জানুয়ারি ২৪, ২০২০ ০৭:৪৫ Asia/Dhaka
  • মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প
    মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ইরানের সঙ্গে নতুন করে একটি চুক্তি স্বাক্ষরের যে আগ্রহ প্রকাশ করেছেন তাকে ‘অলীক কল্পনা’ বলে উড়িয়ে দিয়েছে তেহরান।

ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন সম্প্রতি ইরানের পরমাণু সমঝোতার পরিবর্তে একটি নয়া চুক্তি স্বাক্ষরের আহ্বান জানান এবং সম্ভাব্য চুক্তিকে ‘ট্রাম্প চুক্তি’ বলে উল্লেখ করেন। মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের ইরান অ্যাকশন গ্রুপের প্রধান ব্রায়ান হুক গতকাল এক সাক্ষাৎকারে জনসনের ওই বক্তব্যের প্রতি ইঙ্গিত করে বলেন, সম্ভাব্য ওই চুক্তিতে চারটি বিষয় থাকতে হবে আর সেগুলো হলো- ইরানের ইউরেনিয়াম সমৃদ্ধকরণের অধিকার থাকবে না, ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা বন্ধ করতে হবে, মধ্যপ্রাচ্যের বিভিন্ন প্রতিরোধ আন্দোলনের প্রতি আর্থিক ও অস্ত্র সাহায্য করা যাবে না এবং কথিত পণবন্দি আটকের নীত পরিহার করতে হবে।

ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র সাইয়্যেদ আব্বাস মুসাভি

হুকের এ বক্তব্যের প্রতিক্রিয়ায় ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র সাইয়্যেদ আব্বাস মুসাভি এক টুইটার বার্তায় লিখেছেন, হুক যে চুক্তির কথা বলেছেন, সেটা কল্পনার জগতে থাকতে পারে বাস্তবে নেই। আর আমেরিকার মাধ্যমে এ ধরনের অলীক কল্পনাপ্রসূত কথাবার্তা তাদের দাম্ভিক মানসিকতার বহিঃপ্রকাশ।

মুসাভি আরো বলেন, হুক যেন তার ফার্সি অনুবাদকের কাছ থেকে ‘রেই শহরের গম আর বাগদাদের খোরমা’র গল্পটি শুনে নেন।

ফার্সি ভাষায় ‘রেই’র গম এবং বাগদাদের খোরমা’র কোনোটাই পেল না’ বলে একটি প্রবাদ আছে। অতিরিক্ত চাহিদাসম্পন্ন মানুষের ভাগ্যে যে কিছুই জোটে না সেকথা প্রকাশ করার জন্য এই প্রবাদবাক্যটি ব্যবহৃত হয়।

আমেরিকা পরমাণু সমঝোতাকে বাদ দিয়ে ইরানের সঙ্গে নতুন করে পরমাণু আলোচনায় বসার যে আগ্রহ দেখাচ্ছে তার জবাবে ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোহাম্মাদ জাওয়াদ জারিফ স্পষ্ট ভাষায় বলেছেন, তার দেশ একবার পরমাণু সমঝোতায় সই করেছে কাজেই পরমাণু কর্মসূচি নিয়ে নতুন করে আর কোনো আলোচনা হবে না।#                                                                                        

পার্সটুডে/এমএমআই/২৪

বিশ্বসংবাদসহ গুরুত্বপূর্ণ সব লেখা পেতে আমাদের ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে অ্যাকটিভ থাকুন।

ট্যাগ

মন্তব্য