২০১৯-১১-১৭ ১৭:০১ বাংলাদেশ সময়
  • ব্রিগেডিয়ার জেনারেল আমির হাতামি
    ব্রিগেডিয়ার জেনারেল আমির হাতামি

ইরানের প্রতিরক্ষামন্ত্রী ব্রিগেডিয়ার জেনারেল আমির হাতামি নিষেধাজ্ঞা মোকাবেলা বিষয়ক গুরুত্বপূর্ণ বৈঠকে তার দেশের বিরুদ্ধে সাম্রাজ্যবাদী দেশগুলোর বিদ্বেষী আচরণের কথা উল্লেখ করে বলেছেন, আজ শত্রুরা আমাদের অস্তিত্বকে টার্গেটে পরিণত করেছে এবং ক্ষতি করার চাইতেও তারা আমাদেরকে নিশ্চিহ্ন করার খেলায় মেতে উঠেছে।

ইরানের প্রতিরক্ষামন্ত্রী তার দেশের বিরুদ্ধে সাম্রাজ্যবাদী শক্তিগুলোর নিষেধাজ্ঞার কথা উল্লেখ করে বলেছেন, নিষেধাজ্ঞার ধকল কাটিয়ে ওঠার একমাত্র পথ হচ্ছে, আমাদের প্রতিরক্ষা শক্তিকে সর্বোচ্চ পর্যায়ে নিয়ে যাওয়া। তিনি বলেন, পাশ্চাত্যের নিষেধাজ্ঞা ইরানকে কাবু করতে পারবে না এবং আমাদের প্রতিরক্ষা শক্তি বাড়ানোর কোনো বিকল্প নেই।

পর্যবেক্ষকরা বলছেন, আমেরিকা বর্তমানে ইরানের ব্যাপারে দু'টি লক্ষ্য অর্জনের চেষ্টা করছে। প্রথমত, অর্থ লেনদেন, বাণিজ্য ও ব্যাংকখাতে কঠোর নিষেধাজ্ঞা আরোপের মাধ্যমে তারা ইরানের ওপর সর্বোচ্চ চাপ সৃষ্টির চেষ্টা করছে। এমনকি তারা ইরানের তেল বিক্রি শূন্যে নামিয়ে আনা ও এ অঞ্চলের দেশগুলোর সঙ্গে ইরানের দূরত্ব সৃষ্টিরও চেষ্টা চালাচ্ছে।

ইরানের ব্যাপারে আমেরিকার দ্বিতীয় উদ্দেশ্য হচ্ছে, বিভিন্ন গণমাধ্যম, টিভি চ্যানেল কিংবা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ব্যবহার করে ইরানের ভেতরে অস্থিরতা ও গণঅসন্তোষ সৃষ্টি করা এবং জনগণকে সরকারের বিরুদ্ধে খেপিয়ে তোলা যাতে সরকারের ছোটখাটো দুর্বলতাগুলোকে বড় করে তুলে ধরা যায়। এ কারণে ইরানের প্রতিরক্ষামন্ত্রী বলেছেন, শত্রুর ষড়যন্ত্র ও নিষেধাজ্ঞা মোকাবেলার একমাত্র পথ হচ্ছে সামরিকসহ সব ক্ষেত্রে নিজেদের শক্তিমত্তাকে বাড়িয়ে তোলা।

এতে কোনো সন্দেহ নেই যে, ইরানের ওপর অর্থনৈতিকসহ অন্যান্য ক্ষেত্রে সর্বোচ্চ চাপ সৃষ্টি করা শত্রুদের প্রধান লক্ষ্য। এ কারণে এসব চাপ মোকাবেলা করা অত্যন্ত কঠিন ও জটিল। ইরানের জনগণের বিরুদ্ধে মার্কিন অর্থনৈতিক সন্ত্রাসবাদ মোকাবেলার বিষয়টি অনেক কিছুর ওপর নির্ভরশীল। এরমধ্যে অন্যতম হচ্ছে, নিজেদের অর্থনৈতিক কাঠামোর ভিত্তি শক্তিশালী করা যাতে মানুষের মধ্যে নিরাপত্তা ও স্বস্তি ফিরে আসে। কারণ আমেরিকা যেভাবেই হোক ইরানের জনগণের মধ্যে নিরাপত্তাহীনতা ও ভীতি ছড়ানোর চেষ্টা করছে যাতে ইরানের সরকারকে ভেতর থেকে দুর্বল করা যায়।

এতে কোনো সন্দেহ নেই যে, সর্বাত্মক নিষেধাজ্ঞা সত্বেও সব দিক থেকেই ইরান ব্যাপক উন্নয়ন ও সাফল্য অর্জন করেছে। তাই আরো কঠিন পরিস্থিতি মোকাবেলার জন্য ইরানকে প্রস্তুতি নিতে হচ্ছে। বিশেষ করে অর্থনৈতিক সংকট মোকাবেলা করা ইরানের এখন প্রধান লক্ষ্য এবং এ জন্য ইরান ব্যাপক চেষ্টা চালাচ্ছে। তবে শত্রুরা ইরানের অবকাঠামো এবং সাংস্কৃতিক, রাজনৈতিক, অর্থনৈতিক বিশেষকরে সামরিক অঙ্গনে প্রভাব ফেলার চেষ্টা করলেও এ পর্যন্ত তারা ব্যর্থ হয়েছে এবং ভবিষ্যতেও ব্যর্থ হবে।#

পার্সটুডে/রেজওয়ান হোসেন/১৭

 

ট্যাগ

মন্তব্য