মে ২৮, ২০২০ ০৫:৩১ Asia/Dhaka
  • ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র সাইয়্যেদ আব্বাস মুসাভি
    ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র সাইয়্যেদ আব্বাস মুসাভি

ইরানের বিচার বিভাগের স্বাধীনতাসহ এদেশের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে কোনো ধরনের বিদেশি হস্তক্ষেপ মেনে নেয়া হবে না বলে তেহরান ঘোষণা করেছে।ইরানের আদালতে ইরানি বংশোদ্ভূত একজন ফরাসি নাগরিকের বিচার প্রসঙ্গে ফ্রান্সের পররাষ্ট্রমন্ত্রী জ্যঁ-ইভস লা দ্রিয়াঁর বক্তব্য প্রত্যাখ্যান করে তেহরান ওই মন্তব্য করেছে।

ফরাসি পররাষ্ট্রমন্ত্রী সম্প্রতি এক বক্তব্যে বলেন, ইরানি বংশোদ্ভূত ফরাসি নাগরিক ফারিবা আদেলখা’কে কারাদণ্ড দেয়ার পর তেহরানের সঙ্গে প্যারিসের সম্পর্কে দূরত্ব বেড়েছে।

ফারিবা আদেলখা কিছুদিন আগে ইরানে গুপ্তচরবৃত্তির অভিযোগে গ্রেফতার হন। তার আইনজীবী সম্প্রতি জানিয়েছেন, ইরানের জাতীয় নিরাপত্তা বিরোধী তৎপরতায় জড়িত থাকার অভিযোগে তাকে কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে।

ইরানের জাতীয় নিরাপত্তা বিরোধী তৎপরতায় জড়িত থাকার অপরাধে নিম্ন আদালতে শাস্তি পেয়েছেন ফারিবা আদেলখা

ফরাসি পররাষ্ট্রমন্ত্রীর বক্তব্যের জবাবে ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র সাইয়্যেদ আব্বাস মুসাভি বুধবার তেহরানে বলেছেন, আদেলখা’কে আটক ও বিচারের সময় তাকে একজন ইরানি নাগরিক হিসেবে বিবেচনা করা হয়েছে এবং আত্মপক্ষ সমর্থনের জন্য একজন ইরানি নাগরিক যত ধরনের সুবিধা পেতে পারেন তার সবগুলো তাকে দেয়া হয়েছে। তার বিরুদ্ধে নিম্ন আদালত যে রায় দিয়েছে তার বিরুদ্ধে তিনি উচ্চ আদালতে আপিল করতে পারবেন বলে মুসাভি জানান।

ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র বলেন, তার দেশের বিচার বিভাগ সাংবিধানিক কাঠামোর আওতায় সম্পূর্ণ স্বাধীনভাবে কাজ করছে এবং আদালতের রায়ের বিষয়টিকে তেহরান-প্যারিস সম্পর্কের সঙ্গে জড়িয়ে ফেলার ঘটনা সম্পূর্ণ অগঠনমূলক। তিনি সতর্ক করে দিয়ে বলেন, ফ্রান্সের পক্ষ থেকে যেকোনো ধরনের হুমকি ও হস্তক্ষেপমূলক কথাবার্তা ফারিবা আদেলখা’র বিচার প্রক্রিয়ার ওপর নেতিবাচক প্রভাব ফেলতে পারে।#

পার্সটুডে/এমএমআই/২৮

বিশ্বসংবাদসহ গুরুত্বপূর্ণ সব লেখা পেতে আমাদের ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে অ্যাকটিভ থাকুন।

 

ট্যাগ

মন্তব্য