ডিসেম্বর ১৩, ২০১৯ ০৭:২৭ Asia/Dhaka
  • কাঠের ওয়ালম্যাট গ্রহণ করছেন আব্দুর রহমান খান (বাম থেকে তৃতীয়)
    কাঠের ওয়ালম্যাট গ্রহণ করছেন আব্দুর রহমান খান (বাম থেকে তৃতীয়)

বাংলাদেশের প্রবীণ সাংবাদিক ও গণমাধ্যম ব্যক্তিত্ব জনাব আমানুল্লাহ বলেছেন, আমি দেশি-বিদেশি বহু গণমাধ্যমে কাজ করেছি; কিন্তু রেডিও তেহরানের মতো এমন হৃদ্যতাপূর্ণ ও আন্তরিক পরিবেশ অন্য কোনো গণমাধ্যমে দেখিনি।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় ঢাকায় এক অনাড়ম্বর অনুষ্ঠানে রেডিও তেহরানের বিশেষ প্রতিনিধি আব্দুর রহমান খানকে সম্মাননা প্রদানের এক অনুষ্ঠানে তিনি একথা বলেন। এক সময় বাংলাদেশ সংবাদ সংস্থা (বাসস) ও পরবর্তীতে প্রেস ইনস্টিটিউট অব বাংলাদেশ (পিআইবি)’র প্রধানের দায়িত্ব পালন করেছেন খ্যাতিমান সাংবাদিক জনাব আমানুল্লাহ।

তিনি আরো বলেন, বাংলাদেশের মহান স্বাধীনতা অর্জনের আগে থেকে এখন পর্যন্ত ভয়েস অব আমেরিকাসহ নানা দেশি-বিদেশি গণমাধ্যমে কাজ করার সুযোগ তার হয়েছে। কিন্তু এরকমভাবে তাদের প্রতিনিধিদের সম্মানিত করার ঘটনা তিনি দেখেননি।

(বাম থেকে) শাহনাজ বেগম, আশরাফুর রহমান, আব্দুর রহমান খান, জনাব আমানুল্লাহ, আব্দুল আউয়াল ঠাকুর, সিরাজুল ইসলাম ও মুজাহিদুল ইসলাম

অনুষ্ঠানে বিশিষ্ট লেখক, কলামিস্ট ও গণমাধ্যম ব্যক্তিত্ব আব্দুল আউয়াল ঠাকুর বর্তমান আন্তর্জাতিক প্রেক্ষাপটে সাম্রাজ্যবাদী আমেরিকার জুলুম-নির্যাতন ও একাধিপত্যের বিরুদ্ধে কঠোর অবস্থানে থেকে রুখে দাঁড়ানোর জন্য ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরানের ভূয়সী প্রশংসা করেন। তিনি ইসলাম ও মজলুমের পক্ষে বলিষ্ঠ কণ্ঠস্বর হিসেবে রেডিও তেহরানের উত্তরোত্তর উন্নতি ও সমৃদ্ধি কামনা করেন।

ঢাকার একটি রেস্তোঁরায় অনুষ্ঠিত এ সম্মাননা প্রদান অনুষ্ঠানে রেডিও তেহরানের পক্ষ থেকে আব্দুর রহমান খানকে একটি ইরানি কাঠের ওয়ালম্যাট এবং একটি সনদ প্রদান করা হয়।এ সময় রেডিও তেহরানের বাংলা বিভাগের পরিচালক মুজতবা ইব্রাহিমি এবং আইআরআইবি’র বিশ্ব কার্যক্রমের উপমহাদেশ ও পূর্ব এশিয়া বিভাগের মহাপরিচালক হাসান নওরোজির শুভেচ্ছা বার্তা পৌঁছে দেন আশরাফুর রহমান।

অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন বিশিষ্ট সাংবাদিক শাহনাজ বেগম, রেডিও তেহরানের সিনিয়র সাংবাদিক মো. সিরাজুল ইসলাম ও সাবেক পরিচালক মো. মুজাহিদুল ইসলাম।#

পার্সটুডে/এমএমআই/১৩

বিশ্বসংবাদসহ গুরুত্বপূর্ণ সব লেখা পেতে আমাদের ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে অ্যাকটিভ থাকুন।

ট্যাগ

মন্তব্য