্রহণ করেছে। আরাকচি বলেন, শুধু ইরান নয় বিশ্বের অন্য কোনো দেশও চাপের মুখে আলোচনায় বসবে না।

ইরানের উপ পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প ইরানের পরমাণু সমঝোতায় ফিরে আসলে ছয় জাতিগোষ্ঠীর গঠনকাঠামোর আওতায় ওয়াশিংটনের সঙ্গে আলোচনায় বসবে তেহরান।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প ২০১৮ সালের ৮ মে ইরানের পরমাণু সমঝোতা থেকে বেরিয়ে গিয়ে তেহরানের ওপর ওয়াশিংটনের সব নিষেধাজ্ঞা পুনর্বহাল করেন। বিশ্বের প্রায় সব দেশ ট্রাম্পের এই পদক্ষেপের বিরোধিতা করে।

তবে মার্কিন প্রেসিডেন্ট গত কয়েক মাসে বহুবার ইরানের সঙ্গে আলোচনায় বসে তার ভাষায় আরেকটি পরমাণু চুক্তি স্বাক্ষরের আগ্রহ প্রকাশ করেছেন। কিন্তু তেহরান বলেছে, ট্রাম্প আগের চুক্তিতে ফিরে না আসা পর্যন্ত তার সঙ্গে কোনো আলোচনা হবে না; কারণ, একবার যে ব্যক্তি চুক্তি লঙ্ঘন করেছে তাকে দ্বিতীয়বার বিশ্বাস করা যায় না।#

পার্সটুডে/এমএমআই/২৩                    

বিশ্বসংবাদসহ গুরুত্বপূর্ণ সব লেখা পেতে আমাদের ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে অ্যাকটিভ থাকুন।

 

ট্যাগ

মন্তব্য