মার্চ ২০, ২০২০ ১১:০৪ Asia/Dhaka

ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরানের সর্বোচ্চ নেতা আয়াতুল্লাহিল উজমা খামেনেয়ী ফার্সি নতুন বছরকে ‘উৎপাদন বৃদ্ধি’র বছর হিসেবে অভিহিত করে বলেছেন, সব খাতে উৎপাদন বৃদ্ধি এতটা বেশি হতে হবে যাতে সাধারণ মানুষ তার উপকার উপলব্ধি করতে পারে। আজ (শুক্রবার) সকালে ফার্সি নববর্ষ ১৩৯৯ উপলক্ষে জাতির উদ্দেশে দেয়া এক ভাষণে তিনি এ আহ্বান জানান।

সর্বোচ্চ নেতা তার ভাষণে বলেন, ইরানে বিগত ফার্সি বছর প্রবল বন্যা দিয়ে শুরু হয়েছিল এবং করোনাভাইরাস দিয়ে শেষ হলো। এ ছাড়া, সারাবছর ভূমিকম্প ও নিষেধাজ্ঞার মতো অনেক ঘটনা ঘটে যার শীর্ষে ছিল সন্ত্রাসী মার্কিন বাহিনীর হামলায় লেঃ জেনারেল কাসেম সোলাইমানির শাহাদাত।  তিনি জেনারেল সোলাইমানির শাহাদাতকে ইরানের জন্য অপূরণীয় ক্ষতি বলে উল্লেখ করেন।

ফার্সি ১৩৯৮ সালে ইরানি জনগণকে অনেকগুলো ঐশী পরীক্ষার মুখোমুখি হতে হয়েছে উল্লেখ করে সর্বোচ্চ নেতা বলেন, বিশ্বের কোনো জাতি আরাম-আয়েশ করে উন্নতি সাধন করতে পারেনি। কঠোর পরিশ্রম হচ্ছে বাধাগুলো অতিক্রম ও উন্নতির চাবিকাঠি এবং ইরানি জনগণ অতীতের মতো পরিশ্রমের ধারা অব্যাহত রাখবে বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন।

আয়াতুল্লাহিল উজমা খামেনেয়ী ফার্সি নববর্ষের ভাষণে আরো বলেন, মার্কিন নিষেধাজ্ঞায় ক্ষতি হওয়ার পাশাপাশি ইরানের অনেক লাভও হয়েছে। আমরা বহু ক্ষেত্রে অভ্যন্তরীণভাবে উৎপাদন বাড়িয়ে দিয়ে স্বয়ংসম্পূর্ণ হয়েছি এবং এই ধারা ভবিষ্যতেও অব্যাহত থাকবে ইনশা আল্লাহ।  

ইরানের সর্বোচ্চ নেতা বলেন, বিগত ফার্সি বছর সত্যিই সাধারণ মানুষের জন্য কঠিন ছিল। কিন্তু কষ্টের পাশাপাশি কিছু কিছু ক্ষেত্রে ইরানি জনগণ অভাবনীয় সাফল্যও দেখিয়েছে। ভাষণের শেষাংশে তিনি সব খাতে উৎপাদন বৃদ্ধির প্রয়োজনীয়তার কথা স্মরণ করে নতুন ফার্সি বছরকে ‘উৎপাদন বৃদ্ধি’র বছর হিসেবে নামকরণ করেন এবং এই খাতের সঙ্গে সংশ্লিষ্টদের উদ্দেশ করে বলেন, আপনারা এতটা বেশি উৎপাদন বাড়ান যাতে সাধারণ মানুষ তার উপকার উপলব্ধি করতে পারে।#

পার্সটুডে/এমএমআই/২০

বিশ্বসংবাদসহ গুরুত্বপূর্ণ সব লেখা পেতে আমাদের ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে অ্যাকটিভ থাকুন।

ট্যাগ

মন্তব্য