মে ২৯, ২০২০ ১৮:২৮ Asia/Dhaka

ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র আব্বাস মুসাভি বলেছেন, ইসলামী ইরান মার্কিন সরকারের সর্বোচ্চ চাপের মোকাবেলায় সর্বোচ্চ প্রতিরোধ গড়ে তুলে মার্কিন এই নীতিকে অচল করে দিয়েছে।

ইরানিদের ইস্পাত-কঠিন দৃঢ় প্রতিজ্ঞা ও অভ্যন্তরীণ শক্তিমত্তাগুলোর সুবাদে তা সম্ভব হয়েছে বলে তিনি উল্লেখ করেছেন।

 

মুসাভি মার্কিন সরকারকে আরও বলেছেন, হয় পরাজয় মেনে নিয়ে ইরানি জাতির প্রতি সম্মানের নীতি গ্রহণ করুন অথবা আগের মতই অপদস্থ, ঘৃণিত ও আরও বেশি একঘরে হওয়ার পথ অব্যাহত রাখুন। ইরানের মোকাবেলায় এ দুই পথ গ্রহণ ছাড়া মার্কিন সরকারের সামনে আর কোনো বিকল্প নেই বলে মুসাভি উল্লেখ করেছেন।

 

ইরান বিষয়ে মার্কিন সরকারের বিশেষ প্রতিনিধি ব্রায়ান হুকের একটি মন্তব্যের জবাব দিতে গিয়ে মুসাভি ওইসব কথা বলেছেন। হুক সম্প্রতি এক মন্তব্যে বলেছিলেন, ইরানের সামনে এখন কেবল দু'টি পথ খোলা : হয় মার্কিন সরকারের সঙ্গে সংলাপে বসা অথবা অর্থনৈতিক সংকট মোকাবেলা করা।

 

ট্রাম্প ইরানের পরমাণু বিষয়ক জাতিসংঘের অনুমোদিত সমঝোতা বাতিল ঘোষণা করেছিল মনের মত এক নতুন চুক্তি সম্পাদনের আশায় এবং এ লক্ষ্যে ইরানের ওপর সর্বোচ্চ চাপ প্রয়োগের নীতি গ্রহণ করে। পুরনো নিষেধাজ্ঞাগুলো বহালের পাশাপাশি নতুন নতুন নানা নিষেধাজ্ঞা দিয়ে ট্রাম্প ইরানকে সংলাপে বসতে বাধ্য করতে চেয়েছে।

 

কিন্তু দুই বছর পরও ট্রাম্পের সেই আশা দুরাশাই থেকে গেছে। ইরানের চৌকস বা স্মার্ট কূটনীতি ও সর্বোচ্চ প্রতিরোধ নীতি ট্রাম্পের সব ষড়যন্ত্রকে ধুলিসাৎ করে দিচ্ছে। বরং এখন একঘরে হয়ে-পড়া মার্কিন সরকারের জন্যই ইরানের সঙ্গে আপোষ করা ছাড়া কোনো উপায় নেই।

 

হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক স্টিফেন ওয়াল্টসহ অন্য অনেক বিশেষজ্ঞ মনে করেন মার্কিন সরকারের কথিত সর্বোচ্চ চাপ ইরানের ইসলামী সরকারকে নতজানু করা দূরে থাক্ এই সরকারের কেশাগ্রও নড়াতে পারেনি।

 

ইরান তার ঘরোয়া শক্তিমত্তা ও নানা কৌশল কাজে লাগিয়ে শিল্প ও অর্থনীতির চাকাকে সচল রেখেছে এবং বৈদেশিক বাণিজ্যও অব্যাহত রেখেছে। করোনাভাইরাসের মত সংকটের মধ্যেও ইরান এ সংকটকে নিয়ন্ত্রণে রেখে করোনা সনাক্তকরণের কিটসহ নানা চিকিৎসা-সামগ্রী বিদেশে রপ্তানিও করছে।

 

ইরানের ওপর জাতিসংঘের অস্ত্র নিষেধাজ্ঞা পুনরায় চালু করার চেষ্টা থেকেও মার্কিন নীতিগুলোর ব্যর্থতা স্পষ্ট। মার্কিন নিষেধাজ্ঞা ও হুমকি উপেক্ষা করে ইরানের চারটি তেলবাহী ট্যাংকার সম্প্রতি ভেনিজুয়েলার বন্দরে ভিড়েছে। ফলে আন্তর্জাতিক অঙ্গনেও মার্কিন সরকারের একঘরে অবস্থা জোরদার হয়েছে।#

 

পার্সটুডে/এমএএইচ/২৯

 

বিশ্বসংবাদসহ গুরুত্বপূর্ণ সব লেখা পেতে আমাদের ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে অ্যাকটিভ থাকুন।

 

 

 

 

ট্যাগ

মন্তব্য