জানুয়ারি ২২, ২০২০ ১৮:০৯ Asia/Dhaka
  • ইরানের তেল বহির্ভূত পণ্য রপ্তানি বেড়েছে
    ইরানের তেল বহির্ভূত পণ্য রপ্তানি বেড়েছে

চলতি ফার্সি বছরে ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরান তেল-বহির্ভূত পণ্য রপ্তানি করে ৩,২০০ কোটি ডলার আয় করেছে। মার্কিন সরকার প্রচণ্ড চাপ সৃষ্টি করে ইরানকে যখন অর্থনৈতিক দিক দিয়ে কোণঠাসা করে ফেলার চেষ্টা করছে তখন তেল-বহির্ভূত পণ্য রপ্তানি থেকে এই বিপুল পরিমাণ অর্থ উপার্জন করল ইরান।

ইরানের শিল্পমন্ত্রী হোসেইন মোদারেস খিয়াবনি তেল বহির্ভূত পণ্য রপ্তানির এই বিপুল অর্থ আয়ে সন্তুষ্টি প্রকাশ করে বলেন, এটি বর্তমান অর্থনৈতিক পরিস্থিতিতে দেশের জন্য একটি জাদুকরী ঘটনা। ইরানের আধা সরকারি বার্তা সংস্থা ফার্স নিউজ এ খবর দিয়েছে।

মন্ত্রী মোদারেস জানিয়েছেন, তেল রপ্তানি খাত থেকে যে পরিমাণে অর্থ আয় হতো, তেল বহির্ভূত খাত থেকে প্রায় সেই পরিমাণ অর্থ আয় হচ্ছে এবং দেশের সরকারি কর্মকাণ্ড সবই প্রায় তেল বহির্ভূত খাতের আয় দিয়ে পরিচালিত হচ্ছে।

তেল বহির্ভূত পণ্য রপ্তানি বাড়িয়েছে ইরান

২০১৮ সালের মে মাসে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প তার দেশকে পরমাণু সমঝোতা থেকে বের করে নেন এবং ওই বছরের নভেম্বর মাস থেকে ইরানের বিরুদ্ধে ভয়াবহ হিংসাত্মক নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেন। তিনি সেসময় ঘোষণা করেছিলেন, আন্তর্জাতিক অঙ্গনে ইরানের তেল রপ্তানি শূন্যের কোঠায় নামিয়ে আনা হবে। ইরানের বিরুদ্ধে মার্কিন প্রশাসন সর্বোচ্চ চাপ প্রয়োগের যে বর্বর নীতি গ্রহণ করেছে তার অংশ হিসেবে তেহরানের ওপর একতরফা বেআইনি কঠোর নিষেধাজ্ঞা চাপিয়ে দিয়েছে ওয়াশিংটন।

এ অবস্থার ভেতর দিয়ে ইরান অর্থনীতি ঠিক রাখার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে এবং তেল বহির্ভূত খাতে দিন দিন আয় বাড়িয়েছে। মার্কিন চাপের মুখে ইরান নতিস্বীকার না করে বলেছে, তারা কোনমতেই ট্রাম্পের সঙ্গে নতুন করে পরমাণু আলোচনায় যাবে না।#

পার্সটুডে/এসআইবি/২২

ট্যাগ

মন্তব্য