ফেব্রুয়ারি ১৬, ২০২০ ০৯:১২ Asia/Dhaka
  • ব্রিগেডিয়ার জেনারেল আলী ফাদাভি
    ব্রিগেডিয়ার জেনারেল আলী ফাদাভি

ইরাকে অবস্থিত মার্কিন সামরিক ঘাঁটি আইন আল-আসাদে ইরানের ক্ষেপণাস্ত্র হামলায় কি পরিমাণ ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে তা প্রকাশ করতে আমেরিকার প্রতি আহ্বান জানিয়েছে ইরানের ইসলামি বিপ্লবী গার্ড বাহিনী বা আইআরজিসি। বাহিনীর উপ প্রধান ব্রিগেডিয়ার জেনারেল আলী ফাদাভি শনিবার তেহরানে এক অনুষ্ঠানে দেয়া বক্তব্যে এ আহ্বান জানান।

তিনি মার্কিন রাজনৈতিক নেতাদের কটাক্ষ করে বলেন, আমেরিকার প্রেসিডেন্ট নির্বাচনকে সামনে রেখে এসব রাজনৈতিক নেতা পরস্পরকে আক্রমণ করতে গিয়ে আইন আল-আসাদ ঘাঁটির ক্ষয়ক্ষতির বিবরণ নিজেরাই প্রকাশ করে দেবেন। তবে তার আগেই মার্কিন সরকার জানমালের ক্ষয়ক্ষতির সঠিক তথ্য প্রকাশ করলে ভালো হয়।

গত ৩ জানুয়ারি ইরাকের রাজধানী বাগদাদে মার্কিন সন্ত্রাসী সেনাদের ড্রোন হামলায় ইরানের কুদস ফোর্সের কমান্ডার লেঃ জেনারেল কাসেম সোলাইমানি শহীদ হন।  একই সঙ্গে শহিদ হন ইরাকের জনপ্রিয় আধা সামরিক বাহিনী হাশদ আশ-শাবি বা পিএমইউ'র সেকেন্ড-ইন-কমান্ড আবু মাহদি আল-মুহানদিসসহ মোট ১০ জন।

আইন আল-আসাদে ইরানি ক্ষেপণাস্ত্র হামলার দৃশ্য

ওই পাশবিক হামলার জবাব দিতে ৮ জানুয়ারি আইআরজিসি ইরাকের আইন আল-আসাদ ঘাঁটিতে এক ডজনেরও বেশি ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ করে। আইআরজিসি জানায়, ওই হামলায় ২০০ জনেরও বেশি মার্কিন সেনা আহত হয়েছে। তবে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প দাবি করেন, ইরানের হামলায় কোনো মার্কিন সেনা আহত হয়নি।

কিন্তু এরপর মার্কিন প্রতিরক্ষা দপ্তর পেন্টাগন তাদের মাত্র ১১ জন সেনার আহত হওয়ার কথা জানায় এবং পরবর্তীতে সে সংখ্যা কয়েক দফা বাড়িয়ে ১১ ফেব্রুয়ারি ১০৯ মার্কিন সেনার আহত হওয়ার কথা স্বীকার করে।  

আইআরজিসি’র উপ প্রধান জেনারেল ফাদাভি আরো বলেছেন, পশ্চিমা দেশগুলো স্বাধীন তথ্য প্রকাশের অধিকার থাকার কথা দাবি করে অথচ বিগত বছরগুলোতে তারা এত বেশি তথ্য গোপন করেছে যে, কঠোর স্বৈরতান্ত্রিক দেশও তা করে না। তিনি বলেন, পশ্চিমারা প্রয়োজনে চরম মিথ্যাচার করতেও দ্বিধা করে না।#

পার্সটুডে/এমএমআই/১৬

বিশ্বসংবাদসহ গুরুত্বপূর্ণ সব লেখা পেতে আমাদের ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে অ্যাকটিভ থাকুন।

ট্যাগ

মন্তব্য